Advertisement

‘সুষমা স্বরাজ ও অরুণ জেটলির মৃত্যুর জন্য দায়ী মোদি’, বিস্ফোরক দাবি এমকে স্টালিনের ছেলের

01:06 PM Apr 02, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তামিলনাডুর (Tamil Nadu) সরগরম ভোট আবহে বিস্ফোরক ডিএমকে (DMK) প্রধান এমকে স্টালিনের (MK Stalin) ছেলে উদয়ানিধি স্টালিন (Udhayanidhi Stalin)। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Modi) আক্রমণ করে বিচিত্র অভিযোগ করতে দেখা গেল তাঁকে। তাঁর অভিযোগ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ (Sushma Swaraj) ও অরুণ জেটলির (Arun Jaitley) মৃত্যুর জন্য মোদিই দায়ী। তাঁর অত্যাচারেই নাকি মারা গিয়েছেন ওই দু’জন। তাঁর এমন দাবির তীব্র প্রতিবাদ করেছেন প্রয়াত সুষমা ও জেটলির কন্যারা। তোলপাড় রাজনৈতিক মহল।

Advertisement

ঠিক কী বলেছেন উদয়ানিধি? বৃহস্পতিবার তাঁকে বলতে শোনা যায়, ”একজন ছিলেন, সুষমা স্বরাজ। তিনি মারা যান মোদির সৃষ্টি করা চাপে। আর একজন অরুণ জেটলি, উনিও মারা যান মোদির অত্যাচারে।” এরই পাশাপাশি তিনি অভিযোগ করেন ভেঙ্কাইয়া নাইডুর মতো সিনিয়র নেতাদের ‘সাইডলাইনে’ সরিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ”আপনি সবাইকে সাইডলাইনে পাঠিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু আমি তামিলনাডুর মুখ্যমন্ত্রী ই পালানিস্বামীর মতো আপনাকে ভয় পাই না। নতও হতে পারব না। আমি উদয়ানিধি স্টালিন। কালাইগনারের নাতি।”

[আরও পড়ুন: ‘হেনস্তা’ করছেন চার মহিলা! মানসিক চাপ সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যার চেষ্টা যুবকের]

তাঁর এই ধরনের বিস্ফোরক দাবিকে ঘিরে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন অনেকেই। ইতিমধ্যেই প্রয়াত সুষমার কন্যা বাঁশুরি টুইটারে লিখেছেন, ”উদয়ানিধিজি, দয়া করে আপনার ভোটের প্রোপাগান্ডা চালাতে গিয়ে আমার মায়ের স্মৃতিকে ব্যবহার করবেন না। আপনার কথা মিথ্যে! আমার মায়ের প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিজির প্রভূত সম্মান ও শ্রদ্ধা ছিল। আমাদের জীবনের অন্ধকার সময়ে তিনি আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। আপনার মন্তব্য আমাদের আহত করেছে।”

একই অভিযোগ অরুণ জেটলির কন্যারও। সোনালি জেটলি বক্সি তাঁর টুইটার হ্যান্ডলে লেখেন, ”উদয়ানিধিজি, আমি জানি নির্বাচনের সময় আপনার উপরে চাপ রয়েছে। কিন্তু আমার বাবার স্মৃতিকে অসম্মান করে আপনি মিথ্যে বলায় আমার পক্ষে চুপ থাকা সম্ভব হল না। বাবা ও প্রধানমন্ত্রীজির মধ্যে বিশেষ একটা বন্ধন ছিল, যা রাজনীতিরও ঊর্ধ্বে।”

[আরও পড়ুন: ফের শিরোনামে পুলওয়ামা! সেনার সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে খতম ১ জঙ্গি]

প্রসঙ্গত, আগামী ৬ এপ্রিল তামিলনাডুতে এক দফায় ২৩৪ আসনের ভোট। তার আগে ভোটপ্রচার তুঙ্গে। কিন্তু প্রচারের তাগিদেও উদয়ানিধি স্টালিনের এহেন মন্তব্যকে দুর্ভাগ্যজনক বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Advertisement
Next