Advertisement

করোনার কামড়ে দমবন্ধ দেশের, প্রাণবায়ু নিয়ে ফিরল ‘কলকাতা’

07:04 PM May 10, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশে আছড়ে পড়েছে করোনা (corona virus) সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ। বিশেষজ্ঞদের হুঁশিয়ারিতে সিলমোহর দিয়ে হু হু করে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।হাসপাতালগুলিতে অক্সিজেনের অভাবে রোগী মৃত্যুর ঘটনা উঠে আসছে শিরোনামে। এহেন পরিস্থিতিতে কাতার ও কুয়েত থেকে অক্সিজেন ও চিকিৎসার অন্য সরঞ্জাম নিয়ে দেশে ফিরল ভারতীয় নৌসেনার রণতরী ‘আইএনএস কলকাতা’।

Advertisement

[আরও পড়ুন: অসমে শেষ সোনওয়াল যুগ, মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা]

সোমবার নিউ ম্যাঙ্গালোর বন্দরে পৌঁছয় আইএনএস কলকাতা। করোনা মোকাবিলায় কুয়েত ও কাতার থকে ৫৪ মেট্রিক টন মেডিক্যাল অক্সিজেন, ৪০০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার ও ৪৭টি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর নিয়ে দেশে ফিরেছে জাহাজটি। এর ফলে করোনা মোকাবিলায় অনেকটাই মদত পাওয়া যাবে। প্রসঙ্গত, করোনা (Corona Virus) সংকটে বিশ্বের পাশে দাঁড়িয়েছিল ভারত। বিশ্বের তাবড় দেশগুলিকে টিকা থেকে শুরু করে ওষুধের জোগান দিয়েছে নয়াদিল্লি। তবে এখন পরিস্থিতি পালটেছে। এবার সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেসামাল দেশ। এই সংকট কালে ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে আন্তর্জাতিক মহল। রাশিয়া, আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স-সহ চিকিৎসা সামগ্রী পাঠাচ্ছে প্রায় গোটা বিশ্ব। সেই পথে হেঁটেই নয়াদিল্লির পাশে দাঁড়িয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলিও।

উল্লেখ্য, কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সঙ্গে লড়ছে ভারত। সংক্রমণ বাড়ার পাশাপাশি অক্সিজেনের সঙ্কট পরিস্থিতি আরও জটিল করে তুলেছে।এই পরিস্থিতিতে অক্সিজেন সরবরাহ ঠিকভাবে হচ্ছে কি না, সেটা খতিয়ে দেখতে কয়েকদিন আগে একটি টাস্ক ফোর্স গঠন করে সুপ্রিম কোর্ট। কমিটিতে রয়েছেন মোট ১২ জন বিশেষজ্ঞ। কোন রাজ্যের কত অক্সিজেন প্রয়োজন? সেখানে অক্সিজেন সরবরাহ ঠিকঠাক হচ্ছে কি না? এই সমস্ত কিছুই খতিয়ে দেখবে এই টাস্ক ফোর্স। এই সংক্রান্ত মামলার শুনানিতে শুক্রবারই টাস্ক ফোর্স গঠনের প্রসঙ্গটি তুলেছিল সুপ্রিম কোর্ট। জানিয়েছিল, রাজ্যগুলিকে ঠিকমতো অক্সিজেন সরবরাহ করতে পারছে না কেন্দ্র। অনেক ক্ষেত্রেই দিল্লি-সহ একাধিক রাজ্য কম অক্সিজেন পাওয়ার অভিযোগও তুলেছিল। পশ্চিমবঙ্গের জন্যও বাড়তি অক্সিজেন চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই পরিস্থিতিতে এবার সরাসরি হস্তক্ষেপ করল সুপ্রিম কোর্টই। অক্সিজেন তৈরি থেকে রাজ্যগুলিকে বিতরণ-সমস্তটার উপরেই নজরদারি চালাবে এই টাস্ক ফোর্স।

[আরও পড়ুন: অসমে শেষ সোনওয়াল যুগ, মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা]

Advertisement
Next