নিয়োগ করা যাবে না অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের, ইন্ডিয়ান ব্যাংকের বিজ্ঞপ্তির তীব্র প্রতিবাদ মহিলা কমিশনের

05:09 PM Jun 20, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের কাজে নিয়োগ করা যাবে না, এমন নির্দেশই দেওয়া হয়েছিল ইন্ডিয়ান ব্যাংকের (Indian Bank) তরফে। এই নির্দেশিকার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে দিল্লির মহিলা কমিশন (Delhi Commission of Women)। অবিলম্বে এই নোটিস প্রত্যাহার করতে হবে, এই দাবি জানানো হয়েছে মহিলা কমিশনের তরফে। গোটা ঘটনায় আরবিআই গভর্নরের হস্তক্ষেপও চেয়েছেন তাঁরা। স্বতঃপ্রণোদিত হয়েই এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে দিল্লির মহিলা কমিশন।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

ঠিক কী বলা হয়েছিল ইন্ডিয়ান ব্যাংকের নোটিসে? তিন বা চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের (Pregnant Woman) সাময়িক ভাবে আনফিট ঘোষণা করতে হবে। সেই যুক্তি দেখিয়েই তাঁদের নিয়োগ করা হবে না। যদি কাজে যোগ দেওয়ার সমস্ত পরীক্ষায় পাশও করেন তাঁরা, তবুও তাঁদের কাজে নিয়োগ করা হবে না। তবে ভবিষ্যতে ব্যাংকে কাজ করার সুযোগ পাবেন তাঁরা। কিন্তু কমিশনের তরফে বলা হয়েছে, এই পদক্ষেপ করার ফলে কর্মক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা কমে যাবে তাঁদের। কেরিয়ারে সমস্যা তৈরি হবে এই পদক্ষেপের ফলে। 

[আরও পড়ুন: রাষ্ট্রপতি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন গোপালকৃষ্ণ গান্ধী, এবার উঠে আসছে যশবন্ত সিনহার নাম!]

প্রতিবাদ জানিয়ে দিল্লির মহিলা কমিশনের তরফে বলা হয়েছে, লিঙ্গ বৈষম্যকে সমর্থন করে এই ধরনের নির্দেশ। এছাড়াও চাকরিক্ষেত্রে অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের যা সুযোগ সুবিধা দেওয়ার আইন রয়েছে, তার পরিপন্থী। কমিশন আরও বলেছে, অবিলম্বে এই নির্দেশ প্রত্যাহার করতে হবে ইন্ডিয়ান ব্যাংককে। সেই সঙ্গে আধিকারিকদের কাছে জবাব তলব করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের শুরুর দিকেই স্টেট ব্যাংকের তরফেও একই রকম নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তবে চাপের মুখে পড়ে সেই নির্দেশ প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয় কর্তৃপক্ষ।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

গোটা বিষয়ে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার গভর্নরের হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিয়েছে দিল্লির মহিলা কমিশন। এই সংস্থার প্রধান স্বাতী মালিওয়াল বলেছেন, দেশের প্রধান ব্যাংকের তরফ থেকে এরকম নারী বিদ্বেষী নির্দেশিকা জারি করা হচ্ছে। সতর্কতা জারি করতে হবে যেন এই ধরনের নির্দেশ দেওয়া না  হয়। দেশের সমস্ত ব্যাংককে বলতে হবে যেন এইরকম বিদ্বেষ মূলক নীতি প্রণয়ন করা থেকে বিরত থাকে তারা। স্বাতী বলেছেন, “একজন অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে ‘আনফিট’ বলে দেওয়া অত্যন্ত অপমানজনক। পিতৃতান্ত্রিক মানসিকতার প্রতিফলন ঘটে এই ধরনের নির্দেশ থেকে।”

[আরও পড়ুন: ‘নূপুর শর্মার মন্তব্য নিয়ে আব্বাসকে জিজ্ঞাসা করুন’, ‘বন্ধু’র কথা তুলে মোদিকে খোঁচা ওয়েইসির]

Advertisement
Next