গাড়ি নিয়ে মেগা প্রচারে জনতার সমস্যা, নির্বাচনী বিধিভঙ্গে শাকিবকে শোকজ

07:11 PM Nov 30, 2023 |
Advertisement

সুকুমার সরকার, ঢাকা: প্রথম দফায় ভোটের ময়দানে নেমেই নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের কারণে শোকজের মুখে পড়লেন বাংলাদেশের (Bangladesh) অধিনায়ক শাকিব আল হাসান (Shakib Al Hasan)। শাকিব দেশের পশ্চিমাঞ্চল জেলা মাগুরা-১ আসনে শাসকদল আওয়ামি লিগের প্রার্থী হয়েছেন। শুধু শাকিব আল হাসানই নয়, দলটির চার প্রার্থীকে শোকজ করেছে নির্বাচন কমিশন। বিধি ভঙ্গের কারণে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী, ঢাকা-১৯ আওয়ামি লিগ মনোনীত প্রার্থী ডাক্তার মহম্মদ এনামুর রহমান, নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের আওয়ামি লিগের প্রার্থী গোলাম দস্তগীর, ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন, জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশিদকে তলব করেছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি।

Advertisement

বৃহস্পতিবার মাগুরা-১ নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির প্রধান এবং যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ সত্যব্রত শিকদার শোকজের চিঠি পাঠিয়েছেন। ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ শোকজের (Showcause) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শাকিবকে শোকজ করা চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘‘আপনি শাকিব আল হাসান, মাগুরা-১ আসন থেকে আওয়ামি লিগের মনোনীত এমপি পদপ্রার্থী হিসেবে ঘোষণার পর গত ২৯ নভেম্বর ঢাকা থেকে মাগুরা আগমনের সময় পথিমধ্যে কামারখালি এলাকা থেকে শোডাউন করে গাড়িবহর নিয়ে মাগুরা শহরে প্রবেশ করেন। নাগরিক গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। তাতে জনগণের চলাচলের পথে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করেন। যা বিভিন্ন অনলাইন, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়। এর মাধ্যমে আপনি সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধি লঙ্ঘন করেছেন। ওই আইন ভঙ্গের কারণে কেন আপনার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, তা অনুসন্ধান কমিটির দপ্তরে আগামী ১ ডিসেম্বর বিকেল ৩টেয় সশরীরে উপস্থিত হয়ে লিখিত ব্যখ্যা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হল।’’

[আরও পড়ুন: দ্বিতীয়বার মা হলেন শুভশ্রী, রাজের ঘরে এল ফুটফুটে সন্তান]

বুধবার ঢাকা থেকে মাগুরা যাওয়ার পথে কামারখালী এলাকায় বিশাল কনভয় নিয়ে শোভাযাত্রা শুরু করেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার শাকিব। পরে সেসব গাড়ি মাগুরা শহরে প্রবেশ করে। শাকিব এক নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এতে জনগণের চলাচলে সমস্যা হয়। চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, এর মাধ্যমে শাকিব আল হাসান সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা, ২০০৮ লঙ্ঘন করেছেন।

শোকজের মুখে নির্দল প্রার্থী নিক্সন চৌধুরীও।

অন্যদিকে, বিধি ভঙ্গের কারণে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী তথা ঢাকা-১৯ আওয়ামি লিগ মনোনীত প্রার্থী ডা. মহম্মদ এনামুর রহমানকে এবং নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের আওয়ামি লিগের প্রার্থী গোলাম দস্তগীরকেও শোকজ করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট অনুসন্ধান কমিটি ১ ডিসেম্বর সকাল ১০ টায় তাঁদের জবাব দিতে বলেছে। এদিকে, মনোনয়ন ফরম জমা দিতে আসায় সময় নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল বিএনপির মহাসচিব তৈমুর আলম খন্দকার ও জাতীয় পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজের বিরুদ্ধে। জাতীয় সংসদ নির্বাচন আচরণ বিধি অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় কোনও প্রার্থী কোনো ধরনের মিছিল কিংবা শোডাউন করতে পারবেন না। একজন প্রার্থী সর্বোচ্চ ৫ জনকে সঙ্গে নিয়ে মনোনয়ন ফরম জমা দিতে পারেন। কোনও প্রার্থী, ট্রাক, বাস, মোটরবাইক, নৌযান, ট্রেন কিংবা অন্য কোনও যান্ত্রিক যানবাহন সহকারে মিছিল বা শোডাউন করতে পারবেন না।

[আরও পড়ুন: সন্তান নিজের নয়! সন্দেহের বশেই আটমাসের শিশুকে ‘খুন’ বাবার]

নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সনকে তলব করেছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। বৃহস্পতিবার নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির ফরিদপুর ৪-এর চেয়ারম্যান এবং যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক আদেশে নিক্সন চৌধুরীকে বলা হয়, ”আপনি আড়াই শতাধিক মাইক্রোবাস ও দুই শতাধিক মোটরবাইকের বহর নিয়ে ফরিদপুর শহরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেন। একটি ছাদখোলা গাড়িতে দাঁড়িয়ে শুভেচ্ছা জানাতে জানাতে আপনি ভাঙ্গার দত্তপাড়া থেকে যাত্রা শুরু করে সদরপুরের চন্দ্রপাড়া, আটরশি পার হয়ে চরভদ্রাসন হয়ে ফরিদপুর সদরের গজারিয়া, মুন্সিবাজার দিয়ে ঢাকা-বরিশাল সড়ক ধরে ফরিদপুর শহরের ভাঙ্গা রাস্তার মোড় হয়ে মুজিব সড়ক, ব্রাহ্মসমাজ সড়ক দিয়ে জেলা পরিষদের সামনে এসে পৌঁছান। তাতে ওই এলাকায় সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয়।”

Advertisement
Next