ফের ধাক্কা, চিন থেকে বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশ আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা চাপাল কেন্দ্র

02:50 PM Jul 03, 2020 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিএসএনএল (BSNL)-রেল-সড়ক প্রকল্প থেকে আগেই চিনা সংস্থাগুলিকে ঘাড়ধাক্কা দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। এবার চিন (China) ও পাকিস্তান (Pakistan) থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী যন্ত্রাংশ (power supply equipment ) আমদানির উপরও ‘নিষেধাজ্ঞা’ চাপাল মোদি সরকার। দেশে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থাগুলি যাতে বেজিং থেকে কোনও যন্ত্রাংশ না কেনেন, সে বিষয় শুক্রবার আবেদন জানালেন কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী আর কে সিং (R K Singh)। তাঁর আশঙ্কা, সেই যন্ত্রাংশে ম্যালওয়্যার (Malware) থাকতে পারে। যা দেশের বিদ্যুৎ পরিকাঠামোর ক্ষতি করবে। ফলে সে দেশ থেকে কোনও যন্ত্র আমদানি করতে গেলে সরকারি অনুমতি নিতে হবে।  সরকার পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখে অনুমতি দিলে তবেই চিন থেকে যন্ত্রাংশ আমদানি করা যাবে বলে জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। 

Advertisement

পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (LAC) এলাকায় ভারত-চিনের মধ্যে টানটান স্নায়ুযুদ্ধ চলছে। গত ১৫ জুন লালফৌজের অতর্কিত হামলায় শহিদ হয়েছেন ২০ ভারতীয় জওয়ান। এরপরই উত্তেজনার পারদ আরও চড়েছে। চিনের উপর সাঁড়াশি চাপ দিচ্ছে ভারত। একদিকে সীমান্তে সমরসজ্জা বাড়াচ্ছে সেনা। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক মহলে কূটনৈতিকভাবে চিনকে পর্যদুস্ত করছে ভারতের বন্ধু রাষ্ট্রগুলি। পাশাপাশি বেজিংকে ভাতে মারতেও বদ্ধপরিকর মোদি সরকার। আর তাই একের পর এক ‘ইকোনমিক স্ট্রাইক’ করছে কেন্দ্র। সেই মাস্টার প্ল্যানে নয়াতম সংযোজন হল, চিন থেকে বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশ কেনার উপর নিষেধাজ্ঞা চাপানো।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন : এবার প্রতিরক্ষায় ‘আত্মনির্ভর’ ভারত, দেশেই তৈরি হবে সুখোই যুদ্ধবিমান]

শুক্রবার দেশের বিভিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভারচুয়াল বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আর কে সিং। সেখানে তিনি জানান, “ভারতে বর্তমানে সংস্ত যন্ত্রাংশ তৈরি হচ্ছে। তারপরেও গত বছর দেশে ৭১ হাজার কোটি টাকার বৈদ্যুতিন যন্ত্রাংশ আমদানি করা হয়েছিল। যারমধ্যে ২১ হাজার কোটি টাকার যন্ত্রাংশ এসেছিল চিন থেকে।” এরপরই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, “একটা দেশ আমাদের ভূখণ্ড দখলের চেষ্টা করবে। আমাদের জওয়ানদের হত্যা করবে। অথচ সে দেশ থেকে আমরা বিভিন্ন সামগ্রী আমদানি করব। এটা তো মেনে নেওয়া যায় না।” একইসঙ্গে তিনি জানান, “চিন ও পাকিস্তান থেকে আমরা কিছুই আমদানি করব না। আমরা (কেন্দ্র) ওই দেশগুলি থেকে আমদানিতে অনুমতি দেব না।” কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর আশঙ্কা, ওই সমস্ত যন্ত্রাংশে ম্যালওয়্যার থাকতে পারে। যা দেশের বিদ্যুৎ সরবরাহ পরিকাঠামোর ক্ষতি করতে পারে। তাই সেই দেশগুলি থেকে আমদানি করার আগে সরকারি অনুমতি নিতে হবে। সরকারি পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখে অনুমতি দেবে।

[আরও পড়ুন : সংক্রমণের মধ্যেই স্বস্তি দিচ্ছে সুস্থতার হার, একদিনে দেশে করোনামুক্ত ২০ হাজার মানুষ]

The post ফের ধাক্কা, চিন থেকে বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশ আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা চাপাল কেন্দ্র appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next