বিদ্যার ‘শকুন্তলা দেবী’ও মুক্তি পাচ্ছে অনলাইনে, আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কায় অসন্তোষ প্রকাশ আইনক্সের

10:09 AM May 15, 2020 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অমিতাভ-আয়ুষ্মানের ‘গুলাবো সিতাবো’র পর এবার বিদ্যা বালান অভিনীত ‘শকুন্তলা দেবী’ও মুক্তি পাচ্ছে অনলাইন প্ল্যাটফর্মে। বৃহস্পতিবারই ‘গুলাবো সিতাবো’র ওটিটি প্ল্যাটফর্মে রিলিজ হওয়ার খবর প্রকাশ্যে এসেছে। অন্যদিকে, এদিনই আবার ‘শকুন্তলা দেবী’র বায়োপিকের নির্মাতারাও আভাস দিয়েছিলেন যে এই ছবি অনলাইনে মুক্তি পেতে পারে। অবশেষে অফিশিয়ালি জানানো হল যে ‘গুলাবো সিতাবো’র মতোই বিদ্যার ‘শকুন্তলা দেবী’রও ২০০টি দেশজুড়ে প্রিমিয়ার হতে চলেছে আমাজন প্রাইম ভিডিওর হাত ধরে। যদিও মুক্তির দিনক্ষণ এখনও জানানো হয়নি।

Advertisement

প্রসঙ্গত, মানব কম্পিউটার শকুন্তলা দেবীর ভূমিকায় রয়েছেন বিদ্যা বালান। তাঁর স্বামী পরিতোষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন যিশু সেনগুপ্ত এবং শকুন্তলা দেবীর মেয়ের ভূমিকায় দেখা যাবে ‘দঙ্গল’ খ্যাত সানায়া মালহোত্রাকে।

Advertising
Advertising

উল্লেখ্য, ‘গুলাবো সিতাবো’, ‘শকুন্তলা দেবী’র পাশাপাশি অক্ষয় কুমার অভিনীত ‘লক্ষ্মী বম্ব’, রাজকুমার রাও অভিনীত ছবি ‘লুডো’, জাহ্নবী কাপুর অভিনীত ‘গুঞ্জন সাক্সেনা’-সহ আরও বেশ কিছু ছবিরও ওয়েব প্ল্যাটফর্মে মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। আর বহু প্রতীক্ষীত এই হিন্দি সিনেমাগুলির মুক্তি ওয়েব প্ল্যাটফর্মে হওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করে প্রযোজক-পরিচালকদের উদ্দেশে এক বিবৃতি জারি করেছে আইনক্স। সুজিত সরকার পরিচালিত ‘গুলাবো সিতাবো’ই হোক, বিদ্যা বালানের ‘শকুন্তলা দেবী’ই হোক কিংবা অক্ষয় কুমারের ‘লক্ষ্মী বম্ব’, জাহ্নবীর ‘গুঞ্জন সাক্সেনা’, এই প্রত্যেকটি ছবি ঘোষণার পর থেকেই সিনেপ্রেমীদের মনে আলাদা প্রত্যাশার সৃষ্টি করেছে। বিশেষ করে ‘লক্ষ্মী বম্ব’ ছবিতে অক্ষয় কুমারের লুক দেখেই দর্শকদের উত্তেজনার পারদ চড়েছিল। অন্যদিকে ধড়ক-এর পর শ্রীদেবীকন্যা জাহ্নবীকে একেবারে অন্য অবতারে দেখা যাবে মেঘবালিকা ‘গুঞ্জন সাক্সেনা’র বায়োপিকে। পর্দায় চ্যালেঞ্জিং এই চরিত্রের চিত্রায়ণ দেখতে অনেক আগে থেকেই মুখিয়ে রয়েছেন দর্শকরা। ওদিকে পর্দায় প্রথমবার অমিতাভ-আয়ুষ্মান জুটি। অতঃপর বহু প্রতীক্ষীত এই হিন্দি সিনেমাগুলি একের পর এক যদি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে রিলিজ করতে থাকে, তাহলে লকডাউন পরবর্তী সময়ে সিনেমা হল, মাল্টিপ্লেক্সগুলি যে জোর ধাক্কা খাবে, তা বলাই বাহুল্য।

এমনিতেই মার্চ মাসের মাঝামাঝি থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের সিনেমাহলগুলির দরজায় তালা পড়েছে। যার জেরে বড়সড় অর্থনৈতিক মন্দার সম্মুখীন হতে চলেছেন সিনেমাওয়ালারা। ভারতের বিনোদন ইন্ডাস্ট্রির অর্থনৈতিক পরিকাঠামোতেও যে ধ্বস নামতে চলেছে, তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না! ছবির বাজেট কমবে। অভিনেতা-অভিনেত্রীদের পারিশ্রমিকেও কাটছাঁট হবে। এই কঠিন সময়ে যদি ছবির নির্মাতারা অনলাইন মুক্তির দিকে ঝোঁকে, তার বড় মাশুল গুনতে হবে সিনেমাহল-মাল্টিপ্লেক্সগুলিকে। সেকথা ভেবেই চিন্তার ভাঁজ পড়েছে মাল্টিপ্লেক্স কর্তৃপক্ষের কপালে।    

[আরও পড়ুন: হাজার হাজার পরিযায়ী শ্রমিকদের মায়ের কথা তুলে ধরল নন্দিতা রায়ের ‘কাজল মাসি’]

 

অন্যদিকে, সিনেমার ব্যবসায়িক দিকের কথা ভেবেই প্রযোজক-পরিচালকরা ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তির সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। কারণ, এই মুহূর্তে বলিউড-সহ বাংলা, দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির একাধিক ছবি মুক্তির অপেক্ষায়। অতঃপর করোনা বিদায় হওয়ায় পর সিনেমাহল-মাল্টিপ্লেক্সগুলি খুললেই যে একের পর এক ছবি মু্ক্তির লাইন লেগে যাবে, তা আন্দাজ করাই যায়। একই সময়ে মুক্তি পাওয়া অপেক্ষাকৃত বেশি বাজেটের সিনেমার জন্য বক্স অফিসে ধাক্কা খেতে পারে স্বল্প বাজেটের ছবিগুলি, সেই আশঙ্কাও রয়েছে। প্রথমত, করোনার জেরে লকডাউনের লোকসান, দ্বিতীয়ত লকডাউন পরবর্তী সময়েও হল পাওয়া নিয়ে দৌড়োদৌড়ির সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা, যাবতীয় বিষয় মাথায় রেখেই বুদ্ধি-বিবেচনা করে অনলাইনে ছবির রিলিজের দিকে ঝুঁকছেন নির্মাতারা। আর এতেই আইনক্সের মতো সিনেমাওয়ালারা ক্ষোভপ্রকাশ করেছে।    

[আরও পড়ুন: মুম্বই পুলিশকর্মীদের করোনার উপসর্গ চিহ্নিত করার বিশেষ রিস্ট ব্যান্ড দিলেন অক্ষয়]

The post বিদ্যার ‘শকুন্তলা দেবী’ও মুক্তি পাচ্ছে অনলাইনে, আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কায় অসন্তোষ প্রকাশ আইনক্সের appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next