Advertisement

চিকিৎসক, করোনা রোগীদের মনোবল বাড়াতে PPE কিট পরে হাসপাতালে তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী

08:21 PM May 30, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার (Corona Pandemic) দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিধ্বস্ত গোটা দেশ। সংক্রমণের গতি হ্রাস পেলেও এখনও উদ্বেগজনক পরিস্থিতি বেশ কয়েকটি রাজ্যে। এই অবস্থায় করোনা আক্রান্তদের বাঁচাতে তীব্র লড়াই করছেন চিকিৎসক থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যকর্মীরা। এই পরিস্থিতিতে রোগী, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের মনোবল বাড়াতে পিপিই কিট পরে হাসপাতালের কোভিড ওয়ার্ডে হাজির হলেন তামিলনাড়ুর (Tamil Nadu) সদ্য নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিন (MK Stalin)।

Advertisement

জানা গিয়েছে, এদিন কোয়েম্বাটুর গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ এবং ইএসআই হাসপাতালে যান স্ট্যালিন। সরকারের বারণ সত্ত্বেও কোভিড ওয়ার্ডে পিপিই কিট পরে প্রবেশ করেন। সেসময় পাশাপাশি বেডে শুয়ে আছেন করোনা আক্রান্ত রোগীরা। চিকিৎসায় ব্যস্ত ডাক্তার থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যকর্মীরা। আচমকাই সেখানে পিপিই কিট পরে মুখ্যমন্ত্রীকে দেখে হকচকিয়েও যান অনেকে। পরে অবশ্য স্ট্যালিনের পরিদর্শন বেশ সুষ্ঠুভাবেই মেটে। এই সময় মুখ্যমন্ত্রী কথা বলেন করোনা আক্রান্ত রোগী থেকে শুরু করে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গেও। তাঁদের মনোবল বাড়ান। এরপর আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসপাতাল পরিদর্শনের ছবিও পোস্ট করেন স্ট্যালিন। যা দেখে অনেকেই তাঁর এই কাজকে কুর্নিশও জানান।

[আরও পড়ুন: নদীতে ছুঁড়ে ফেলা হচ্ছে করোনায় মৃতের দেহ! ভিডিও ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে যোগীরাজ্যে]

টুইটারে মুখ্যমন্ত্রী স্ট্যালিন লেখেন, “কোভিড হাসপাতাল পরিদর্শনে যেতে আমায় বারণ করা হয়েছিল। তা সত্ত্বেও হাসপাতালে কোভিড ওয়ার্ড ঘুরে ঘুরে দেখলাম। যাঁরা নিজেদের জীবন বাজি রেখে এই যুদ্ধে ঝাঁপিয়েছে, তাঁদের মনে আশা-ভরসা জোগাতেই ওখানে গিয়েছিলাম। সব সময়ে শুধু ওষুধেই কা়জ হয় না, মনোবল বাড়ানোও জরুরি। রাজ্য সরকার যে তাঁদের পাশে আছে, সেটাই জানাতে গিয়েছিলাম।” প্রসঙ্গত, তামিলনাড়ুতে করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত জেলা কোয়েম্বাটুরই। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে নতুন করে ৩,৬০০ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

[আরও পড়ুন: অনাথদের সাহায্য করতে হলে এখনই করুন! মোদি সরকারের ‘মাস্টারস্ট্রোক’ নিয়ে খোঁচা পিকের]

Advertisement
Next