Advertisement

অনলাইনে দেদার গাঁজা বিক্রি! Amazon কর্তাদের বিরুদ্ধে দায়ের FIR

03:22 PM Nov 21, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনলাইনে দেদার বিকোচ্ছে গাঁজা! এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ উঠল জনপ্রিয় ই-কমার্স সাইট আমাজনের বিরুদ্ধে। যার জন্য আমাজনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

Advertisement

গত ১৪ নভেম্বর সেন্ট্রাল মধ্যপ্রদেশ থেকে ২০ কেজি মারিজুয়ানা-সহ দু’জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জানা যায়, আমাজন ইন্ডিয়া (Amazon India) ওয়েবসাইট থেকে অভিযুক্তরা গাঁজা অর্ডার করেছিল। পরবর্তীতে যা খোলা বাজারে বিক্রির ছক কষেছিল তারা। আর তারপরই প্রশ্ন উঠতে শুরু করে, ই-কমার্স সাইটে কীভাবে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ মাদক! আর এই প্রেক্ষিতেই কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে আমাজন কর্তাদের। মধ্যপ্রদেশ পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, নার্কোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্স আইনের আওতায় অভিযোগ তোলা হয়েছে আমাজন ইন্ডিয়ার এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টরদের বিরুদ্ধে। পুলিশ তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে জবাবে অসঙ্গতি ছিল বলেই জানা গিয়েছে। এমনকী সত্যিটা ঢাকতে তাঁরা একই প্রশ্নের আলাদা উত্তর দিয়েছিলেন। সেই কারণেই তাঁদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।

[আরও পড়ুন: এবার টুইটার থেকেও সহজেই হতে পারে অর্থাগম, জানুন কীভাবে]

তবে এই ঘটনায় কতজন আমাজন ইন্ডিয়ার কর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, তা স্পষ্ট করা হয়নি। তবে বিষয়টি সামনে আসার পর প্রথমে আমাজন এক্সিকিউটিভকে তলব করে পুলিশ জানতে পেরেছিল, জনপ্রিয় এই ই-কমার্স সাইট থেকে অন্তত এক হাজার কেজি ড্রাগ বিক্রি হয়েছে। যার মূল্য আনুমানিক ১ লক্ষ ৪৮ হাজার ডলার! তবে এই ঘটনায় সাফাই দিয়ে আমাজন জানায়, নিষিদ্ধ কোনও পণ্য তাদের ওয়েবসাইটে বিক্রির অনুমতি দেওয়া হয় না। কীভাবে এমনটা হল তা খতিয়ে দেখা হবে। পাশাপাশি যারা এই ওয়েবসাইটকে কাজে লাগিয়ে ড্রাগ বিক্রির চেষ্টা করেছে, সেই বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করা হবে।

তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও অদ্ভুত কিছু পণ্য বিক্রি করে বিতর্কের মুখে পড়তে হয়েছে আমাজনকে। কখনও অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরের ছবি দেওয়া পাপোশ বিক্রি হয়েছে এই অনলাইন শপিং প্ল্যাটফর্মে তো কখনও ‘ওঁ’ আঁকা পাপোশ বিক্রি হয়েছে। এবার নিষিদ্ধ মাদক বিক্রির দায়ে অভিযুক্ত আমাজন।

[আরও পড়ুন: এবার Instagram-এ ছবি পোস্টের সময় জোড়া যাবে মিউজিকও, জানেন কীভাবে?]

Advertisement
Next