Advertisement

কেন্দ্র ও রাজ্যে ভ্যাকসিনের পৃথক দাম কেন? মোদি সরকারকে বিঁধল সুপ্রিম কোর্ট

04:40 PM Apr 30, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র ও রাজ্যের ভ্যাকসিনের দামের তারতম্য কেন? সরকার যদি দেশকে করোনামুক্ত (CoronaVirus) করার সংকল্প নিয়েই থাকে, তাহলে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার আলাদা আলাদা দামে টিকা কেন কিনবে? মোদি সরকারকে বিঁধে প্রশ্ন তুলল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। শুধু তাই নয়, করোনা সংক্রান্ত এক মামলায় সুপ্রিম কোর্ট সাফ জানিয়ে দিয়েছে, করোনা সংক্রান্ত কোনও তথ্য যাতে গোপন করা না হয়, তা নিশ্চিত করতে হবে আদালতকেই। করোনা মহামারী নিয়ে দায়ের হওয়া স্বতঃপ্রণোদিত মামলায় বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ কেন্দ্রকে একপ্রকার তিরস্কারই করেন। টিকার দাম থেকে বণ্টন, কেনার প্রক্রিয়া সব কিছুতেই এত বৈষম্য প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের।

Advertisement

প্রসঙ্গত, ভারতে করোনার টিকা (Corona Vaccine) উৎপাদনকারী দুই সংস্থা সেরাম ইনস্টিটিউট এবং ভারত বায়োটেক ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারগুলির কাছে কী দামে টিকা বিক্রি করা হবে, তা ঘোষণা করে দিয়েছে। যাতে দেখা যাচ্ছে, কেন্দ্রের তুলনায় রাজ্য সরকারগুলিকে টিকা কিনতে হবে দ্বিগুণ বা তারও বেশি দামে। এ প্রসঙ্গে তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করে শীর্ষ আদালতের পর্যবেক্ষণ, “আপনাদের কাছ থেকে ১৫০ টাকা নিলেও টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলি রাজ্যগুলির কাছ থেকে ৩০০-৪০০ টাকা নিচ্ছে। দেশের নাগরিক হিসেবে এই বৈষম্য মানবো কেন আমরা? এ ক্ষেত্রে খরচের ব্যবধান তো প্রায় ৩০-৪০ হাজার কোটি টাকা! টাকা দিয়েই যখন কিনব, তখন এই বিভেদ কেন? আমরা কোনও নির্দেশ দিচ্ছি না, কিন্তু আপনাদের বিষয়টি ভেবে দেখা উচিত।’’ শীর্ষ আদালতের কটাক্ষ, আমেরিকায় অ্যাস্ট্রাজেনেকাও (AstraZeneca) এর থেকে কম দামে টিকা বিক্রি করছে বলেও মন্তব্য করে আদালত।

[আরও পড়ুন: ভাবমূর্তি নষ্টের চেষ্টা করছে মিডিয়া, অতিমারীতে ভোট নিয়ে মাদ্রাজ হাই কোর্টে পালটা দাবি কমিশনের]

কেন্দ্র জানিয়েছে, ১ মে থেকে দেশজুড়ে ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সিদের টিকাকরণ শুরু হবে। দুই সংস্থা যে পরিমাণ টিকা তৈরি করবে তার অর্ধেক কেন্দ্র কিনবে। এবং তা রাজ্যগুলির মধ্যে বণ্টন করবে। আর বাকি অর্ধেক রাজ্যগুলি সরাসরি বেশি দামে কিনবে প্রস্তুতকারী সংস্থার কাছ থেকে। অনেক রাজ্যই ইতিমধ্যে এই প্রক্রিয়ার বিরোধিতা করেছে। কেন্দ্রের থেকে বেশি দাম দিয়ে তারা টিকা কিনতে সমর্থ নয় বলেও জানিয়েছে। আদালতের প্রশ্ন, ‘‘কেন্দ্র নিজে কেন ১০০ শতাংশ টিকা কিনছে না? কারণ সমানভাবে টিকা বণ্টন সেখান থেকেই সবচেয়ে ভাল ভাবে হতে পারে। যে ৫০ শতাংশ কেন্দ্র দেবে বলছে, সেটা কখন দেওয়া হবে, কাকে আগে দেওয়া হবে, তা নিয়ে কোনও ঘোষণা নেই কেন? কেন্দ্র বা রাজ্য যে-ই টিকা কিনুক না কেন, তা কেনা হচ্ছে সাধারণ মানুষের জন্য। সেক্ষেত্রে আলাদা দাম কেন?’’

[আরও পড়ুন: ‘মাকে নিয়ে অশ্বত্থ গাছের তলায় বসুন, অক্সিজেন বাড়বে’, নিদান যোগীর পুলিশের]

এদিকে, করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এবং মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে যে প্রশ্ন অস্ফুটে উঠছে, সেটা নিয়েও কেন্দ্রকে সরাসরি সতর্ক করে দিয়েছে শীর্ষ আদালত। আদালতের সাফ কথা, “কোনও নাগরিক সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনও প্রশ্ন তুলছে মানেই মিথ্যা বলছে এটা আমরা ধরে নিতে পারি না। যদি কেউ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশ্ন তোলে তাঁর কথা শোনা উচিত। আমরা চাই না কোনওরকম তথ্যগোপনের অভিযোগ উঠুক।”

Advertisement
Next