Advertisement

করোনায় আক্রান্ত মরণাপন্ন স্বামীর সন্তানের জন্ম দিতে চান স্ত্রী, বীর্য সংরক্ষণের নির্দেশ কোর্টের

08:39 PM Jul 21, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বামীর মৃত্যু প্রায় আসন্ন। একে একে কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছে শরীরের সব অঙ্গপ্রত্যঙ্গই। করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। চিকিৎসকরা আশা ছেড়েই দিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে স্ত্রীর ইচ্ছে স্বামীর সন্তান গর্ভে ধারণ করবেন। হাসপাতালের সবুজ সংকেত না পেয়ে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। অবশেষে গুজরাট (Gujarat) হাই কোর্ট অনুমতি দিল ওই ব্যক্তির বীর্য (Sperm) সংগ্রহ করে রাখার। সেইমতো হাসপাতালকে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি আশুতোষ শাস্ত্রী।

Advertisement

‘মাল্টি-অর্গ্যান ফেলিওর’-এ ভুগছেন ওই ব্যক্তি। রয়েছেন লাইফ সাপোর্টে। ডাক্তাররা সকলেই জানিয়েছেন, তাঁর বাঁচার সম্ভাবনা একেবারেই ক্ষীণ। এই পরিস্থিতিতে তাঁর স্ত্রী হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানান, তিনি IVF কিংবা ART টেকনোলজি ব্যবহার করে গর্ভে ধারণ করতে চান তাঁর স্বামীর ঔরসজাত সন্তান। কিন্তু হাসপাতাল তাঁর প্রস্তাবে রাজি হয়নি। তাঁকে জানিয়ে দেওয়া হয়, এক্ষেত্রে আদালতের নির্দেশ ছাড়া কিছু হওয়ার নয়। এরপরই হাই কোর্টে পিটিশন জমা দেন তিনি।

[আরও পড়ুন: শহিদ দিবসে ত্রিপুরায় আটক TMC কর্মীরা, তীব্র নিন্দায় Abhishek]

অবশেষে তাঁর পিটিশনে সাড়া দিয়েছে আদালত। যেহেতু ও ব্যক্তির শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হচ্ছে তাই বিষয়টিকে ‘অস্বাভাবিক জরুরি পরিস্থিতি’ বলে উল্লেখ করে হাইকোর্ট একটি নির্দেশ জারি করেছে হাসপাতালের উদ্দেশে। তাতে বলা হয়েছে কৃত্রিম উপায়ে ওই মহিলা যাতে সন্তানধারণ করতে পারেন, সেজন্য ওই ব্যক্তির বীর্য সংগ্রহ করে প্রয়োজনীয় স্থানে তা সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। ২৩ জুলাই হাসপাতালের অধিকর্তা ও রাজ্য সরকারের বক্তব্য জানতে চেয়েও নোটিস জারি করেছে আদালত।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে পশ্চিমবঙ্গের নৈহাটির এক বাসিন্দা যিনি অণ্ডকোষের বিরল ক্যানসারে আক্রান্ত তাঁর বীর্যও সংগ্রহ করে রাখা হয় অণ্ডকোষটি অস্ত্রোপচার করে বাদ দেওয়ার আগে। বীর্য ব্যাঙ্কে রেখে দেওয়া হয়েছে শুক্রাণু। যাতে ভবিষ্যতে এর সাহায্যে সন্তানধারণ করতে পারেন তাঁর স্ত্রী।

[আরও পড়ুন: ২০২৪ পর্যন্ত Congress সভানেত্রী সোনিয়াই? বড় পদ পেতে পারেন পাইলট-আজাদ]

Advertisement
Next