Advertisement

‘শীতলকুচি করতে যাবেন না, সরকার এলে দেখে নেব’, পুলিশকে হুমকি TMC নেতার

01:16 PM Apr 22, 2021 |
Advertisement
Advertisement

ধীমান রায়, কাটোয়া: “শীতলকুচি করতে যাবেন না। তিনদিন বাদে আমাদের সরকার আসছে। তখন আপনাকে দেখে নেব।” আউশগ্রাম (Ausgram) বিধানসভার প্রতাপপুরের ডাঙাপাড়া এলাকায় এভাবেই পুলিশকে হুঁশিয়ারি দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল নেতা (TMC Leader) অরূপ মিদ্দার বিরুদ্ধে।

Advertisement

ভালকি অঞ্চলের তৃণমূল সভাপতি অরূপ মিদ্দা। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে প্রতাপপুরের ডাঙাপাড়া এলাকার সামনে বেশ কয়েকজনের জমায়েত হয়েছিল। পাহারায় থাকা পুলিশকর্মীরা জমায়েত করা মানুষদের সরাতে যান। তখনই নাকি অরূপ মিদ্দা শীতলকুচির ঘটনার উল্লেখ করে হুঁশিয়ারি দেন।তিনদিন বাদে তৃণমূল (TMC) সরকার এলে পুলিশকর্মীদের দেখে নেওয়ার হুমকি বলেন। যদিও অরূপ মিদ্দার কথায় আমল দেননি পুলিশকর্মীরা। অল্প সময়ের মধ্যেই জমায়েত সরিয়ে দেওয়া হয়। ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে বিজেপি।

[আরও পড়ুন: Bengal Polls LIVE: বারাকপুরে রাজ চক্রবর্তীকে ঘিরে বিক্ষোভ, উঠল ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান ]

উল্লেখ্য, সকাল থেকেই বিক্ষিপ্ত ঘটনা ঘটছে পূর্ব বর্ধমান (Purba Bardhaman) জেলার আউশগ্রাম কেন্দ্রে। আউশগ্রামের ৬৫ ও ৬৬ নম্বর বুথের সামনে তৃণমূল কর্মীদের ব্যাপক জমায়েত করার অভিযোগ উঠেছে। ঘাসফুল শিবিরের বিরুদ্ধে ভয় দেখানোর অভিযোগ তুলেছে বিজেপি (BJP)। আউশগ্রামের ৯১ নম্বর বুথে বিজেপির এজেন্ট বসতে বাধা দেওয়া হয়েছে বলেও শোনা গিয়েছে। আউশগ্রামের ২২৭, ২২৭ এ, এবং ২২৮ এ নম্বর বুথে ভোটারদের ভয় দেখানোরও অভিযোগ তৃণমূলের (TMC) বিরুদ্ধে।

এছাড়াও মঙ্গলকোট বিধানসভার ৯৪ ও ৯৫ নম্বর বুথে বিরোধীদলের এজেন্টদের বসতে দেওয়ায় বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। যদিও পরে এই সমস্যার সমাধান হয়ে গিয়েছে বলেই শোনা গিয়েছে। আউশগ্রাম বিধানসভার ২২৩, ২২৪ বুথে ছাপ্পার অভিযোগও রয়েছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। আউশগ্রামের ৫০ নম্বর বুথে বিজেপি সমর্থক পরিবারদের ভোট দিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। যাবতীয় অভিযোগ অবশ্য তৃণমূলের পক্ষ থেকে অস্বীকার হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ভোটের দিন সকালে হাবড়ায় উদ্ধার রক্তাক্ত দেহ, কাঁচরাপাড়ায় মাথা ফাটল তৃণমূল নেতার ]

Advertisement
Next