Advertisement

জোড়া গোল বুমোসের, কেরলকে উড়িয়ে দিয়ে ISL অভিযান শুরু এটিকে মোহনবাগানের

10:10 PM Nov 19, 2021 |

এটিকে মোহনবাগান৪ (বুমোস-২, রয় কৃষ্ণ পেনাল্টি, লিস্টন)
কেরল ব্লাস্টার্স  (সাহাল, জর্জ দিয়াজ)
সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুরন্ত শুরু এটিকে মোহনবাগানের (ATK Mohun Bagan)। এবারের আইএসএলের (ISL 2021) প্রথম ম্যাচে আন্তোনিও লোপেজ হাবাসের (Antonio Habas) দল রং ছড়াল গোয়ার মাঠে। শুক্রবার রয় কৃষ্ণ, হুগো বুমোসরা ৪-২ গোলে মাটি ধরালেন কেরল ব্লাস্টার্সকে (Kerala Blasters)।

Advertisement

কলকাতা ও কেরলের দলটির মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা সবারই জানা। আইএসএলের প্রথম সংস্করণে এই কেরল ব্লাস্টার্সকে হারিয়েই প্রথম বার খেতাব জিতেছিলেন হাবাস। তাঁর স্বদেশীয় হোসে মোলিনাও কেরলকে হারিয়েই চ্যাম্পিয়ন করেছিলেন কলকাতার দলটিকে। এবারের সংস্করণের প্রথম ম্যাচে কেরল ব্লার্স্টার্সকে দাঁড়াতেই দিল না এটিকে মোহনবাগান।

[আরও পড়ুন: আইপিএলের পর এবার নতুন লিগের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন শাখরুখ খান-নীতা আম্বানিরা]

খেলার দ্বিতীয় মিনিটে বুমোস (Hugo Boumous) এগিয়ে দেন দলকে। বক্সের বাইরে থেকে শট নিয়েছিলেন বুমোস। গোলকিপার অ্যালবিনোর সামনে দাঁড়ানো রয় কৃষ্ণ (Roy Krishna) হেড দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু ফিজির তারকা ঠিকঠাক হেড করতে পারেননি। রয় কৃষ্ণের মাথার সঙ্গে বলের সংযোগই ঘটেনি।  কেরলের গোলকিপারও বলের গতিপথ বুঝতে পারেননি। শুরুতেই গোল পেয়ে গেলে যে কোনও দলই আত্মবিশ্বাস পেয়ে যায়। এটিকে মোহনবাগানের খেলাতেও তারই প্রতিফলন ঘটে। বেশ কয়েকবার কেরলের পেনাল্টি বক্সে আক্রমণ তুলে আনে তারা। কেরলও অবশ্য এই সময়ে খোলস ছেড়ে বেরনোর চেষ্টা করে। ২৪ মিনিটে সমতা ফেরায় কেরল। ডান দিক থেকে বল ভাসিয়েছিলেন প্রবীণ। বক্সের ঠিক উপর থেকে সেই বল রিসিভ করে জোরালো শটে কেরলের হয়ে সমতা ফেরান সাহাল।

হুগো বুমোস।

এর পরেই ম্যাচের রাশ নিয়ে নেয় এটিকে মোহনবাগান। ২৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ২-১ করেন এটিকে মোহনবাগান। রয় কৃষ্ণকে পেনাল্টি বক্সের ভিতরে ফেলে দিয়েছিলেন কেরলের গোলরক্ষক। অ্যালবিনোকে উল্টো দিকে ফেলে দিয়ে পেনাল্টি থেকে গোল করেন ফিজির তারকা রয় কৃষ্ণ। গোল করার আরও সুযোগ পেয়েছিলেন ফিজিয়ান তারকাও। বক্সের ভিতরে বল পেয়ে গোল করতে পারেননি কৃষ্ণ। ৩৯ মিনিটে একক দক্ষতায় গোল করেন হুগো বুমোস। জার্সি ধরে টেনেও বুমোসকে আটকানো যায়নি। অ্যালবিনো গোলের মুখ ছোট করে বেরিয়ে এসেছিলেন। বুমোস কেরল গোলকিপারের পায়ের ফাঁক দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দেন।

 

একটা দল প্রথমার্ধেই তিন-তিনটি গোল পেয়ে গেলে বোঝা যায় সংশ্লিষ্ট দল কতটা শক্তিশালী। বিরতির শেষে লিস্টন বক্সের উপর থেকে বাঁক খাওয়ানো শটে ৪-১ করেন। ৬৯ মিনিটে দিয়াজ ব্যবধান কমিয়ে ৪-২ করেন কেরলের হয়ে। খেলার বয়স তখন ৬৯ মিনিট। প্রথমার্ধেই নক আউট হয়ে গিয়েছিল কেরল। ম্যাচে ফেরা আর সম্ভব হয়নি তাদের পক্ষে। মেগা টুর্নামেন্টের শুরুতেই নিজেদের শক্তির পরিচয় দিল এটিকে মোহনবাগান। ২৭ তারিখ এটিকে মোহনবাগানের সামনে এসসি ইস্টবেঙ্গল। আইএসএলের প্রথম ডার্বি। লাল-হলুদ শিবির এখনও নামেনি। তাদের প্রথম ম্যাচ রবিবার। এসসি ইস্টবেঙ্গলের স্পেনীয় কোচ ম্যানুয়েল দিয়াজ এদিনই বুঝে গেলেন হাবাসের দল কতটা শক্তিশালী। 

[আরও পড়ুন: খেলবেন না আইপিএলেও, সব ফরম্যাটের ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে ফেললেন ডিভিলিয়ার্স]

Advertisement
Next