Advertisement

Zomato কাণ্ডে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন হিতেশা, বিবৃতি দিয়ে সবাইকে শান্ত থাকার আরজি

02:02 PM Mar 19, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জোম্যাটো (Zomato) কাণ্ডে উত্তাল নেট দুনিয়া। খাবার ডেলিভারি দিতে এসে এক মহিলাকে ঘুষি মেরে নাক ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ডেলিভারি বয়ের বিরুদ্ধে। যদিও কামরাজ নামের ওই ডেলিভারি বয়ের দাবি, হিতেশা চন্দ্রাণী (Hitesha Chandranee) নামের মহিলা তাঁকে জুতো ছুঁড়ে মেরেছিলেন। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে এফআইআর দায়ের করেছে বেঙ্গালুরু পুলিশ (Bengaluru Police)। বহু নেটিজেনই হিতেশার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। সেই তালিকায় রয়েছেন পরিণীতি চোপড়ার মতো সেলেবরাও। এবার ইনস্টাগ্রামে একটি বিবৃতি পেশ করে হিতেশা জানালেন, যেভাবে ইন্টারনেটে ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে, তাতে তিনি ভয় পাচ্ছেন তাঁর নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ঘটনাটি প্রথম প্রকাশ্যে আসে ১০ মার্চ। একটি ভিডিও পোস্ট করে হিতেশা অভিযোগ করেন, খাবার ডেলিভারি নিয়ে বচসা হওয়ায় ডেলিভারি বয় কামরাজ নাকি মেরে তাঁর নাক ফাটিয়ে দিয়েছেন। এমনকী নাক থেকে রক্ত ঝরার ছবিও পোস্ট করেন। স্বাভাবিকভাবেই মহিলা ক্রেতার অভিযোগ শুনে ডেলিভারি বয়ের বিরুদ্ধে সরব হয় নেটিজেনরা। কিন্তু কামরাজের বক্তব্য সামনে আসার পরই ঘটনার মোড় ঘুরে যায়। রাতারাতি নেটিজেনদের টার্গেট হয়ে ওঠেন হিতেশা। বিবৃতিতে তাঁর উপরে চলতে থাকা আক্রমণের প্রসঙ্গ টেনে তিনি জানিয়েছেন, তিনি নিজের জীবন, ভাবমূর্তি, সম্মান ও মনের শান্তিকে ঝুঁকিতে ফেলতে চান না।

[আরও পড়ুন: ‘হায় ভগবান, হাঁটু দেখা যাচ্ছে’, মোদি-গড়করির হাফপ্যান্ট পরা ছবি শেয়ার করে কটাক্ষ প্রিয়াঙ্কার]

এমনকী, যেভাবে বহু মিডিয়া রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে তিনি বেঙ্গালুরু ছেড়ে পালিয়েছেন, সেই দাবিকেও নস্যাৎ করে হিতেশার সাফ কথা, বেঙ্গালুরু তাঁর কাছে বাড়ির মতো। তিনি জানিয়েছেন, ”আমি বেঙ্গালুরুতেই আছি। এবং গত কয়েকটা দিন আমার কাছে বেশ কঠিন হয়ে উঠেছে। আমি আমার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন। কোনও তদন্তকারী সংস্থা নিশ্চয়ই পুরো বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করে আসল সত্যিটা তুলে আনবেন। আপাতত আমি সেদিকেই তাকিয়ে রয়েছি।”

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

সেই সঙ্গে হিতেশার দাবি, শহরের বহু মেয়ের মতোই তিনি একা থাকেন। এই অবস্থায় যেভাবে সেলেব্রিটিরা তাঁকে সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণ করছেন, তা দেখে উদ্বিগ্ন হয়েই এই বিবৃতি পেশ করছেন তিনি। সমস্ত নেটিজেনের কাছেই তাঁর আরজি, ”যতদিন না যথাযথ আইনি পথে বিষয়টির বিচার সম্পন্ন হচ্ছে ততদিন সমস্ত নেটিজেনদের কাছে আমার অনুরোধ, দয়া করে কোনও মতামত দেবেন না।”

[আরও পড়ুন: সুনন্দা মৃত্যু মামলা থেকে অব্যাহতি চাইলেন কংগ্রেস নেতা শশী থারুর]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next