জঘন্য ডিফেন্স ঢেকে দিল নন্দ-ফেলিসিওর লড়াই! বদলার ম্যাচে ইস্টবেঙ্গলকে ৩-২ গোলে হারাল নর্থ ইস্ট

06:58 PM Feb 10, 2024 |
Advertisement

নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড: ৩ (‘৪, ‘৬৬ টমি ইউরিচ, ‘১৫ নেস্টর)
ইস্টবেঙ্গল: ২ (‘৫৩ নন্দকুমার, ‘৮২ ফেলিসিও)

Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে হারের বদলা এবার ইন্দিরা গান্ধী স্টেডিয়ামে। গত বছরের ৪ ডিসেম্বর। ঘরের মাঠে নর্থ ইস্ট ইউনাইটডকে (North East United) ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল (East Bengal)। ক্লেটন সিলভা (Cleton Silva) ও নন্দকুমারের (Nandhakumar Sekar) জোড়া গোলের সৌজন্যে শেষ হাসি হেসেছিলেন কার্লেস কুয়াদ্রাত (Carles Cuadrat)। এবার নিজেদের মাঠে লাল-হলুদকে ৩-২ গোলে হারিয়ে তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ল জুয়ান পেদ্রো বেনালির (Juan Pedro Benali) ছেলেরা।

পাহাড়ের দলের হয়ে অভিষেক ম্যাচেই জোড়া গোল করলেন অস্ট্রেলিয়ার ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ দলের সদস্য টমি ইউরিচ (Tomi Juric)। একটি গোল করেন নেস্টর (Nestor Albiach)। দ্বিতীয়ার্ধে নন্দকুমারের পর প্রায় শেষ দিকে ফেলিসিও গোলের ব্যবধান কমায় ইস্টবেঙ্গল। তবে লাভ হল না। এরমধ্যে আবার খারাপ খবর হলুদ কার্ড দেখলেন ক্লেটন। ফলে ১৩ ফেব্রুয়ারি ঘরের মাঠে শক্তিশালী মুম্বই সিটি এফসি-র (Mumbai City FC) বিরুদ্ধে মাঠে নামতে পারবেন না ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহনবাগানের বিরুদ্ধে ডার্বি যুদ্ধে ড্র করেছিল ইস্টবেঙ্গল। এছাড়া ডার্বিতে নামার আগে চলতি আইএসএলে (ISL 2023-24) ইস্টবেঙ্গলের ডিফেন্স দারুণ পারফর্ম করেছিল। পাঁচটি ম্যাচে ক্লিনশিট রেখেছিল সুপার কাপ জয়ী দল। সেইজন্য হিজাজি মাহের, নীশু কুমারদের কৃতিত্ব দেওয়া হচ্ছিল। তবে শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারি শুরু থেকেই খেই হারাতে থাকে লাল-হলুদের ডিফেন্ডাররা। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে মাত্র ১৫ মিনিটেই দুই গোলে এগিয়ে যায় পাহাড়ের দল।

এই প্রথম আইএসএলের ম্যাচে শুরু থেকে খেললেন নর্থ ইস্টের বিদেশি টম ইউরিক। এবং লাল-হলুদের জাল কাঁপিয়ে দিলেন। একইসঙ্গে করলেন প্রতিযোগিতায় নিজের প্রথম গোল। অবশ্য এই গোলে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন জিতেন এবং নেস্টরের বল ভূমিকা। বল নিয়ে উঠছিলেন জিতেন। শেষ মুহূর্তে নেস্টরকে রিলিজ করেন। নেস্টরের পাসে টোকা দিয়ে গোল করে দেন টমি ইউরিচ। ১ গোলে এগিয়ে যায় জন আব্রাহামের দল।

[আরও পড়ুন: খারাপ বোলিংয়ের পর ব্যাটিং ব্যর্থতা, জলজের স্পিনে কেরলের বিরুদ্ধে হারের মুখে বাংলা]

জোড়া গোলের পর টমি ইউরিচকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন সতীর্থরা। ছবি: X হ্যান্ডেল

১৫ মিনিটে রিডিম বল নিয়ে উঠছিলেন। ইস্টবেঙ্গল বল পজেশন হারিয়ে চাপে পড়ে যায়। উইথ দ্যে বল রিডিমের দৌড় থামাতে পারেননি লাল-হলুদের ডিফেন্ডাররা। শেষ দিকে চূড়ান্ত সময় দিকে বল বাড়ান রিডিম। সাজানো বল জালে পাঠাতে ভুল করেননি নেস্টর। ফলে ব্যবধান বাড়িয়ে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় নর্থ ইস্ট। একে তো লিড পায় নর্থইস্ট। এদিকে ফাউলের আবেদন করেছিলেন ক্লেটন। রেফারি আবেদনে সাড়া দেননি। মেজাজ হারান ক্লেটন। রেফারির সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে হলুদ কার্ড দেখলেন। ফলে মুম্বই সিটি এফসি-র বিরুদ্ধে পরের ম্যাচে খেলতে পারবেন না ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার।

খেলায় ফিরে আসতে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই জোড়া পরিবর্তন কুয়াদ্রাত। পারদো ও নীশুর পরিবর্তে মাঠে নামিয়ে দেন বিষ্ণু ও মন্দার রাও দেশাইকে। এর ফল পাওয়া গেল খুব তাড়াতাড়ি। ৫৩ মিনিটে কমল ব্যবধান। বিষ্ণু পাস বাড়ান ক্লেটনকে। তিনি বল বাড়িয়ে দেন নন্দকুমারকে। ক্যাপ্টেনের পাস থেকে ইস্টবেঙ্গলের ব্যবধান কমাতে ভুল করেননি নন্দকুমার।

তবে এতে লাভ হল না। ৬৭ মিনিটে ফের গোল নর্থ ইস্টের। ডান পায়ের বাঁক খাওয়া দুরন্ত শটে ইস্টবেঙ্গল গোলে বল জড়ালেন টমি ইউরিচ। ম্যাচে এটি ছিল তাঁর দ্বিতীয় গোল।

এদিকে ভিক্টরের আগেই অভিষেক ফেলিসিও ব্রাউনের। সায়ন ব্যানার্জির পরিবর্তে নামানো হয় ফেলিসিওকে। অবশেষে ৭৬ মিনিটে অজয় ছেত্রীর জায়গায় নামানো হল ভিক্টর ভাসকেজকে। ৮২ মিনিটে বিপক্ষের দুর্বল ডিফেন্সের সুযোগ নিয়ে গোল করেন লাল-হলুদ অভিষেক ঘটানো ফেলিসিও।

ক্লেটন বলটি বক্সের ভিতরে পেয়ে তাঁর বাঁ পায়ে শটে নেন। শটটি ব্লক করে, তবে হাইল্যান্ডাররা সেটি ক্লিয়ার করতে পারেনি। বলটি পান ফেলিসিও। পয়েন্ট-ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে বলটিকে জালের ভিতরে ঠেলে দেন তিনি। ৩-২ করে ইস্টবেঙ্গল। তবে এতে লাভ হল না। শেষ পর্যন্ত তিন পয়েন্ট মাঠে ফেলে এল কুয়াদ্রাতের দল। 

[আরও পড়ুন: উইকেটের ফাঁক দিয়ে গলে গেল বল! তবুও আউট নন ব্যাটার! ভাইরাল ভিডিওকে ঘিরে তোলপাড়]

Advertisement
Next