‘কোচ অন্য খেলা খেলতেন’, ‘গুরু গ্রেগ’কে তীব্র আক্রমণ হরভজন-যুবরাজের

05:25 PM May 14, 2020 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গ্রেগ চ্যাপেল (Greg Chappell)। ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম বিতর্কিত চরিত্র। যে সীমিত সময়ের জন্য তিনি ভারতীয় দলের কোচ ছিলেন, সেই সময়কালই ভারতীয় ক্রিকেটের সবচেয়ে বিতর্কিত সময় হিসেবে পরিচিত। অনেকে বলেন, ওটাই ভারতীয় ক্রিকেটের জঘন্যতম সময়। হরভজন সিং (Harbhajan Singh), যুবরাজ সিংয়ের (Yuvraj Singh) মতো তারকারা যারা কিনা গ্রেগের আমলে দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন, তাঁরাও সম্ভবত তেমনই মনে করেন। অন্তত যেভাবে প্রাক্তন কোচকে ভাজ্জি আর যুবি আক্রমণ শানালেন, তাতে তেমনটাই মনে হচ্ছে।

Advertisement

দিন’কয়েক আগে এক সাক্ষাৎকারে চ্যাপেল দাবি করেন তাঁর জন্যই ধোনি ‘পাওয়ারফুল ব্যাটসম্যান’ থেকে ফিনিশারে পরিণত হয়েছে। গুরু গ্রেগ বলেন,”আমি ওকে একটা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলাম ও মাঠের সব জায়গা থেকে রান তুলতে পারে কিনা। আমি বলেছিলাম, আমাদের জিততে, হবে কিন্তু আমি চাই তুমিই মাঠে সেই জয়টা নিশ্চিত কর। তুমি বল মাটিতে রেখে খেলো।” চ্যাপেলের এই মন্তব্যকে হাতিয়ার করেই ভাজ্জি তাঁকে আক্রমণ করেন। টিম ইন্ডিয়ার সর্বকালের সেরা অফস্পিনার বলেন, তিনি ধোনিকে মাঠে রেখে খেলতে বলেছিলেন কারণ কোচ চাইতেন সবইকে স্টেডিয়ামের বাইরে বের করে দিতে, তিনি অন্যরকম গেম খেলতেন।” হরভজনের সুরে সুর মিলিয়ে চ্যাপেলকে তীব্র কটাক্ষ করলেন যুবরাজও। তিনি মনে করিয়ে দেন, চ্যাপেল তাঁকে আর ধোনিকে বলেছিলেন ‘শেষ দশ ওভারে কোনও ছক্কা হাঁকাবে না।’ একটি টুইটে তিনি শুধু চ্যাপেলের সেই উক্তিটি লেখেন এবং একটি হাসির ইমোজি দেন।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ‘একদিন ধোনির কাছে সবকিছুর জবাব চাইব’, বলছেন ‘অভিমানী’ মনোজ তিওয়ারি]

গ্রেগ চ্যাপেল ২০০৫ সালে দলের দায়িত্ব নেন। দায়িত্ব নিয়েই তৎকালীন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে সরিয়ে দেন তিনি। তাঁকে দল থেকেও বাদ দেওয়া হয়। পরিবর্তে অধিনায়ক করা হয় রাহুল দ্রাবিড়কে। পরে দ্রাবিড়কেও সরানোর চেষ্টা করেন গ্রেগ। তবে, তাঁর অধিনায়কত্বের প্রস্তাবে রাজি হননি শচীন। গ্রেগের অধীনেই ভারত ২০০৭ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছে হারে। এবং টুর্নামেন্টের গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে যায়। তারপরই সরিয়ে দেওয়া হয়।

The post ‘কোচ অন্য খেলা খেলতেন’, ‘গুরু গ্রেগ’কে তীব্র আক্রমণ হরভজন-যুবরাজের appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next