গঙ্গার ঘাটে প্রতিমার কাঠামোর স্তূপের নিচে আটকে দেহ, বাজা কদমতলা ঘাটে চাঞ্চল্য

01:49 PM Oct 06, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গঙ্গার ঘাট থেকে প্রতিমার কাঠামো সরাতেই চক্ষু চড়কগাছ পুরকর্মীদের। কাঠামোর ভিড়ে আটকে বস্তাবন্দি দেহ। বুধবার মাঝরাতে বাজা কদমতলা ঘাটে দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মৃতের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। মনে করা হচ্ছে, জোয়ারের জলে দেহটি ভেসে এসেছিল।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পুরসভার কর্মীরা গঙ্গার পাড়ে জমে থাকা কাঠামো সরানো হচ্ছিল। কাঠামো সরানোর পর দেখা যায় বাজা কদমতলা ঘাটে আটকে রয়েছে একটি মধ্যবয়সি ব্যক্তির দেহ। পুরকর্মীরা দেহ তুলে বেলা ন’টা পর্যন্ত গঙ্গার পাশে দেহ ফেলে রাখা হয়েছিল। এদিন সকালে যারা প্রতিমা নিরঞ্জন করতে এসেছিলেন তারা সেই দৃশ্য দেখে অস্বস্তিতে পড়ে যান তাঁরা। পরে পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে ফের সামিল তৃতীয় পক্ষ, প্রথমবার কিয়েভে হামলা ইরানি ড্রোনের]

আবার হাওড়া থেকে বস্তাবন্দি মৃতদেহ উদ্ধার হয়। ডোমজুড় থানার অন্তর্গত সলপ পীরডাঙ্গা এলাকা থেকে দেহটি পাওয়া যায়। পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে গিয়েছে। জানা গিয়েছে, দুপুরের পর থেকে ওই রাস্তা দিয়ে স্থানীয় মানুষজন যাতায়াত করার সময় দুর্গন্ধ পাচ্ছিল। তাঁরাই লক্ষ্য করেন রাস্তার ধারে রক্তাক্ত অবস্থায় একটি বস্তা পড়ে রয়েছে। যা থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। সন্দেহ হওয়ায় তারাই খবর দেন স্থানীয় ডোমজুড় থানায়।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

পুলিশ এসে বস্তাটি খুললে দেখেন ভেতরে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় এক যুবকের ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ রয়েছে। ইতিমধ্যেই তা উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে । ওই যুবকের নাম পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে। তবে গোটা ঘটনা নিয়ে যথেষ্টই আতঙ্কিত স্থানীয় বাসিন্দারা । তারা জানান ১৬ নম্বর জাতীয় সড়ক লাগোয়া ওই রাস্তাটি অত্যন্ত নিঝুম ও আলোকবিহীন। ফলে মাঝে মধ্যে অসামাজিক কার্যকলাপ হয়।

[আরও পড়ুন: শিয়ালদহ ফ্লাইওভারে পরপর ছয় পথচারীকে ধাক্কা বেপরোয়া বাসের, প্রাণ গেল ৩ জনের]

Advertisement
Next