Advertisement

পরনে শাড়ি, কপালে টিপ, ইটালির রাস্তায় ভিন্ন পোশাকে ফ্যাশনের সংজ্ঞাই বদলে দিলেন বাঙালি যুবক!

06:28 PM Oct 29, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আজকের যুগ সমানাধিকারের, আজকের যুগ নিজের মতো করে, স্বাধীনভাবে বাঁচার। নারী-পুরুষ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সব দায়িত্ব ভাগ করে নেবেন, একে অপরের ভূমিকায় অবতীর্ণ হবে – এমনটাই প্রত্যাশিত। তাহলে পোশাকে কেনই বা ভেদাভেদ থাকবে? মোটেই থাকবে না। তাই নারীর শরীর যেমন ঢেকেছে ফরমাল শার্ট-ট্রাউজারে, তেমনই পুরুষের অঙ্গেও উঠেছে শাড়ি। অবাক হচ্ছেন? কিন্তু বাস্তব ছবি তেমনই। ইটালির (Italy) মিলান – ফ্যাশনের জন্য দুনিয়াখ্যাত শহরের রাস্তায় দিব্যি সুন্দর হেঁটে গেলেন বঙ্গতনয় পুষ্পক সেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবি ছড়িয়ে পড়তেই রীতিমতো ভাইরাল। ফ্যাশনের (Fashion) নতুন সংজ্ঞা নির্ধারণ করেছেন পুষ্পক, তুমুল আলোচনা নেটমহলে।

Advertisement

অন্যরূপে কলকাতার যুবক পুষ্পক সেন

পরনে কালো শাড়ি (Black Saree), সঙ্গে সাদা হাইনেক জামা, ক্রিমরঙা চেক উইন্টার জ্যাকেট। কলকাতার (Kolkata) যুবক পুষ্পকের সাজসজ্জায় আরও আছে। কপালে লাল টিপ, চোখে সানগ্লাস, এক হাতে হ্যান্ডব্যাগ, আরেক হাতে লম্বা কালো ছাতা। এই সবমিলিয়ে পুরোদস্তুর যেন একজন স্বাধীন নারী, যিনি দু’হাতে ঘরকন্না এবং বাইরের কর্মজগৎ সামলান অনায়াসে। কিন্তু এই অবতারে একজন পুরুষ হেঁটে চলেছেন! এতটা সপ্রতিভ! এই অপরিচিত দৃশ্যে চোখ যেন কিছুটা ধাক্কা খায় আমজনতার।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পডুন: Hair Care Tips For New Mom: মা হওয়ার পর চুল পড়ে যাচ্ছে? জেনে নিন যত্ন নেওয়ার উপায়]

পোশাকি নাম – androgynous fashion. আসলে ইচ্ছেমতো পোশাক পরার সাহস এবং ইচ্ছা। ‘আপ রুচি খানা/পররুচি পরনা’ – এই প্রবাদবাক্য আপাতত উচিত। এখন সবটাই নিজের রুচি, নিজের পছন্দ অনুযায়ী পরিধানের পথেই হাঁটছেন অধিকাংশ মানুষ। তাই পুষ্পক সেনের এই সাজ একঝলকে দেখে হতবাক হলেও বিস্ময় কাটিয়ে সকলেই শেষপর্যন্ত সৌন্দর্যের নিরিখেই তাঁকে দেখছেন। নারীর বেশে বেশ মানিয়েছে তাঁকে। তার চেয়েও বড় কথা তাঁর হাঁটাচলা, শরীরীভাষা দেখে মনে হচ্ছে, যেন কতদিন ধরে তিনি এই পোশাকেই স্বচ্ছন্দ। পুষ্পক সেন নিজের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন। তাতে লিখেছেন – ”পুরুষ হিসেবে আমার এই শাড়ি পরা অর্থহীন বলে মনে করছিলেন অনেকে। কিন্তু দেখুন তো ফ্যাশন ক্যাপিটলে এভাবে হেঁটে যেতে দেখে কেমন লাগছে!”

[আরও পডুন: ব্রা’র স্ট্র্যাপ বারবার উঁকি দেওয়ায় অস্বস্তি? সহজ কৌশলগুলি কাজে লাগিয়ে দেখুন তো]

কিন্তু কে এই সাহসী পুরুষ, যিনি অনায়াসে নারীর ভূষণ তুলে নিয়েছেন শালগাছের মতো কঠিন অঙ্গে? পুষ্পক সেন। কলকাতার এই যুবক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পর্ব চুকিয়ে পাড়ি জমান ইটালিতে। লক্ষ্য একটাই, ফ্যাশনের দেশে গিয়ে নিত্যনতুন সাজসজ্জার সঙ্গে পরিচিত হওয়া। নিজের মৌলিকত্বের সঙ্গে গোটা পৃথিবীর পরিচয় করানো। তাই ফ্লোরেন্সের (Florence) এক ফ্যাশন স্কুলে ফের পড়াশোনা শুরু করেছেন পুষ্পক। সেইসঙ্গে পোশাক-আশাক নিয়ে এই এক্সপেরিমেন্ট। আর তাতেই নিজের স্টাইল নিজেই গড়ছেন কলকাতার যুবক। বদলে দিচ্ছেন ফ্যাশনের চিরাচরিত সংজ্ঞা।

Advertisement
Next