Mamata Banerjee: সংসদে প্রতিবাদ অস্ত্রেই কেন্দ্রের উপর চাপ, দিল্লি পৌঁছে রণকৌশল স্থির করে দিলেন মমতা

10:11 PM Aug 04, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: ঠাসা কর্মসূচি নিয়ে চারদিনের সফরে দিল্লি গিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। আর রাজধানীতে পা রেখেই কেন্দ্রের উপর চাপ জারির রাখার কৌশল বাতলে দিলেন তিনি। সাংসদদের সঙ্গে আলোচনা করে নিলেন ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের খসড়াও। 

Advertisement

Advertising
Advertising

 

বৃহস্পতিবার বিকেলে দিল্লি (Delhi) পৌঁছে প্রথমেই দলীয় সাংসদদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন তৃণমূল নেত্রী। চা-চক্রে সঙ্গে ছিলেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও (Abhishek Banerjee)। এখন সংসদে বাদল অধিবেশন চলছে। প্রায় সব সাংসদই তাই দিল্লিতে রয়েছেন। তাঁদের সঙ্গে আলোচনায় বসে নেত্রী সংসদে কেন্দ্রকে চাপে রাখার স্ট্র্যাটেজি ঠিক করে দিলেন। তাঁর পরামর্শ, কেন্দ্রের ‘জনবিরোধী’ ইস্যুগুলিকে সামনে রেখে প্রতিবাদের রাস্তায় হাঁটতে হবে। সংসদের ভিতরে-বাইরে ক্রমাগত প্রতিবাদই একমাত্র শক্তিশালী অস্ত্র হয়ে উঠতে পারে। শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে বৈঠক করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেদিকেই আপাতত নজর রাজনৈতিক মহলের।

[আরও পড়ুন: হাই কোর্টে ধাক্কা ঝাড়খণ্ডের ধৃত বিধায়কদের, সিআইডিকে তদন্ত চালানোর অনুমতি বিচারপতির]

এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করার পর বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার, সুস্মিতা দেবরা। তাঁরাই জানান, বাদল অধিবেশনে সংসদে তৃণমূল ঠিক কোন পথে লড়বে, দিকনির্দেশ দিয়েছেন নেত্রী। বলেছেন, সমস্ত ইস্যু নিয়ে প্রতিবাদে সরব হতে হবে। কোনও ইস্যুই হাতছাড়া করা যাবে না। কেন্দ্রের একাধিক সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় চাপে রাখতে প্রতিবাদই একমাত্র অস্ত্র।

[আরও পড়ুন: মিটল ভিসা সমস্যা, নির্ধারিত দিনে আমেরিকাতেই ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টি-২০, খেলতে পারেন রোহিত]

সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার বলেন, ”দেশজুড়ে যে পরিস্থিতি, তার জন্য দায়ী কেন্দ্রের একাধিক জনবিরোধী নীতি। সংসদ অধিবেশনের শুরু থেকে আমরা এ নিয়ে সরব। রোজই আমাদের বিক্ষোভ কর্মসূচি চলছে। এই মুহূ্র্তে আমাদের দলের চেয়ারপার্সন দিল্লি এসেছেন। দলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও রয়েছেন। আজ আমরা সবাই আলোচনায় বসেছিলাম। কোন পথে প্রতিবাদ চলবে, তা তাঁরা ঠিক করে দিয়েছেন। প্রতিটি ইস্যুকেই সমান গুরুত্ব দিয়ে তুলে ধরতে হবে।” 

একই বক্তব্য দলের রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেবের (Susmita Dev)। তিনিও জানালেন, নেত্রী সংসদে কেন্দ্রকে চাপে রাখার রণকৌশল স্থির করে দিয়েছেন। তাছাড়া যেভাবে প্রতিদিন তৃণমূলের কর্মসূচি চলছে, তা এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথাও বলেছেন। পরে তৃণমূলের তরফে লিখিত বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, ২০২৪ লোকসভা নির্বাচন নিয়েও আলোচনা করেন নেত্রী। 

This browser does not support the video element.

Advertisement
Next