Advertisement

ভোটের ফলপ্রকাশের পর বিক্ষিপ্ত অশান্তি রাজ্যে, রাজনৈতিক হিংসার বলি ২

12:13 PM May 03, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: ভোটের ফলপ্রকাশের পরও নির্বাচনী আবহেই মজে বঙ্গ। রবিবার ভোটের ফলাফলে হ্যাটট্রিক গড়ে সরকার গড়তে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। টার্গেটের ধারেকাছে থাকা দূরঅস্ত, একেবারে হতাশাজনক ফলাফল হয়েছে রাজ্যের গেরুয়া শিবিরের। আর তারপর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের ঘটনা প্রকাশ্যে এল। তার মধ্যে সবচেয়ে বড় ঘটনা কাঁকুড়গাছির। রবিবার রাতে শীতলাতলা লেন এলাকায় এক বিজেপি (BJP) কর্মীকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল। অভিজিৎ সরকার নামে বছর তিরিশের এক যুবককে বাড়ি থেকে বের করে নিয়ে ব্যাপক মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূল কর্মী, সমর্থকদের বিরুদ্ধে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

Advertisement

একই ঘটনা সোনারপুরেও।  সোনারপুর দক্ষিণ (Sonarpur Dakshin)বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত প্রতাপনগর অঞ্চলের মেটিয়ারিতে মৃত্যু হয়েছে হারান অধিকারী নামে এক বিজেপি সমর্থকের। স্থানীয়দের অভিযোগ, ভোটের ফলাফল ঘোষণার পর এলাকায় বোমাবাজি শুরু হয়। বিজেপির পতাকা ছেঁড়া হচ্ছিল। এই ঘটনার প্রতিবাদ করায় মারধর করা হয় এক মহিলাকে। তখন পাড়ার অন্যান্য ছেলেরা এগিয়ে এসে প্রতিবাদ জানাতেই তাঁদের উপরেও হামলা চালানো হয়। হামলার জেরে গুরুতর আহত হন হারান অধিকারী। তাকে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

[আরও পড়ুন: নন্দীগ্রামে জিতলেন শুভেন্দু, তবে ‘বাজিগর’ মমতাই]

ভোটের আগে থেকেই অশান্ত সল্টলেকের (Salt Lake) বিভিন্ন জায়গায়। ভোটের দিনও জারি ছিল অশান্তি। আর রবিবার, ভোটের ফলাফল প্রকাশের পরও বিভিন্ন জায়গা থেকে মিলল সংঘর্ষের খবর। সুকান্তনগরে এক বিজেপি কর্মীর বাড়ি ভাঙচুর, নিউটাউনের পাথরঘাটায় পার্টি অফিস দখল নিয়ে অশান্তি, বালিগুড়িতে আইএসএফ (ISF)-তৃণমূলের (TMC) সংঘর্ষের ঘটনায় রাতভর উত্তপ্ত রইল সল্টলেক, নিউটাউন এলাকা। ভাঙড়েও (Bhangar) অবশ্য ফলপ্রকাশের পর আইএসএফ-তৃণমূল সংঘর্ষ জারি। অভিযোগ, তৃণমূল কর্মীদের মারধর করেছে আইএসএফ সমর্থকরা। তাতে একজনের মাথা ফেটে গিয়েছে। ২ জন ভরতি হাসপাতালে। প্রসঙ্গত, ভাঙড় কেন্দ্রে এবার জয়ী হয়েছেন আইএসএফ প্রার্থী নওশাদ সিদ্দিকি।

অন্যদিকে, মুর্শিদাবাদের কান্দিতে বিজেপি কর্মীর বাড়ি লক্ষ্য করে রাতে বোমাবাজির ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ। তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বেশ কয়েকটি বাড়িতে বোমাবাজি করেছে। যদিও সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। 

[আরও পড়ুন: ভাঙা পায়েই ‘খেলা’ মমতার, রাজ্যে তৃণমূলের বিপুল জয়ের নেপথ্যে এই সাত কারণ]

রাজ্যের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ কেন্দ্র নন্দীগ্রাম (Nandigram) বিধানসভায় এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারিয়ে জিতেছেন বিজেপির শুভেন্দু অধিকারী। দিনভর টানাপোড়েনের পর সন্ধেবেলা শুভেন্দুকে জয়ী ঘোষণা করা হয়। তা নিয়ে উত্তেজনা জারি ছিল রাতভর। সকাল থেকে ভোট গণনায় কারচুপির অভিযোগ তুলে নন্দীগ্রামের গড়চক্রবেড়িয়া ভূতা মোড়ে পথ অবরোধে নামলেন তৃণমূল কর্মীরা। যার জেরে আপাতত বন্ধ নন্দীগ্রাম-সোনাচূড়া সড়কে যান চলাচল। সপ্তাহের প্রথম দিন রাস্তায় বেরিয়ে  সমস্যায় নিত্যযাত্রীরা। এছাড়া অবরোধ চলছে হাজরাকাটা, কেন্দ‍ামারি, টেঙ্গুয়া,বাসস্ট‍্যান্ড -সহ বিভিন্ন জায়গায়। দাবি একটাই, নন্দীগ্রাম বিধানসভায় ফের ভোটগণনা চাই। 

Advertisement
Next