বেআইনি সুপারিশ পাওয়া ১৮৩’র মধ্যে কাজে যোগই দেননি ১০০ শিক্ষক! প্রকাশ্যে নয়া তথ্য

08:28 PM Dec 07, 2022 |
Advertisement

দীপালি সেন: কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta High Court) নির্দেশে স্কুলে নবম-দশম স্তরে সহকারী শিক্ষক পদে চাকরির সুপারিশ পাওয়া ১৮৩ জন অযোগ্য প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করেছিল স্কুল সার্ভিস কমিশন (SSC)। সূত্রের খবর, তাঁদের মধ্যে প্রায় ১০০ জন চাকরিতে যোগই দেননি। স্কুল সার্ভিস কমিশনকে পাঠানো জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকদের রিপোর্ট এমনটাই বলছে। চাকরিতে যোগ না দেওয়া সত্ত্বেও অযোগ্যদের তালিকায় নাম থাকার প্রার্থীদের অনেকেই প্রতিবাদ জানিয়ে এসএসসি-র কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

হাই কোর্টের নির্দেশে এসএসসি পরিচালিত একাধিক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত করছে সিবিআই। সেই তদন্তেই উঠে আসে নবম-দশম স্তরে অযোগ্য হওয়া সত্ত্বেও চাকরির সুপারিশ পাওয়া ১৮৩ জনের নাম। প্রত্যেকেরই নাম ও অন্যান্য তথ্য সম্বলিত তালিকা হাই কোর্টের নির্দেশে কয়েকদিন আগেই ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছিল স্কুল সার্ভিস কমিশন। চাকরির সুপারিশ পাওয়া এই ১৮৩ জন অযোগ্য প্রার্থী স্কুলে শিক্ষকতা করছেন কিনা, তা জানতে চাওয়া হয়েছিল জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকদের কাছে।

[আরও পড়ুন: দ্রুত মিলবে ১০০ দিনের কাজের টাকা, মমতার দিল্লি সফরের মধ্যেই রাজ্যকে আশ্বাস কেন্দ্রের]

এসএসসি সূত্রে খবর, সম্প্রতি সেই রিপোর্ট পাঠিয়েছেন জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকরা। রিপোর্ট অনুযায়ী যে ১৮৩ জন অযোগ্য প্রার্থীকে সুপারিশ দেওয়া হয়েছিল, তাঁদের মধ্যে প্রায় ১০০ জন তো চাকরিতে যোগই দেননি। উপরন্তু, এই মামলা চলাকালীন প্রায় পাঁচ-ছয়জন প্রার্থী এসএসসি-র কাছে পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দিয়েছিলেন। আবার হাই কোর্টের নির্দেশে আগেই বেশ কয়েকজনের চাকরি চলে গিয়েছে। সবমিলিয়ে এই তালিকায় নাম থাকাদের মধ্যে স্কুলে শিক্ষকতা করছেন, এমন প্রার্থীদের সংখ্যা অনেকটাই কম। শীঘ্রই সেই রিপোর্ট হাই কোর্টে জমা করবে স্কুল সার্ভিস কমিশন। আদালতের নির্দেশেই নেওয়া হবে পরবর্তী পদক্ষেপ।

Advertising
Advertising

অন্যদিকে, সুপারিশপত্র পেয়েও চাকরিতে যোগ দেননি। তা সত্ত্বেও কেন ওয়েবসাইটে তাঁদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে? এই প্রশ্ন তুলে স্কুল সার্ভিস কমিশনকে প্রতিবাদপত্র পাঠানো শুরু করেছেন চাকরিতে যোগ না দেওয়া প্রার্থীদের অনেকেই। এসএসসি সূত্রে খবর, প্রতিবাদ জানিয়ে এরকম প্রায় ৩০টি চিঠি এসেছে।

[আরও পড়ুন: গ্রামীণ পরিকাঠামোয় ৭১৫ কোটি, পঞ্চায়েত ভোটের বিজ্ঞপ্তির আগেই বিপুল অর্থ বরাদ্দ নবান্নর]

Advertisement
Next