বেজে উঠল ‘কদম কদম বাড়ায়ে যা’, ইন্ডিয়া গেটে নেতাজির হলোগ্রাম মূর্তি উদ্বোধন মোদির

09:14 PM Jan 23, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর (Subhas Chandra Bose) ১২৫তম জন্মবার্ষিকী (Parakram Diwas) উপলক্ষে ইন্ডিয়া গেটে (India Gate) বসতে চলেছে গ্রানাইটের নেতাজির পূর্ণাবয়ব মূর্তি। তবে যতদিন না আসল মূর্তিটি তৈরি হচ্ছে ততদিন সেই স্থানে থাকবে একইরকম একটি হলোগ্রাম মূর্তি (Hologram statue)।কথাই ছিল আজ রবিবার নেতাজির জন্মদিনে হলোগ্রাম মূর্তির উন্মোচন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। সেই মতোই সন্ধে ৬টা বেজে ৪০ মিনিট নাগাদ নেতাজির মূর্তির উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

Advertisement

নেতাজি মূর্তি উন্মোচন করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “ভারতের বীর সন্তান নেতাজিকে কোটি কোটি প্রণাম। এ এক ঐতিহাসিক দিন। স্বাধীন ভারতের বিশ্বাস জুগিয়ে ছিলেন নেতাজি। এই মূর্তি গোটা দেশের শ্রদ্ধাঞ্জলি। নেতাজি সেই ব্যক্তি, যিনি ব্রিটিশদের বলেছিলেন, ভিক্ষা নেব না, স্বাধীনতা অর্জন করব। এটা দুর্ভাগ্যের যে স্বাধীনতার পর বহু মহান দেশনায়কের বলিদানকে মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছে। এই মূর্তি স্বাধীনতার নায়কের প্রতি দেশের শ্রদ্ধাঞ্জলি।”

এদিন কলকাতায় নেতাজির বাসভবনে আসার অভিজ্ঞতার কথা স্মরণ করেন মোদি। বলেন, “স্বাধীন ভারতের স্বপ্নপূরণ এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। পৃথিবীর কোনও শক্তি সেই স্বপ্নপূরণের লক্ষ্য আটকাতে পারবে না। আমাদের আরও অনেক পথ পেরোতে হবে।”  

Advertising
Advertising

নেতাজি মূর্তি উদ্বোধনের কথা আগেই টুইট (Tweet) করে জানিয়ে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। লিখেছিলেন,”  আজ সন্ধে ৬টায় ইন্ডিয়া গেটে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর হলোগ্রাম মূর্তি উন্মোচন করার জন্য সকলের অসীম উদ্দীপনা দেখে আমি গর্বিত। পাশাপাশি এই অনুষ্ঠান থেকেই ‘সুভাষ চন্দ্র বসু আপদা প্রবন্ধন পুরস্কার’ও বিতরণ করা হবে”।

রবিবার ২০১৯, ২০২০, ২০২১ এবং ২০২২ সালের ‘সুভাষচন্দ্র বসু আপদা প্রবন্ধন পুরস্কার’ও প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। ‘সুভাষ চন্দ্র বসু আপদা প্রবন্ধন পুরস্কার’ খাতে নির্বাচিত সংস্থা পাচ্ছে ৫১ লক্ষ টাকা করে পুরস্কারমূল্য। ব্যক্তিগত ক্ষেত্রে ৫ লক্ষ টাকা করে পুরস্কারমূল্য ধার্য করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ৩০,০০০ লুমেন ফোরকে প্রজেক্টরের মাধ্যমে অদৃশ্য হাই গেইন সম্পন্ন ৯০ শতাংশ স্বচ্ছ হলোগ্রাফিক স্ক্রিনে তৈরি করা হয়েছে নেতাজির থ্রিডি অবয়বটি। আজ যেটি উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

আরও পড়ুন: ‘যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো শক্তিশালী করবই’, নেতাজির জন্মদিনে কেন্দ্রকে বিঁধে প্রতিজ্ঞা মমতার

এদিকে নেতাজির মূর্তি তৈরির দায়িত্বপ্রাপ্ত শিল্পীর মন্তব্যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। ন্যাশনাল মডার্ন আর্ট গ্যালারির ডিরেক্টর অদ্বৈত গদানায়কের নেতৃত্বে তৈরি হচ্ছে মূর্তি। তিনি এদিন বলেন, “শুধু নেতাজির দৃঢ়তার পরিচয় দিতে কঠিন গ্রানাইট বাছা হয়নি। এর রং কালো। যা মহাকালী ও শ্রীকৃষ্ণেরও রং। ফলে নেতাজির মূর্তি তৈরি করতে গ্রানাইটের থেকে ভাল উপাদান আর কিছুই হতে পারত না।”

[আরও পড়ুন: ‘একটা স্ট্যাচু করেই নেতাজিকে ভালবাসা যায় না’, মোদির ‘দেখনদারি’ নিয়ে তোপ মমতার]

শিল্পীর এই বক্তব্য নতুন করে আরেক বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। ইতিহাস প্রমাণ করে, শুধু সাম্রাজ্যবাদই নয়, সুভাষচন্দ্র বসু ছিলেন সাম্প্রদায়িকতারও চরমতম বিরোধী। তাঁর মূর্তির সঙ্গে কীভাবে জুড়ে যেতে পারে এই ধরনের বক্তব্য? প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। 

Advertisement
Next