মেঝেয় রক্ত, খাটের নিচে লেপে মোড়ানো দেহ! যাদবপুরে বৃদ্ধের রহস্যমৃত্যুতে চাঞ্চল্য

03:53 PM May 17, 2022 |
Advertisement

অর্ণব আইচ: যাদবপুরের (Jadavpur) বিজয়গড়ে বৃদ্ধের রহস্যমৃত্যু। খাটের নিচ থেকে লেপ ও প্লাস্টিক জড়ানো অবস্থায় উদ্ধার পচাগলা দেহ। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান খুন করা হয়েছে ওই বৃদ্ধকে। তবে কারণ নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াশা। ইতিমধ্যেই দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

Advertisement

জানা গিয়েছে, বৃদ্ধের নাম নিধিরচন্দ্র কুণ্ডু। যাদবপুরের বিজয়গড়ে একটি ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন তিনি। প্রতিবেশী সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ওই এলাকায় থাকতেন ওই বৃদ্ধ। সকলের সঙ্গে মিলে মিশেই থাকতেন। তবে গত দু’দিন ধরে নিধিরবাবুর কোনও সাড়াশব্দ পাননি প্রতিবেশীরা। ফলে তাঁদের সন্দেহ হয়। মঙ্গলবার এক প্রতিবেশী নিধিরবাবুর ফ্ল্যাটে যান। ডাকাডাকি করেও সাড়া পাননি, তবে একটা দুর্গন্ধ তাঁর নাকে যায়।

[আরও পড়ুন: ওয়ারেন্ট ছাড়া বিরোধী দলনেতার অফিসে তল্লাশি, হাই কোর্টে মামলা দায়ের শুভেন্দুর]

এরপরই ফ্ল্যাটের অন্যান্যদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন তিনি। এদিকে ফোনে যোগাযোগ করতে বা পেরে এদিন বৃদ্ধের আত্মীয়রা তাঁর ফ্ল্যাটে আসেন। ডাকাডাকি করে লাভ না হওয়ায় তাঁদের কাছে থাকা ফ্ল্যাটের চাবি দিয়ে দরজা খোলেন তাঁরা। ঘরে ঢুকতেই দুর্গন্ধ পান, দেখতে পান ঘরের মেঝেয় চাপ চাপ রক্ত।  তবে বিভিন্ন জায়গা খুঁজলেও প্রথমে নিধিরবাবুকে খুঁজে পাননি। পরে খাটের নিচে লেপ ও প্লাস্টিক জড়ানো অবস্থায় উদ্ধার হয় নিধিরবাবুর পচাগলা দেহ। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় যাদবপুর থানায়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ইতিমধ্যেই দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

Advertising
Advertising

এই ঘটনায় প্রশ্ন উঠছে কীভাবে মৃত্যু হল বৃদ্ধের? প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে খুন করা হয়েছে ওই বৃদ্ধকে। কিন্তু ফ্ল্যাটের দরজা বন্ধ ছিল, ফলে কীভাবে পালাল আততায়ীরা? যদি খুন করা হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা।

[আরও পড়ুন: বিপজ্জনক ঘোষণা করেছে পুরসভা, বউবাজারে এবার ভাঙা হবে অমর্ত্য সেনের বাড়িও]

Advertisement
Next