এবার জঙ্গিদের হুমকির মুখে গুলাম নবি আজাদ, কেন নিশানায় বর্ষীয়ান নেতা

08:37 PM Sep 15, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ কয়েক দশকের সম্পর্ক ছিন্ন করে কংগ্রেস থেকে বেরিয়ে এসেছেন বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদ (Ghulam Nabi Azad)। তারপর থেকেই শোনা গিয়েছে শিগগিরি নিজস্ব রাজনৈতিক দল আনবেন তিনি। জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) মাটিতে শুরু করবেন রাজনীতির নয়া ইনিংস। এর মধ্যেই লস্করের (Laskar) ছত্রছায়ায় থাকা এক জঙ্গি গোষ্ঠীর হুমকির মুখে পড়তে হল তাঁকে। যাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে উপত্যকায়।

Advertisement

লস্করের শাখা সংগঠন ‘দ্য রেজিস্ট্যান্ট ফ্রন্ট’ তথা টিআরএফ সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টার শেয়ার করেছে। ওই জঙ্গি গোষ্ঠীর দাবি, গুলাম নবি আজাদের কাশ্মীরের রাজনীতিতে প্রবেশ কোনও আকস্মিক ঘটনা নয়। এটা একটা সুচিন্তিত পদক্ষেপ। কংগ্রেসে থাকাকালীনই এই বিষয়ে মনস্থ করে ফেলেন তিনি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গে তাঁর গোপন বৈঠকও হয়েছিল বলে দাবি করা হয়েছে। রীতিমতো আক্রমণ করে ওই জঙ্গি গোষ্ঠী পোস্টারে লিখেছে, ‘বিশ্বাসঘাতকের হৃদয় কখনও বিশ্বস্ততা দেখাতে পারে না। কেবল বিশ্বাসযোগ্য সাজার ভান করতে পারে মাত্র।’

[আরও পড়ুন: বিবাদে ইতি! ২০২৪ লোকসভার আগে ফের একসঙ্গে নীতীশ-পিকে, দীর্ঘ বৈঠক ঘিরে জল্পনা]

কংগ্রেস ছাড়ার পরে এক ঐতিহাসিক জনসভা করেছিলেন আজাদ। সেখানে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছিল, কাশ্মীরের জন্য তাঁর হৃদয় আন্দোলিত হয়। পাশাপাশি কংগ্রেসকেও তীব্র কটাক্ষ করতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। যদিও তিনি নতুন রাজনৈতিক দলের কথা ঘোষণা করবেন বলেছেন, তবুও কংগ্রেসের দাবি, রিমোট কন্ট্রোলে বর্ষীয়ান আজাদ ও তাঁর দলকে নিয়ন্ত্রণ করবে বিজেপিই। এই পরিস্থিতিতে এবার জঙ্গিদের নিশানায় পড়তে হল আজাদকে।

Advertising
Advertising

উল্লেখ্য, শুধু সব পদ ছাড়াই নয়, কংগ্রেসের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার আগে রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে রীতিমতো বিস্ফোরক অভিযোগ এনেছিলেন আজাদ। দাবি করেছিলেন, রাহুল সহ-সভাপতি হওয়ার পর দলের গঠনতন্ত্র ভেঙে গিয়েছে। যে সিনিয়র নেতাদের পরামর্শ ইউপিএ (UPA) সরকার সফল হয়েছিল, সেই সিনিয়রদেরই উপেক্ষা করেছেন রাহুল। তখন থেকেই জল্পনা ছিল তাঁর বিজেপিতে যোগদান নিয়ে। যদিও পরে আজাদ জানান, তিনি নতুন দলের ঘোষণা করবেন।

[আরও পড়ুন: কানাডার মন্দিরের দেওয়ালে ফুটে উঠল খলিস্তানি স্লোগান, শোনা গেল ভারত-বিরোধী ধ্বনিও]

Advertisement
Next