Advertisement

Bangladesh Violence: বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক অশান্তির মাস্টারমাইন্ড খালেদা জিয়ার পুত্র!

11:31 AM Oct 27, 2021 |

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে (Bangladesh) দুর্গাপুজোয় (Durga Puja 2021) সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনায় এবার নাম জড়াল বেগম খালেদা জিয়ার পুত্র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের। দুর্নীতি-সহ দেড় ডজন মামলা ঝুলছে স্বেচ্ছায় লন্ডন প্রবাসী তারেকের বিরুদ্ধে। এই কাণ্ডে বিএনপির সঙ্গী ছিল মৌলবাদী দল জামাতও। রাজশাহি সার্কিট হাউসে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় এ কথা বলেছেন আওয়ামি লিগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

Advertisement

পাশাপাশি, হামলায় অতিপরিচিত কিছু রাজনৈতিক নেতা যুক্ত থাকার তথ্য পাওয়া গিয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি জানিয়েছেন, ঘটনায় ধৃতরা জিজ্ঞাসাবাদের সময় তাঁদের নাম বলেছেন। আরও নিশ্চিত হয়ে শীঘ্রই তা প্রকাশ করা হবে। তথ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পরিকল্পনাতেই সারা দেশে সাম্প্রদায়িক হিংসা ছড়িয়ে পড়ে। একমাস ধরে কুমিল্লা কাণ্ডের পরিকল্পনা হয় সুদূর লন্ডনে বসে। বিএনপি-জামাত প্রকাশ্যে বৈঠক করেছে। আর গোপনে ষড়যন্ত্র করেছে। সেই ষড়যন্ত্রেরই অংশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করা। এই উদ্দেশ্যে দুর্গাপূজার সময় পুজোমণ্ডপে হামলা করেছে তারা। এর সঙ্গে যুক্ত সবাইকে খুঁজে বের করা হবে।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশের পুজোমণ্ডপে কোরান রাখার কথা স্বীকার করল ইকবাল]

তাঁর প্রশ্ন, ”সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে রাজনীতি কারা করে এই দেশে? সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে রাজনীতি করে বিএনপি-জামাত, ধর্মান্ধ-উগ্রবাদীরা। বাংলাদেশের কোনও সম্প্রদায়ের লোক অপরের ধর্মগ্রন্থ অবমাননা করার মানসিকতা পোষণ করে না।” সেই সঙ্গে তিনি জানান, অভিযুক্ত ওই যুবককে কারা প্ররোচিত করেছে, কারা অর্থ দিয়েছে, কারা পালিয়ে যাওয়ার জন্য চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার পাঠিয়েছে, সব কিছুই বের হবে। সরকার এই বিষয়ে ১০২টি মামলা করেছে। এপর্যন্ত ৭০০ দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নোয়াখালি জেলার চৌমুহানিতে সাম্প্রদায়িক হিংসায় ‘উসকানি’ দেওয়ার অভিযোগে ধৃত বিএনপির শাখা সংগঠন জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ফয়সল ইমাম ওরফে কমল (৩৯) স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। পুলিশ সুপার মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, ফয়সল ইনাম ওরফে কমল সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় উস্কানিদাতা হিসাবে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ সভাপতি তথা নোয়াখালি-৩ আসনের সাবেক সাংসদ বরকত উল্লাহ বুলু-সহ বিএনপি-জামাতের ১৫ নেতা যুক্ত থাকার বিষয়ে তথ্য দিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশে মন্দির ভাঙচুরের প্রতিবাদে দীপাবলি পালন করবেন না সনাতন ধর্মাবলম্বীরা]

Advertisement
Next