Advertisement

বছরের শুরুতেই ভোরের আকাশে দেখা যাবে বিরল চতুষ্কোণ উল্কা বৃষ্টি, দাবি নাসা’র

10:48 AM Jan 01, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নতুন বছরের শুরুতেই মহাজাগতিক দৃশ্যে সাক্ষী হতে পারেন। এমনটাই দাবি করেছেন নাসা’র (NASA) বিজ্ঞানীরা। ২ থেকে ৩ জানুয়ারির মধ্যে আকাশে দেখা যাবে চতুষ্কোণ উল্কা বৃষ্টি। দাবি মহাকাশ গবেষকদের।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

কী এই চতুষ্কোণ উল্কা বৃষ্টি (Quadrantids meteor shower)? বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, সাধারণত ধুমকেতুর কণা এবং গ্রহাণুর ভাঙা অংশ এই ধরনের উল্কায় পরিণত হয়। পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে যখন তা প্রবেশ করে তখনই আগুন ধরে যায় আর আকাশে উজ্জ্বল কণার মতো প্রতিভাত হয়। ১৮২৫ সালে প্রথম এই ধরনের উল্কা বৃষ্টির পরিচয় পেয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা। তাকে চতুষ্কোণ উল্কা বৃষ্টির নাম দিয়েছিলেন। সাধারণত জানুয়ারির শুরুতেই এই উল্কা বৃষ্টি হয়ে থাকে। আকাশে অনেকক্ষণ ধরে তা জ্বলতে দেখা যায়। গবেষকদের অনুমান, ২০২১ সালে তা বায়ুমণ্ডলের অনেকটা জুড়ে দেখা যাবে।

[আরও পড়ুন: যেন ঘুমন্ত প্রাণী! সাইবেরিয়ায় উদ্ধার তুষার যুগের লোমশ গণ্ডার দেখে তাজ্জব বিজ্ঞানীরা]

কিন্তু কোথায় দেখা যাবে? বিজ্ঞানীদের দাবি, পৃথিবীর উত্তর গোলার্ধের আকাশে। আর তার মধ্যে ভারতবর্ষও পড়ছে। অর্থাৎ ভাগ্য ভাল থাকলে ভারতবাসী হিসেবে এই বিরল ঘটনার সাক্ষী আপনিও হতে পারেন। এর জন্য কয়েকটি বিষয়ের খেয়াল রাখতে হবে। বিজ্ঞানীদের দাবি, ২ এবং ৩ জানুয়ারির ভোররাতে অর্থাৎ সূর্য ওঠার ঠিক আগের মুহূর্তে এই মহাজাগতিক দৃশ্য দেখা যাবে। তা দেখার জন্য এমন এক স্থান বাছতে হবে যেখানে কৃত্রিম আলো একেবারেই নেই। কিছুক্ষণ থাকলেই আপনার চোখ অন্ধকারের সঙ্গে অভ্যস্ত হয়ে যাবে। শীতের সময়, তাই যথেষ্ট পরিমাণে গরম কাপড় নিয়ে যেতে হবে। কারণ আপনি আগুনও জ্বালাতে পারবেন না। তাতে অন্ধকার বিঘ্নিত হবে। স্লিপিং ব্যাগ থাকলে নিয়ে যাবেন। উত্তর-পশ্চিম দিকে পা দিয়ে আকাশের দিকে মুখ করে শুয়ে পড়বেন। সময় এবং সুযোগ হলেই চোখের সামনে প্রকৃতির ম্যাজিক দেখতে পাবেন। আর নিজের টেলিস্কোপ থাকলে তো সোনায় সোহাগা!

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: বছর শেষে রহস্যের হাতছানি! এবার দেশের এই শহরে দেখা মিলল সেই মনোলিথের]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next