UPSC-তে মেয়েদের জয়জয়কার, শীর্ষে JNU’র প্রাক্তনী, বাড়িতে পড়েই সফল বঙ্গ তনয়াও

08:37 PM May 30, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়কে (JNU University) আন্দোলনের আঁতুড় ঘর বলে থাকেন নিন্দুকেরা। উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা তো আবার এই বিশ্ববিদ্যালয়কে দেশবিরোধীদের আখড়া হিসেবেও পরিচয় দিয়ে থাকেন। কিন্তু সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের সাফল্য বারবার নজর কেড়েছে দেশবাসীর। এবারও ইউপিএসসি সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় প্রথম স্থান অধিকারী শ্রুতি শর্মা জেএনইউরই প্রাক্তনী। অন্যদিকে বাড়িতে বসে একার চেষ্টায় সিভিল সার্ভিস পাস করলেন বাংলার বেতাইয়ের মেয়ে দিয়া গোলদার। করোনা কালে বাড়িতে বসে ইউপিএসসির প্রস্তুতি সেরেছিলেন তিনি। হাতেনাতে মিলল সাফল্যও। 

Advertisement

সোমবারই প্রকাশিত হয়েছে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার (UPSC Civil Service) চূড়ান্ত ফল। সর্বভারতীয়স্তরের প্রতিযোগিতামূলক এই পরীক্ষায় পাশ করেছেন ৬৮৫ জন। তাঁদের মধ্যে প্রথম চারজনই মহিলা। সাফল্যের নিরিখে এবার পুরুষদের টেক্কা দিয়েছেন মেয়েরা। মেধা তালিকার প্রথমে রয়েছেন শ্রুতি শর্মা (Shruti Sharma)। দ্বিতীয়, তৃতীয় এবং চতুর্থ স্থান অধিকারীরা হলেন অঙ্কিতা আগরওয়াল, চণ্ডিগড়ের যামিনী শিংলা এবং ঐশ্বর্য বর্মা। পুরুষদের মধ্যে প্রথম হয়েছেন উৎকর্ষ দ্বিবেদী।

[আরও পড়ুন: ‘আন্ডার প্রসেস ব্যাপারটা কী?’, প্রশাসনিক কাজে ঢিলেমির তালিকা দেখে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী]

দিল্লির বাসিন্দা শ্রুতি স্কুলের গণ্ডি টপকে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ সেন্ট স্টিফেন্স কলেজে ভরতি হয়েছিলেন। তার পর যোগ দেন জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে। পাশাপাশি সিভিল সার্ভিসের প্রস্তুতির জন্য জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া রেসিডেন্সিয়াল কোচিং সেন্টারে ভরতি হয়েছিলেন তিনি। তার পরই মিলল সাফল্য। তাৎপর্যপূর্ণভাবে এবার জামিয়া মিলিয়ার এই কোচিং সেন্টার থেকে ২৩ জন পরীক্ষার্থী দেশের মধ্যে সবচেয়ে কঠিন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন।

Advertising
Advertising

 

ইউনাইটেড পাবলিক সার্ভিস কমিশনে ৬১২ ব়্যাঙ্ক করেছে তেহট্টে থানার বেতাইয়ের মেয়ে দিয়া গোলদার। বাবা অজিত গোলদার ডব্লিউবিসিএস অফিসার। তাঁর কথায়, “খড়গপুর আইআইটিতে পড়াশোনা চলাকালীন লকডাউন শুরু হয়ে যায়। মেয়ে বাড়িতে বসে না থেকে ইউপিএসসির প্রস্তুতি নেওয়ার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিল। কোনও কোচিং ছাড়া মেয়ে যে এত ভাল ফল করবে কখনও ভাবতে পারিনি।” দিয়া জানাচ্ছেন, “নিজের মতো করে নোটস তৈরি করে কখনও কখনও টপারদের সঙ্গে ফোনে কথা বলে বা অনলাইনে বিভিন্ন সাইট ঘেঁটে আমি কোচিং ছাড়াই প্রস্তুতি নিয়ে ফেলি।”

ইউপিএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। টুইটারে তিনি লেখেন, “সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের শুভেচ্ছা। আমরা যখন দেশজুড়ে আজাদি কা অমৃত মহোৎসব পালন করছি, সেই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে এই নবপ্রজন্ম আমলা হিসেবে দেশের সেবায় নিজেদের নিয়োগ করছেন। ভবিষ্যতের জন্য তাঁদের অনেক শুভেচ্ছা।” শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। 

 

[আরও পড়ুন: সম্পর্ক ভাঙতে রাজি হননি যুবক, ক্ষোভে স্বামীর সঙ্গে ছক কষে প্রেমিককে খুন বধূর! চাঞ্চল্য হাড়োয়ায়]

Advertisement
Next