Advertisement

KMC Election: প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষ, পুরভোটে দ্বিতীয় তালিকা ঘোষণার আগেই বিক্ষোভ কংগ্রেস দপ্তরে

08:41 PM Nov 28, 2021 |

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: প্রথম দফার প্রার্থীতালিকা ঘোষণায় বিভ্রাট হয়েছে। কলকাতা পুরসভার (Kolkata Municipal Election) লড়াইয়ে কংগ্রেসের টিকিট পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ভোলবদলে তৃণমূলে (TMC) আছেন বলে বার্তা দিয়েছেন বিদায়ী কাউন্সিলর পার্থ মিত্র। আর রবিবার দ্বিতীয় দফার তালিকা প্রকাশের আগে প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব জড়িয়ে পড়ল গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে। কয়েকজন কংগ্রেস (Congress) কর্মী প্রদেশ নেতৃত্বের বিরুদ্ধে বিধান ভবনে বিক্ষোভ দেখান। পরে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া হয়।

Advertisement

বামেদের (Left) সঙ্গে পুরভোটে জোট হবে না। আগেই জানিয়েছিল প্রদেশ নেতৃত্ব। নিজেদের অবস্থানে অনড় থেকে এখনও পর্যন্ত মোট ৯৫টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে বিধান ভবন। সব আসনেই প্রার্থী দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন দলের প্রাক্তন বিধায়ক অসিত মিত্র। তবে গতবার বামেরা যে আসনগুলিতে জয় পেয়েছিল, সেখানে প্রার্থী না দেওয়ার চেষ্টা হবে বলেও জানান তিনি।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: Kolkata Civic Polls: প্রস্তুতি তথৈবচ, ত্রিপুরার ফল দেখিয়ে কর্মীদের চাঙ্গা করতে চাইছে বিজেপি]

এদিকে দ্বিতীয় দিনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশের আগেই উত্তেজনা শুরু হয় প্রদেশ কংগ্রেসের দপ্তরে। দক্ষিণ ২৪ পরগনার বেশ কয়েকজন কংগ্রেস কর্মী বিধান ভবনে ঢুকে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। তাঁদের অভিযোগ, খিদিরপুর এলাকার এক প্রদেশ নেতা অকারণে জেলা কংগ্রেসের কাজকর্মের হস্তক্ষেপ করছেন। কলকাতা পুরসভা (KMC)এলাকায় যে ক’টি ওয়ার্ড দক্ষিণ ২৪ পরগনায় রয়েছে সেখানে প্রার্থী কারা হবেন, ওই নেতা ঠিক করে দিচ্ছেন। কর্মীদের বিক্ষোভ চলাকালীন অবশ্য প্রদেশ দপ্তরে কোন শীর্ষনেতা হাজির ছিলেন না। পরে প্রাক্তন বিধায়ক অসিত মিত্র এসে তাঁদের বোঝালে বিক্ষোভকারীরা ফিরে যান।

[আরও পড়ুন: Kolkata Civic Polls: ‘আমি তো তৃণমূলেই আছি’, কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সুরবদল বিদায়ী কাউন্সিলরের]

৮ নং ওয়ার্ডের ঘোষিত প্রার্থী তৃণমূলের বিদায়ী কাউন্সিলর পার্থ মিত্রর অবস্থান বদলের জেরে তড়িঘড়ি অন্য প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিধান ভবন। তাঁর জায়গায় প্রার্থী করা হয় তপন শীলকে।‌ যদিও ভয় পেয়েই ৮ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী মতবদল করেছেন বলে জানিয়েছে প্রদেশ নেতৃত্ব। এছাড়াও ১৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী বদলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আমির আলির বদলে প্রার্থী করা হয়েছে মহব্বত খানকে। প্রার্থী নিয়ে বিতর্কের মাঝেই এদিন আরও ২৯ টি ওয়ার্ডে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করল কংগ্রেস।

Advertisement
Next