Advertisement

‘ভারত বন্ধুত্বের মর্যাদা দিতে জানে, আবার চোখে চোখ রাখতেও জানে’, চিনকে বার্তা মোদির

04:44 PM Jun 28, 2020 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লাদাখে চিনা সেনার আগ্রাসন নিয়ে শেষবার মুখ খুলেছিলেন বিরোধীদের নিয়ে করা সর্বদল বৈঠকের পর। সেবারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) বয়ান নিয়ে বিস্তর বিতর্ক হয়েছে। রবিবার ৬৬ তম ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে ফের লাদাখ ইস্যুতে মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী। আর এবার কোনও লুকোছাপা না রেখে সরাসরি চিনকে হুঁশিয়ারি দিয়ে দিলেন মোদি।

Advertisement

‘মন কি বাত’-এ (Mann ki Baat) প্রধানমন্ত্রী বললেন,”লাদাখে (Ladakh) ভারতের মাটিতে যারা চোখ তুলে তাকিয়েছিল, তারা যোগ্য জবাব পেয়েছে। ভারত যেমন বন্ধুত্বের মর্যাদা দিতে জানে, তেমনি চোখে চোখ রেখে শত্রুকে যোগ্য জবাব দিতেও জানে। লাদাখে আমাদের বীর সৈনিকরা দেখিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা কখনওই ভারত মাতার গৌরবে আঁচ পড়তে দেবেন না।” লাদাখের সংঘর্ষে শহিদ জওয়ানদের প্রতি সম্মান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন,”লাদাখে আমাদের যে বীর জওয়ানরা শহিদ হয়েছেন, তাঁদের সামনে গোটা দেশ আজ শ্রদ্ধায় অবনত। তাঁদের পরিবারের মতোই গোটা দেশ তাঁদের হারানোর দুঃখে কাতর।”

[আরও পড়ুন: প্রশ্নের পালটা প্রশ্ন! যুদ্ধের আবহেও চিন যোগ নিয়ে ‘কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি’ বিজেপি-কংগ্রেসের]

‘মন কি বাত’-এ প্রধানমন্ত্রী ফের আত্মনির্ভরতার পক্ষে সওয়াল করেছেন। তিনি বলছেন,”আমাদের শহিদ জওয়ানরা যে সংকল্প নিয়ে দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন, আমাদেরও সেই সংকল্প নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। আমাদের চেষ্টা করতে হবে যাতে সীমা সুরক্ষায় দেশের শক্তি আরও বাড়ে। আমাদের প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ‘আত্মনির্ভর’ হতে হবে।” এরপরই পূর্ববর্তী সরকারগুলিকে কটাক্ষ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “স্বাধীনতার আগে ভারত প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে অনেক উন্নত ছিল। আমাদের এখানে অনেক অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টারি ছিল। কিন্তু আমরা স্বাধীনতার পর সেই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগায়নি। যেসব দেশ আমাদের অনেক পিছনে ছিল, সেসব দেশও এগিয়ে গিয়েছে।”

The post ‘ভারত বন্ধুত্বের মর্যাদা দিতে জানে, আবার চোখে চোখ রাখতেও জানে’, চিনকে বার্তা মোদির appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next