‘একটা স্ট্যাচু করেই নেতাজিকে ভালবাসা যায় না’, মোদির ‘দেখনদারি’নিয়ে তোপ মমতার

01:58 PM Jan 23, 2022 |
Advertisement

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: “একটা স্ট্যাচু করে দিলেই নেতাজিকে (Netaji Subhas Chandra Bose) ভালবাসা যায় না। একটা স্ট্যাচু করলেই দায়িত্ব শেষ হয় না। অনেক তো স্ট্যাচু করেছেন কোটি কোটি টাকা খরচ করে। দেশের ইতিহাসটাকে পড়েছেন?” নেতাজির জন্মজয়ন্তীতে দেখনদারি নিয়ে কেন্দ্রকে বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। বুঝিয়ে দিলেন, দেশপ্রেম বা নেতাজি প্রেম দেখনদারি নয়। এটা আত্মস্থ করার জিনিস। অন্তর দিয়ে উপলব্ধি করতে হয়।

Advertisement

শনিবার ময়দানে নেতাজির মূর্তিতে মাল্যদান করার পর অমর জওয়ান জ্যোতি থেকে শুরু করে নেতাজির ট্যাবলো বাতিল, একের পর এক ইস্যুতে কেন্দ্রকে বিঁধলেন মমতা। মনে করালেন ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে, ভারতের সম্প্রীতি রক্ষায় বাংলার অবদানের কথা। কেন্দ্রকে স্পষ্ট হুঁশিয়ারি দিয়ে দিলেন, “আজ বাংলাকে এত অবজ্ঞা। সবটাই তো বাংলাকে ঘিরে। বাংলার ইতিহাস মুছে দেওয়ার ক্ষমতা কারও নেই। ভারতের ইতিহাস মুছে দেওয়ার ক্ষমতা কারও নেই।”

[আরও পড়ুন: নেতাজির জন্মমুহূর্তে শাঁখ বাজিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন মুখ্যমন্ত্রীর, বেজে উঠল সাইরেনও]

মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, নেতাজি রহস্য তারা উদঘাটন করবে। নেতাজি সংক্রান্ত সব ফাইল প্রকাশ করা হবে। কিন্তু বাস্তবে দেখা যাচ্ছে এর কোনওটিই করতে পারেননি নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। সেকথা মনে করিয়ে মমতার খোঁচা, “আজও নেতাজির রহস্য উদ্ঘাটন করতে পারলেন না। স্ট্যাচুতে লিখেছেন জন্মদিন, মৃত্যুদিন লিখতে পারবেন তো? আমরা কেউ পারব না। স্বাধীনতার পর ৭৫ বছর কেটে গেল, অথচ আজ অবধি একটা রহস্য উদ্ঘাটন করা গেল না? মূর্তি দিয়ে সবকিছু হয় না। অন্তর দিয়ে উপলব্ধি করতে হয়। নেতাজিকে আত্মস্থ করতে হয়।” মুখ্যমন্ত্রী জানান, নেতাজি নিয়ে রাজ্যের যা যা করণীয় ছিল সেটা রাজ্য সরকার করেছে। কিন্তু কেন্দ্র নিজেদের প্রতিশ্রুতিপালনে ব্যর্থ। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “নেতাজি রহস্য উদ্ঘাটিত করেনি সরকার। আমাদের কাছে যা যা কাগজপত্র ছিল সব আমরা প্রকাশ করেছি। সমস্ত কাগজপত্র ডিজিটালাইজ করা হয়েছে।”

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ‘নেতাজির জন্মদিনে জাতীয় ছুটি ঘোষণা করতে হবে’, ফের কেন্দ্রের কাছে জোরাল দাবি মমতার]

মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, নেতাজির মতবাদকে গ্রহণ করেনি কেন্দ্র। ইতিহাস ভুলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে কেন্দ্রের প্ল্যানিং কমিশন (Planning Commission) তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে যেমন তিনি বিঁধেছেন, তেমনি মুখ্যমন্ত্রীর মুখে উঠে এসেছে ট্যাবলো বিতর্কও। মমতা বললেন,” নেতাজির ট্যাবলো আপনারা কেন বাতিল করেছেন আমরা জানি না। আমাদের দেখানো হয়নি, জানানো হয়নি। কিন্তু মনে রাখবেন ২৬ জানুয়ারি রেড রোডে নেতাজির ট্যাবলো দেখানো হবে। আপনারা প্রত্যাখ্যান করলেও আমরা কিন্তু সাদরে বরণ করে নেব।” মুখ্যমন্ত্রীর সাফ কথা, “আজকে তো স্ট্যাচু করছেন আমাদের চাপে। এতদিন তো মনে হয়নি। একটা স্ট্যাচু করলেই দায়িত্ব শেষ হয় না। অনেক তো স্ট্যাচু করেছেন কোটি কোটি টাকা খরচ করে। দেশের ইতিহাসটাকে পড়েছেন? নেতাজিকে পড়ুন। দেশকে ভালবাসুন। দেশকে ভালবাসলে কখনও গৃহবিবাদ হয় না। দেশকে ভালবাসলে কখনও হিন্দু-মুসলমান করতেন না।”

Advertisement
Next