কালবৈশাখীতে মর্মান্তিক মৃত্যু, রবীন্দ্র সরোবরে রোয়িং বোট উলটে প্রাণহানি ২ স্কুল ছাত্রের

09:16 PM May 21, 2022 |
Advertisement

কৃষ্ণকুমার দাস: রবীন্দ্র সরোবরে রোয়িং অনুশীলন করতে গিয়ে কালবৈশাখী ঝড়ে বোট উলটে জলে ডুবে মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হল সাউথ পয়েন্ট স্কুলের ২ ছাত্রের। মৃতের একজন কলকাতার এক পুলিশ পদাধিকারীর ছেলে। জল থেকে দেহ তুলে এসএসকেএমে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। এদিকে ঘটনার খবর পেয়েই পৌঁছণ রাজ্যের মন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম এবং কেএমডিএ-র সিইও অন্তরা ভট্টাচার্য। 

Advertisement

স্কুল পর্যায়ের রোয়িং প্রতিযোগিতার ফাইনাল কাল, রবিবার রবীন্দ্র সরোবরেই হওয়ার কথা। বস্তুত সেই কারণে বেঙ্গল রোয়িং ক্লাব, লেক ক্লাব, ক্যালকাটা রোয়িং ক্লাবের ৫টি বোট শনিবার বিকেল থেকে সরোবরে নামানো হয়েছিল। প্রতিটি বোটে ৫ জন করে স্কুল ছাত্র অনুশীলন করছিল। বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ আচমকাই কালবৈশাখীর ঝড় প্রায় ৯০ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়ে। আর সেই ঝড় সামলাতে না পেরে ৫টি বোটই উলটে যায়। কিন্তু সকলেই সাঁতরে উপরে উঠে এলেও দীর্ঘক্ষণ জলে নিখোঁজ ছিল ওই দুই ছাত্র- পূষণ সাধুখাঁ এবং সৌরদীপ চট্টোপাধ্যায়। দুজনেরই বয়স ১৪ বছর। 

[আরও পড়ুন: শহরে ৯০ কিলোমিটার বেগে কালবৈশাখী! মেট্রো লাইনে গাছ ভেঙে ব্যাহত পরিষেবা, বন্ধ উড়ান]

খবর পেয়ে রবীন্দ্র সরোবর থানার পুলিশ, দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনী এবং ডুবুরি নামানো হয়। সন্ধে সাড়ে সাতটার কিছু পরে দুই কিশোরের নিথর দেহ জল থেকে উদ্ধার করেন দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনীর কর্মীরা। সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। 

Advertising
Advertising

বিকেলেই কালবৈশাখীর তাণ্ডব শহর কলকাতায়। প্রবল বেগে ঝোড়ো হাওয়া ও বৃষ্টিতে (Rain) ব্যাহত হয় যোগাযোগ ব্যবস্থা। জানা গিয়েছে, বিকেল থেকে বন্ধ হয়ে যায় টালিগঞ্জ ও কবি সুভাষ মেট্রো চলাচল। মেট্রো (Metro) চলছে দক্ষিণেশ্বর থেকে টালিগঞ্জ পর্যন্ত। বিকেল সাড়ে ৫টার পর থেকে অবশ্য স্বাভাবিক হয়েছে বলে মেট্রোরেল সূত্রে খবর। অন্যদিকে, বর্ধমানের হরেরডাঙা এলাকায় ঝড়ের দাপটে গাছ ভেঙে পড়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে, জখম হয়েছেন ২ জন। ভাতারে বজ্রপাতে একজনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। এছাড়া শ্রীরামপুরেও একজনের প্রাণহানি হয়েছে। এর মাঝে কলকাতাতেও দুই কিশোরের মর্মান্তিক মৃত্যুর খবর মিলল। 

[আরও পড়ুন: আগামী মাসেই মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক ফলপ্রকাশ, শিগগিরই দিনক্ষণ চূড়ান্ত করবে সংসদ]

Advertisement
Next