পুলিশের উদ্যোগে ‘পথের দিশা’, কোচিং নিয়ে চাকরি পেল পুরুলিয়ার ১৯ যুবক

08:08 PM Aug 22, 2023 |
Advertisement

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: আক্ষরিক অর্থেই দিশা দেখাল ‘পথের দিশা’। পুরুলিয়া জেলা পুলিশের ‘পথের দিশা’ কোচিং ক্যাম্পে প্রশিক্ষণ নিয়ে চাকরি পেলেন ১৯ জন যুবক। তার মধ্যে ১৫ জন রাজ্য পুলিশের কনস্টেবল। ওয়েস্ট বেঙ্গল পুলিশ কনস্টেবল/ লেডি কনস্টেবল রিক্রুটমেন্ট এক্সামিনেশন -২০২০ তে এই জেলার জঙ্গলমহল সহ বিভিন্ন প্রান্তের ছেলেরা এই সাফল্য পেয়েছে। এদিকে ওয়েস্ট বেঙ্গল পুলিশ লেডি কনস্টেবল রিক্রুটমেন্ট ২০২৩-র পরীক্ষায় এই ‘পথের দিশা’ থেকেই অযোধ্যা পাহাড়ের ১৪ জন তরুণীকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ চলছে।

Advertisement

পুরুলিয়া জেলা পুলিশের ডিএসপি (ডিইবি ) সমীর অধিকারীর তত্ত্বাবধানে চাকরির পরীক্ষায় সাফল্যের দিশা দিতে এই ‘পথের দিশা’ প্রকল্প। যা পুরুলিয়া জেলা পুলিশের ‘আস্থা’ প্রকল্পের আওতাধীন। পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “জঙ্গলমহল পুরুলিয়ার তরুণ-তরুণীরা যাতে বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক চাকরির পরীক্ষায় সফল হন সেই লক্ষ্যেই আমাদের ‘পথের দিশা’ প্রকল্প। এই প্রকল্পের আওতাতেই প্রশিক্ষণ নিয়ে ১৯ জন চাকরি পেয়েছেন। তার মধ্যে ১৫ জন কনস্টেবল। লেডি কনস্টেবল রিক্রুটমেন্টেও আমরা অযোধ্যা পাহাড়ের কয়েকজন মেয়েকে আবাসিক ভাবে প্রশিক্ষণ দিচ্ছি। তারা যাতে ওই পরীক্ষায় সফল হন।”

[আরও পড়ুন: ফের বাড়ল পুজোর অনুদান, বিদ্যুতের বিলেও বড় ছাড়, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

গত ২ বছর ধরে ২০২১ সাল থেকে চাকরির পরীক্ষায় সফলতা পাইয়ে দিতে পুরুলিয়া জেলা পুলিশের ‘পথের দিশা’ প্রকল্প চলছে। ২০২০ সালের ওই রিক্রুটমেন্ট। কোভিডের কারণে ২০২২ সালে সমস্ত পরীক্ষা হয়। ওই ‘পথের দিশা’ প্রকল্পের অধীনেই ১৯ জন তরুণ এই সাফল্য পান। ১৫ জন কনস্টেবল ছাড়াও আবগারি দপ্তরের কনস্টেবল একজন, স্টাফ সিলেকশন কমিশন গ্রুপ ডি দু’জন, রেলওয়ে গ্রুপ ডিতে একজন চাকরি পান। কনস্টেবলের চাকরি পাওয়া বাঘমুন্ডির মাদলা গ্রামের ধ্রুবদাস গোস্বামী, বোরো থানার লালডুঙরির গহন মাহাতো বলেন, “২০২১ সালে আমাদের মক টেস্ট নেওয়া হয়েছিল। যারা ওই টেস্টে উত্তীর্ণ হন তাদেরকে আবাসিকভাবে কোচিং দেওয়া হয়েছে। ‘পথের দিশা’ প্রকল্পের জন্যই আজ আমরা চাকরি পেয়েছি।” জঙ্গলমহলের বিভিন্ন থানা এলাকার ওই ১৫ জনই সম্প্রতি পুরুলিয়া বেলগুমা পুলিশ লাইনে কাজে যোগ দিয়েছেন। এখন তারা দুর্গাপুরে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।

গত ১৯ মার্চ এই ‘পথের দিশা’-র আরেকটি শাখা খোলে অযোধ্যা পাহাড়ের রাজ্য সরকার পরিপোষিত আশ্রমধর্মী মাধ্যমিক স্কুলে। অযোধ্যা হিলটপের ওই আশ্রমধর্মী মাধ্যমিক স্কুলে ফি শনি ও রবিবার কোচিং চলে। এই কোচিং সেন্টারে চাকরির পরীক্ষা সংক্রান্ত বইপত্র নিয়ে একটি গ্রন্থাগার করতে চায় পুলিশ। যার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। পুরুলিয়া জেলা পুলিশ চাইছে, ‘পথের দিশা’ প্রকল্পের মধ্য দিয়ে অযোধ্যা পাহাড় সহ জেলার তরুণ-তরুণীরা আক্ষরিক অর্থে স্বনির্ভর হোক। ওয়েস্ট বেঙ্গল লেডি কনস্টেবল রিক্রুটমেন্ট ২০২৩-র জন্য অযোধ্যা পাহাড়ের যে ১৪ জন তরুণী পুরুলিয়ার বেলগুমা পুলিশ লাইনে এসে আবাসিক ভাবে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। তাদের খাওয়া-দাওয়ারও ব্যবস্থা করেছে পুরুলিয়া জেলা পুলিশ। আগস্ট মাসের ৭ তারিখ থেকে এই প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু হয়েছে। ৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই প্রশিক্ষণ পর্ব চলবে। ১০ সেপ্টেম্বর ওই পরীক্ষা রয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘ছেলেটা বিদেশ থেকে ফিরেছে, ওমনি বাবুরা বেরিয়ে পড়েছে’, ইডি হানা নিয়ে সরব মুখ্যমন্ত্রী]

Advertisement
Next