Advertisement

ছিঃ! সন্তানকে বেচে সেই টাকায় নতুন স্ত্রীকে নিয়ে দেশ বেড়াতে গেল ‘গুণধর’

11:22 PM May 04, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্তান প্রতিপা‌লনে ঝামেলা অনেক! তাই তাকে বিক্রি করে সেই টাকায় স্ত্রীকে ছুটি কাটাতে গেল এক ব্যক্তি! তবে তাদের সেই ‘হলিডে মুড’ অবশ্য শেষ পর্যন্ত চিরস্থায়ী হয়নি। পুরো বিষয়টি পুলিশের নজর আসতেই শ্রীঘরে যেতে হল অভিযুক্তকে। চিনের (China) ঝেজিয়াং প্রদেশেই ঘটেছে এই অমানবিক ঘটনা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

সদ্য প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায় অভিযুক্ত শি-র। সেইপক্ষের ২ বছরের শিশুপুত্রের সব দায়ভার বর্তায় তার উপরেই। ইতিমধ্যেই নতুন করে বিয়ে করে শি। আর তারপরই ছেলে জিয়াজিয়াতে দেড় লক্ষ ইউয়ানেরও বেশি অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে বেচে দেয় সে। ভারতীয় মুদ্রার হিসেবে যা ১৮ লক্ষ টাকা। বিপুল ওই টাকা নিয়ে রাতারিত দেশ বেড়ানোর প্ল্যানও করে ফেল অভিযুক্ত। তারপর বেড়িয়ে পড়ে নতুন স্ত্রীকে নিয়ে।

[আরও পড়ুন: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা, এপ্রিলে কাজ হারিয়েছেন ৭০ লক্ষেরও বেশি ভারতীয়]

শেষ পর্যন্ত অবশ্য ধরা পড়ে গেল ওই ব্যক্তির চরম নির্দয়তা। আসলে অন্য শহরে কাজ করতে যেতে হত বলে নিজের ছেলেকে প্রখমে ভাইয়ের জিম্মায় রেখে গিয়েছিল শি। কিন্তু পরে সে সেখান থেকে জিয়াজিয়াকে নিয়ে চলে যায়। বলে যায়, ছেলের মা সন্তানকে দেখতে চেয়েছে বলে তাকে নিয়ে যাচ্ছে। তারপর থেকেই আর তার সঙ্গে ভাইয়ের যোগাযোগ হয়নি। ছেলে তো বটেই, শি নিজেও আর দেখা করেনি পরিবারের সঙ্গে। পরিস্থিতি দেখে সন্দেহ হয় শি-র পরিবারের। এদিকে জিয়াজিয়ার মা ছেলেকে দেখতে উন্মুখ হয়ে ওঠেন। এরপরই খবর দেওয়া হয় পুলিশকে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

পুলিশ তদন্তে নেমে সন্ধান পায় অভিযুক্তের। কেবল শি নয়, গ্রেপ্তার করা হয়েছে সেই দম্পতিকেও যাদের কাছে নিজের সন্তানকে বিক্রি করেছিল সে। আপাতত জিয়াজিয়াকে ফেরত দেওয়া হয়েছে তার কাকার কাছে। ইতিমধ্যেই পুলিশ জানতে পেরেছে শি ও তার প্রাক্তন স্ত্রী’র আরও দু’টি সন্তান ছিল। সেই শিশুকন্যাদেরও নাকি অন্য কাউকে দিয়ে দিয়েছে তারা! এই বিষয়টি নিয়ে পুলিশ কোনও তদন্ত করছে কিনা তা এখনও জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন: প্রয়াত জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন রাজ্যপাল জগমোহন, শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next