‘তিনি বৃদ্ধ হলেন’, জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার ‘ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার’ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত মাইক্রোসফটের

06:08 PM May 20, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবশেষে শেষ হচ্ছে একসময়ের জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার ‘ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার’-এর (Internet Explorer) দিন। এবার এই ব্রাউজারটিকে পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধা‌ন্ত নিল মাইক্রোসফট (Microsoft )। তবে এবছর নয়। আগামী বছর চিরবিদায় নেবে ব্রাউজারটি। শেষ হবে ২৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলতে থাকা এক অধ্যায়ের।

Advertisement

২০২২ সালের ১৫ জুন পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে ব্রাউজারটি। জানিয়ে দিয়েছেন, মাইক্রোসফটের এক ‘এজ প্রোগ্রাম ম্যানেজার’। তবে আরও কিছুদিন উইন্ডোজ ১০-এ সেটি ব্যবহার করা যাবে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়। যদিও জুনের পর সম্ভবত এটি আর ব্যবহার করা যাবে না বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। তবে এবছর থেকেই ধীরে ধীরে অকেজো হতে শুরু করবে এক্সপ্লোরার। আগস্টের মাঝামাঝি থেকে মাইক্রোসফটের অনলাইন পরিষেবা যেমন অফিস ৩৬৫, ওয়ান ড্রাইভ, আউটলুক ইত্যাদিতে আর ‘সাপোর্ট’ মিলবে না এক্সপ্লোরারের।

[আরও পড়ুন: OMG! একটি দ্বীপ দেখভালের বেতন ৮৮ লক্ষ টাকা! করবেন নাকি এমন চাকরি?]

একসময়ে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ছিল ‘ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার’। ১৯৯৫ সালে জন্ম এই ব্রাউজারের। কার্যত সেই সময় ব্রাউজার বলতে সকলেই একেই বুঝত। ইন্টারনেট ব্যবহারকারী প্রথম প্রজন্মের স্মৃতি জুড়ে তাই স্থায়ী অবস্থান তার। তবে তারপর সময় যত এগিয়েছে জনপ্রিয়তা হারিয়েছে এক্সপ্লোরার। গত বেশ কয়েক বছর ধরে কার্যত অস্তিত্বহীন হয়ে পড়ে এই ব্রাউজার। গুগল ক্রোম, ইউসিরা অনেকটাই এগিয়ে যায় দৌড়ে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে মাইক্রোসফট নিয়ে আসে অন্য এক ব্রাউজার ‘এজ’। ২০১৫ সালে এজ ব্রাউজারের আগমনই ছিল এক্সপ্লোরারের কফিনে শেষ পেরেক।

Advertising
Advertising

গত কয়েক বছর একেবারে গুরুত্বহীন হয়েই ছিল একসময়ের জনপ্রিয় এই ব্রাউজার। ফলে বহু গ্রাহকের মনজয় করা এক্সপ্লোরারের মৃত্যুঘণ্টা বাজা প্রায় নিশ্চিতই হয়ে পড়েছিল। মাইক্রোসফট সূত্রে জানা যাচ্ছে, ব্রাউজার ‘মাইক্রোসফট এজ’-কে আরও বেশি করে গ্রাহকদের কাছে তুলে ধরতেই ‘ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার’কে অন্তিম বিদায় জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। যেভাবে চিরকালীন নিয়মে পুরনোকে জায়গা ছেড়ে দিতে হয় নবীনকে, সেই কালের নিয়ম এবার খেটে গেল এক্সপ্লোরারের ক্ষেত্রেও।

[আরও পড়ুন: উইকএন্ড কাটানোর জন্য আদর্শ বাঁকুড়ার ঝিলিমিলি, ছবি দেখলেই মন ভাল হয়ে যাবে]

Advertisement
Next