Advertisement

ভোট শেষে আশার বাণী, দক্ষিণবঙ্গের কালবৈশাখীতে স্বস্তি পেতে পারেন শহরবাসী

12:31 PM Apr 30, 2021 |
Advertisement
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলায় ভোট উৎসব (West Bengal Election) শেষে স্বস্তির বাণী শুনিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর (IMD Kolkata)। প্রায় একমাস ধরে রাজ্যে ভোট চলেছে। ভোটের উত্তাপের সঙ্গে তাপমাত্রা পারদও উর্ধ্বমুখী ছিল। বৃহস্পতিবার অষ্টম দফার ভোট হয়ে বাংলায় নির্বাচন শেষ হয়েছে। ভোটের উত্তাপ কমতেই স্বস্তি মিলেছে রাজ্যবাসীর। বাংলায় পরিবর্তন আসবে নাকি প্রত্যাবর্তন হবে তা ২ মে জানা যাবে। তবে ভোট মিটতেই আবহাওয়ার পরিবর্তন এসেছে। আজ অর্থাৎ শুক্রবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলোতে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড় ও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

এদিন আবহাওয়া অফিস সূত্রে খবর, শুক্রবার থেকে দক্ষিণবঙ্গে জেলাগুলোতে কালবৈশাখীর সম্ভাবনা রয়েছে। শনিবার ও রবিবার ঝড়-বৃষ্টি (Rain) বাড়তে পারে। জেলার ঝড়-বৃষ্টির প্রভাব কলকাতায় পড়বে। দিনে তাপমাত্রার পরিবর্তন না হলেও বিকেলের পর শহরে আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে। ভারী ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা না থাকলেও বিকেলের পর শহরে হালকা ঝোড়ো হাওয়া বইবে বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে। ফলে বিকেলের পর অস্বস্তিকর পরিবেশ থেকে শহরবাসী সাময়িক স্বস্তি পাবেন।

[আরও পড়ুন: ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত বীরভূমে, বোমা বাঁধতে হাত উড়ল এক ব্যক্তির]

ভোটের দিনও শহরে তাপমাত্রা উর্ধ্বমুখী ছিল। আপেক্ষিক আদ্রর্তার জন্য ছিল অস্বস্তিকর পরিবেশ। প্রখর রোদে ভোটার লাইনে দাঁড়িয়ে গলদঘর্ম অবস্থা হয় ভোটারদের। দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলায় রীতিমতো তাপপ্রবাহ চলে। তবে সন্ধ্যের দিকে দক্ষিণবঙ্গের দু একটি জেলাতে হালকা ঝোড়ো হাওয়া শুরু হয়। সঙ্গে ছিঁটেফোঁটা বৃষ্টি হয়েছে। কলকাতায়ও এর আংশিক প্রভাব পড়েছে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যের পর থেকে শহরে হালকা বাতাস বইতে থাকে। যদিও শহরে এই মুহূর্তে বড় কালবৈশাখীর সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। এদিন আলিপুর আবহাওয়া অফিসের ডিরেক্টর গণেশ কুমার দাস জানান, কলকাতার তাপমাত্রার আপতত পরিবর্তন হচ্ছে না। দিনের বেলায় শহরে অস্বস্তিকর পরিবেশ থাকবে। শুক্রবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলোতে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড়-বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। জেলায় ঝড়বৃষ্টির ফলে শহরে বিকেলের পর থেকে ঠান্ডা অনুভূতি মিলবে। ২ রা মে এর পর কলকাতায় কালবৈশাখীর দেখা মিলতে পারে। তারপর কয়েকদিন তাপমাত্রা নিম্নমুখী থাকবে বলে তিনি জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার শহরে তাপমাত্রা ছিল ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি বেশি। আজ অর্থাৎ শুক্রবার তেমন কোনও পরিবর্তন হবে না।

[আরও পড়ুন: ​করোনা আবহে তলানিতে যাত্রী সংখ্যা, ১৯টি ট্রেন বাতিল করল পূর্ব রেল]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next