Advertisement

ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা, নাম ঘোষণার পরই প্রকাশ্যে গোষ্ঠীকোন্দল

09:57 PM May 14, 2022 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিঃশব্দ বিপ্লব ঘটে গেল ত্রিপুরায় (Tripura)! বিপ্লব দেবের (Biplab Dev) ইস্তফার পর সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হলেন ডা. মানিক সাহা। শনিবার বিকেলের পরিষদীয় বৈঠকে সমস্ত জল্পনা উড়িয়ে ত্রিপুরার রাজ্যসভার সাংসদের নামেই সিলমোহর দিল বিজেপি নেতৃত্ব।

Advertisement

তবে নতুন মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণার পরই ফের প্রকাশ্যে গেরুয়া শিবিরের গোষ্ঠীকোন্দল। ভাঙা হল চেয়ার টেবিল। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সামনেই নতুন মুখ্যমন্ত্রীকে ধাক্কা দিলেন রাজ্যেরই কারামন্ত্রী রামপ্রসাদ পাল। তবে সেই সব ক্ষোভ-বিক্ষোভকে উড়িয়ে নতুন পদে শপথ দিতে রাজভবনের উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন ‘বিপ্লব ঘনিষ্ঠ’ মানিক সাহা। ইতিমধ্যে তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। 

[আরও পড়ুন: ‘রাজ্য ও কেন্দ্রের সরকারের বিরুদ্ধে বামপন্থী আন্দোলনই বিকল্প’, DYFI সম্মেলনে বার্তা পাঠালেন বুদ্ধদেব]

২০২৩ সালে উত্তর-পূর্ব ভারতের ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচন। তার ঠিক ১০ মাস আগেই নিঃশব্দে পদ ছাড়লেন বহু বিতর্কের ‘নায়ক’ বিপ্লব দেব। জানিয়েছেন, দলের স্বার্থে সংগঠনের কাজ করবেন তিনি। বদলে বর্তমানে ত্রিপুরা বিজেপির সভাপতি ডা. মানিক সাহা হলেন মুখ্যমন্ত্রী। কংগ্রেস ছেড়ে ২০১৬ সাল নাগাদ বিজেপিতে যোগ দেন সরকারি চিকিৎসক মানিক। তার পর বিপ্লব দেবের হাত ধরেই উল্কার গতিতে উত্থান হয় তাঁর। ২০১৮ সালের ভোটে তাঁকে টিকিট দেয়নি দল। তবে নির্বাচনের পর ত্রিপুরা বিজেপির কাণ্ডারী হন মানিক। রাজ্য সভাপতির পর ত্রিপুরা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট হন তিনি। এবার নির্বাচনের ১০ মাস আগে ত্রিপুরার দায়িত্ব হাতে নিলেন মানিক।

Advertising
Advertising

 

কিন্তু প্রাক্তন কংগ্রেসির এই উত্থানকে মেনে নিতে পারছেন না বিজেপির একাংশ। পরিষদীয় দলের বৈঠকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সামনেই এই ক্ষোভ উগরে দেয় গেরুয়া শিবিরের একাংশ। রাজ্যের মন্ত্রী রামপ্রসাদ পাল নতুন মুখ্যমন্ত্রীকে ধাক্কাও দেন বলে অভিযোগ। বিক্ষুব্ধদের দাবি, বিধায়কদের মতামতকে গুরুত্ব না দিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব নয়া মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করেছে। 

[আরও পড়ুন: চাহিদা কমলেও কমছে না দাম, শহরের বহু দোকানে আলু ছাড়াই বিকোচ্ছে বিরিয়ানি]

Advertisement
Next