ছোটবেলার বন্ধুত্ব অটুট মৃত্যুকালেও! বাগবাজারে একইসঙ্গে আত্মঘাতী ২ বন্ধু

04:37 PM Aug 04, 2022 |
Advertisement

অর্ণব আইচ: আর্থিক অনটনের জেরে মানসিক অবসাদ। তারই জেরে খাস কলকাতায় বিষ খেয়ে আত্মঘাতী দুই যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে বাগবাজারের (Bagbazar) নন্দলালবসু লেন এলাকায়। যদিও আর্থিক অনটনেই চরম পরিণতি নাকি নেপথ্যে অন্য রহস্য তা এখনও স্পষ্ট নয়।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

জানা গিয়েছে, মৃত দুই যুবকের নাম প্রদীপ সাহা ও শুভেন্দু ধর। দীর্ঘদিন ধরে বাগবাজারের একটি ছোট ঘরে থাকতেন প্রদীপ। সেখানেই তাঁর বেড়ে ওঠা। দাদা বর্তমানে বেলঘড়িয়ায় থাকেন। বাবা-মা ও নেই। ফলত প্রায় ১০ থেকে ১২ বছর ধরে বাগবাজারের বাড়িতে একাই থাকতেন প্রদীপ। সেই কারণে প্রায় বছর দশেক আগে বন্ধু শুভেন্দু ধরকে বাগবাজারের বাড়িতে থাকার কথা বলেছিলেন প্রদীপ। সেই থেকে দুই বন্ধু একসঙ্গে। তাঁর একই সঙ্গে শ্রমিকের কাজ করতেন। একইবাড়িতেই থাকতেন। অর্থাৎ গোটা দিনটাই একসঙ্গে কাটত তাঁদের।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ‘জেলা ভাগ লেডি বিন তুঘলকের খামখেয়ালি সিদ্ধান্ত’, মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ সুকান্তর, পালটা তৃণমূলের]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে প্রদীপ ও শুভেন্দুর আর্তনাদ শুনতে পান প্রতিবেশীরা। ছুটে গিয়ে দেখতে পান, দুজনই অসুস্থ। তড়িঘড়ি তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পাশাপাশি বেডে ভরতি করা হয় প্রদীপ-শুভেন্দুকে। সেখানেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন দুই বন্ধু। প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হয়েছে ওই দুই যুবক। কারণ হিসেবে উঠে এসেছে, আর্থিক সমস্যা।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, হাসপাতালে ভরতির পরই প্রদীপের দাদাকে খবর দেওয়া হয়। তিনি ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন। তবে শুভেন্দুর পরিবার সম্পর্কে এলাকার কারও কিছু জানা নেই বলেই খবর। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে দেহদুটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট এলে মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট হবে।

[আরও পড়ুন: শ্রাবণের অর্ধেক পার, ভ্যাপসা গরমে নাজেহাল, কবে ভারী বৃষ্টিতে ভিজবে দক্ষিণবঙ্গ?]

Advertisement
Next