Advertisement

Farmers Protest: উত্তরপ্রদেশে যোগীর বিরুদ্ধে প্রচার করবে কৃষকরা, মহাপঞ্চায়েত থেকে ঘোষণা নেতৃত্বের

05:32 PM Sep 05, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লড়াই শেষ হয়নি। আগামী দিনে আরও জোরদার হবে লড়াই। কেন্দ্রের বিজেপি (BJP) সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন রাজ্যে প্রচার চালাবে তাঁরা। বিশেষ করে উত্তরপ্রদেশে নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করবে কৃষকরা। রবিবার উত্তরপ্রদেশে (Uttar Pradesh) মহাপঞ্চায়েতে এমন সিদ্ধান্তই নিলেন আন্দোলনকারী কৃষকরা।

Advertisement

বিতর্কিত কৃষি আইনের (Farmers Law) বিরুদ্ধে রাজধানী দিল্লিতে প্রায় এক বছর ধরে অবস্থান করছেন কৃষকরা। কোনও কোনও রাজ্যে তারা মহাপঞ্চায়েতে আয়োজন করছেন। এদিন যেমন যোগীরাজ্যের মুজফফরনগর এলাকায় জমায়েত করেছিলেন কয়েক হাজার কৃষক। ছিলেন নেতা রাকেশ টিকাইতও। দীর্ঘসময় আলোচনার পর আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তেই অনড় থেকেছেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: Farmers Protest: কৃষক সমস্যা না মিটলে মুশকিল পাঞ্জাব, উত্তরপ্রদেশ জয়! আলোচনা RSS-এর বৈঠকে]

এদিন মুজফফরনগরের জিআইসি ময়দানে জমায়েত করেছিলেন কৃষকরা। সেখানে উত্তরপ্রদেশের একসময়ের প্রভাবশালী নেতা মহেন্দ্র সিং টিকাইতের ছেলে রাকেশ টিকাইতও। তাঁর কথায়, “কেন্দ্র বলেছিল, হাতেগোনা কয়েকজন কৃষক আন্দোলন করছে। এবার ওঁরা দেখুক ঠিক কতজন কৃষক আন্দোলন করছে। আমাদের গলা চড়াতে হবে তবে যদি সাংসদ আমাদের কথা শোনে।” তিনি আরও জানান, “সারা দেশজুড়ে আমাদের আন্দোলন চলবে। দেশকে কিছুতেই বিক্রি হতে দেব না। এদিন কৃষকরা আন্দোলনের তীব্রতা আরও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়। যে সমস্ত রাজ্যে ভোট রয়েছে সেখানে বিজেপির বিরুদ্ধে তাঁরা প্রচার করবেন বলে জানিয়েছেন।

বছর ঘুরলেই উত্তরপ্রদেশে বিজেপির লিটমাস টেস্ট। যোগীর রাজ্যেও গ্রামে-গ্রামে সভা করতে চলেছেন কৃষকরা। যেখানে যোগী আদিত্যনাথ তথা বিজেপির বিরুদ্ধে প্রচার সারবেন তাঁরা। স্বাভাবিকভাবেই উত্তরপ্রদেশের নির্বাচনের আগেই কৃষক আন্দোলনের ঝাঁজে ফের পুড়তে চলেছে বিজেপি। ভোটবাক্সে এই আন্দোলনের কোনও প্রভাব পড়ে কি না, সেটাই এখন দেখার। 

[আরও পড়ুন: পিছনে বাইডেন, জনসন! বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা Narendra Modi, বলছে মার্কিন সমীক্ষা]

তাৎপর্যপূর্ণভাবে এদিন কৃষকদের জমায়েতের ছবি পোস্ট করেছেন বিজেপি সাংসদ বরুণ গান্ধী।  তিনি টুইটারে লেখেন, “মুজফফরনগরে কয়েক লক্ষ কৃষক জমায়েত করেছিলেন। এরা আমাদের নিজেদের রক্ত-মাংস। এদের সমস্যার সমাধান করার জন্য ফের আলোচনা প্রয়োজন। কথা বলতে হবে। সমস্যার সমাধান করতে হবে।”

 

Advertisement
Next