Advertisement

Kashmir Encounter: ২৪ ঘণ্টায় জোড়া অভিযান, ভূস্বর্গে খতম ৪ জেহাদি

10:23 AM Jul 25, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীরের (Kashmir) জেহাদি নেটওয়ার্কের মেরুদণ্ড গুড়িয়ে দিতে লাগাতার অভিযান চালাচ্ছে যৌথবাহিনী। মিলছে বড় সাফল্যও। গত ২৪ ঘণ্টায় জোড়া এনকাউন্টারে ৪ জেহাদিকে নিকেশ করেছে ভারতীয় সেনা ও কাশ্মীর পুলিশ। তবে তাদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

Advertisement

কাশ্মীর পুলিশ সূত্রে খবর, শনিবার সন্ধেয় কাশ্মীরের বান্দিপোরা (Bandipora) এলাকায় শুরু হয় গুলির লড়াই (Encounter)। ওই এলাকায় সন্ত্রাসবাদীদের (Terrorist) গা-ঢাকা দিয়ে থাকার খবর পেয়েই তল্লাশি অভিযান শুরু করেছিল সেনা-পুলিশের যৌথবাহিনী। সেনার উপস্থিতি টের পেতেই গুলিবৃষ্টি শুরু করে জঙ্গিরা। জবাব দেয় বাহিনীও। প্রথমে ২ জন অজ্ঞাত পরিচয় জেহাদির দেহ উদ্ধার হয়। পরে তল্লাশি চালানোর সময় আরও এক জঙ্গির দেহ মেলে। অনেক রাত পর্যন্ত এলাকা থেকে গুলির শব্দ মিলেছে বলে স্থানীয় সূত্রে খবর। অসমর্থিত সূত্রের খবর, জঙ্গিদের ছোড়া গুলিতে জখম হয়েছেন ৩ জওয়ান। 

 

[আরও পড়ুন: মুম্বইয়ে বহুতল ধসে বাংলার ৩ পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু, আশঙ্কাজনক আরও এক]

এদিকে রবিবার সকালে আরও একটি অপারেশন শুরু করে যৌথবাহিনী। কুলগামের মুন্নাদ এলাকায় জেহাদিদের আত্মগোপন করে থাকার খবর মেলে। তার পরই এলাকা ঘিরে ফেলে বাহিনী। বেশ কয়েক ঘণ্টা গুলির লড়াইয়ের পর এক জেহাদির মৃত্যুর খবর মিলেছে। এলাকা ঘিরে রেখে চলছে তল্লাশি অভিযান। মৃত জঙ্গির নাম, পরিচয় এখনও জানা যায়নি। সবমিলিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় বড় সাফল্য পেল কাশ্মীরের যৌথবাহিনী।

 

[আরও পড়ুন: Maharashtra: টানা বৃষ্টিতে ক্রমেই ভয়াবহ হচ্ছে পরিস্থিতি, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১২, নিখোঁজ বহু]

উল্লেখ্য, কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদ হওয়ার পর থেকেই সেখানে সন্ত্রাস ছড়ানোর মরিয়া চেষ্টা করছে পাকিস্তান। ভারতীয় সেনার ভয়ে সরাসরি সংঘাতে না গিয়ে জঙ্গিদের মদতে ছায়াযুদ্ধ চালাচ্ছে পড়শি দেশ পাকিস্তান (Pakistan)। এহেন পরিস্থিতিতে ভারতও সন্ত্রাস দমনে সেনা অভিযান বাড়িয়ে দিয়েছে। গত জুন মাসেই কাশ্মীরে লস্করের আরও এক কমান্ডার নাদিম আবরার-সহ দুই জঙ্গিকে নিকেশ করে সেনাবাহিনী। কাশ্মীর উপত্যকায় নিরাপত্তা বাহিনীর উপর হামলা ও হত্যার একাধিক ঘটনায় জড়িত ছিল সে। সব মিলিয়ে কাশ্মীর উপত্যকায় লস্করের কোমর ভেঙে সন্ত্রাসের শিকড় উপড়ে ফেলতে বদ্ধপরিকর ভারতীয় সেনাবাহিনী।

Advertisement
Next