Advertisement

হিন্দু সভ্যতা ধ্বংস করতে মুসলিমরা মন্দিরে আসে কেন, সাম্প্রদায়িকতা উসকে প্রশ্ন বিজেপি নেতার

03:23 PM May 29, 2018 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হিন্দুরা কোনওদিন মসজিদ বা মাদ্রাসায় যায় না। কারণ তাদের তা যোগ্যতা নেই। তাহলে মুসলিমরা কেন মন্দিরে আসে? বিভেদ উসকে একেবারে সরাসরি এ প্রশ্ন তুললেন বিজেপি বিধায়ক রাজকুমার থুকরাল।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[  আরএসএসের আমন্ত্রণ গ্রহণ প্রণবের! ভাবমূর্তি বাঁচাতে আসরে কংগ্রেস ]

হিন্দু তরুণীকে ভালবাসার অপরাধে গণধোলাই মুসলিম যুবককে। পিঠ পেতে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন এক শিখ পুলিশ অফিসার। দিনকয়েক আগে ঘটে যাওয়া এ ঘটনার ছবি যেন দেশের আত্মার ছবি বলে প্রতিভাত হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনরা ব্যাপক হারে ছড়িয়ে দিয়েছিলেন সে ছবি। কুর্নিশ জানিয়েছিলেন বিশিষ্টরাও। পরনে খাকি অফিসার গগনদীপ সিং জানিয়েছিলেন, যে কোনও দুর্গতকে রক্ষা করাই তাঁর কর্তব্য। একজন মানুষ হিসেবেই তা করা উচিত। তিনি যদি উর্দিতে নাও থাকতেন তাহলেও এ কাজ করতেন। দেশের সম্প্রীতির ছবি যখন উঠে এসেছিল, ঠিক তখনই প্রশ্নে তা খানখান করে দিলেন বিজেপি বিধায়ক রাজকুমার। তাঁর দাবি, হিন্দুরা তো কখনও মসজিদে বা মাদ্রাসায় যায় না। কারণ সেখানে যাওয়ার যোগ্য বলে তাঁরা নিজেদের মনে করেন না। তাহলে মুসলমানরাই বা কেন মন্দিরে আসেন? হিন্দু সভ্যতা ধ্বংস করতেই কি তাঁরা এ কাজ করেন? প্রশ্ন বিজেপি বিধায়কের।

উত্তরাখণ্ডের রামনগরে গিরিজা মন্দিরের বাইরেই ইরফান নামে ওই যুবককে পাকড়াও করেছিল একদল হিন্দু। হিন্দু তরুণীকে ভালবাসার অপরাধেই তাকে ধরে মারধর করা হয়। ঠিক সেই সময় এগিয়ে আসেন শিখ অফিসার গগনদীপ সিং। রক্ষা করেন ইরফানকে। ফলত দেশের এক অসাম্প্রদায়িক ছবিই ফুটে উঠেছিল। কিন্তু বিজেপি বিধায়কের প্রশ্ন ফের যেন সেই ভেদাভেদই উসকে দিল।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

 ‘ঈশ্বর’ই আমার মেয়েকে ধর্ষণ করল, সাজাপ্রাপ্ত আসারামের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন নির্যাতিতার মা ]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

The post হিন্দু সভ্যতা ধ্বংস করতে মুসলিমরা মন্দিরে আসে কেন, সাম্প্রদায়িকতা উসকে প্রশ্ন বিজেপি নেতার appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next