Achinta Sheuli wins gold: ‘পদক তো জিতলে, এবার সিনেমা দেখো’, অচিন্ত্যকে শুভেচ্ছাবার্তায় বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

12:44 PM Aug 01, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জুলিয়াস সিজার বলেছিলেন, ভিনি, ভিডি, ভিসি। অর্থাৎ তিনি এলেন, দেখলেন এবং জয় করে নিলেন। হাওড়ার অচিন্ত্য শিউলির ক্ষেত্রে সিজারের এই অমর বক্তব্য বেশ খেটে যায়। তাঁর জন্যই বাংলার একখণ্ড ভূখণ্ড পাঁচলা বিশ্বের মানচিত্রে উজ্জ্বল হয়ে উঠল। সোনা জয়ের অব্যবহিত পরেই অভিনন্দন বার্তায় ভেসে গেলেন নতুন চ্যাম্পিয়ন। দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করেন তাঁকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদি লিখেছেন, ২০ বছর বয়সি ছেলেটা কঠিন পরিশ্রম করেছে। এবার হয়তো সিনেমা দেখার সময় পাবে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের নতুন চ্যাম্পিয়নকে শুভেচ্ছা জানিয়ে লিখেছেন, তোমার এই সাফল্য দেশের অসংখ্য মানুষকে প্রেরণা জোগাবে। 

Advertisement

বার্মিংহ্যামে বাংলার হাত ধরে কমনওয়েলথ গেমসে (Commonwealth Games) তৃতীয় সোনা পেল ভারত। ৩১ জুলাই দিনটা অবশ‌্যই বাংলার ভারোত্তোলনের ইতিহাসে স্বর্ণোজ্জ্বল হয়ে থাকবে। পুরুষদের ভারোত্তোলনে ৭৩ কেজি বিভাগে কমনওয়েলথ গেমসে রেকর্ড গড়ে সোনা জেতেন বাংলার ভারোত্তোলক (Achinta Sheuli)। 

স্ন‌্যাচে প্রথম লক্ষ্যে অচিন্ত‌্য ১৩৭ কেজি ওজন তোলেন। দ্বিতীয়বার তুললেন ১৪০ কেজি। এরপর তৃতীয়বার তুললেন ১৪৩ কেজি। তঁার ধারে কাছে কোনও প্রতিযোগী ছিলেন না। ক্লিন অ‌্যান্ড জার্ক বিভাগে প্রথম প্রচেষ্টায় অচিন্ত‌্য তোলেন ১৬৬ কেজি। দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় অচিন্ত‌্য ১৭০ কেজি ওজন তুলতে গিয়েও ব‌্যর্থ হন। যদিও তৃতীয় প্রচেষ্টায় ১৭০ কেজি তুলতে সমর্থ হন অচিন্ত‌্য। এবং মোট ৩১৩ কেজি ওজন তুলে কমনওয়েলথে দেশকে তৃতীয় সোনা এনে দেন।  আর তার পরই গোটা দেশের শ্বাসপ্রশ্বাসে অচিন্ত্য আর অচিন্ত্য। 

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: মাঝরাতে সোনা জয় বঙ্গসন্তানের, কমনওয়েলথ গেমসে রেকর্ড হাওড়ার অচিন্ত্যর]

মোদি টুইট করে লিখেছেন, ”কমনওয়েলথ গেমসে সোনা জিতেছে প্রতিভাবান অচিন্ত্য। এই খবরে দেশ খুশি। অচিন্ত্য শান্ত স্বভাবের। লেগে থাকার মানসিকতা রয়েছে। এই দারুণ সাফল্যের জন্য কঠিন পরিশ্রম করেছে অচিন্ত্য। ওর উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য শুভেচ্ছা জানাই।”  

 

মোদি আরও বলেন, ”কমনওয়েলথ গেমসে যাওয়ার আগে অচিন্ত্য শিউলির সঙ্গে আমি কথা বলেছিলাম। মা ও ভাইয়ের অবদানের কথা বলেছিল আমাকে। পদক জেতা হয়ে গিয়েছে। আশা করি এবার সিনেমা দেখার সময় পাবে অচিন্ত্য।”  ২০ বছরের অচিন্ত‌্যর পথ চলাটা মোটেই সহজ ছিল না। জীবনে বহু ঘাত -প্রতিঘাতের মধ্যে দিয়ে তাঁকে হাঁটতে হয়েছে। এবং এদিনের এই সোনা জয় তিনি তাঁর দাদা এবং কোচদের উৎসর্গ করেন। 

অচিন্ত্যর সাফল্য ছুঁয়ে গিয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও। টুইটে মমতা লেখেন, ”আমাদের সবার জন্য অত্যন্ত গর্বের এক মুহূর্ত। বাংলার ছেলে অচিন্ত্য শিউলি কমনওয়েলথ গেমসে দেশের হয়ে তৃতীয় সোনাটি জিতেছে। অভিনন্দন জানাই অচিন্ত্যকে। তোমার এই সাফল্য দেশের অসংখ্য মানুষকে অনুপ্রেরণা জোগাবে। অনেক শুভেচ্ছা।” 

টুইট করে অচিন্ত্যকে অভিনন্দন জানিয়েছেন দেশের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। টুইটে তিনি লিখেছেন, ”ভারতকে গর্বিত করেছে অচিন্ত্য শিউলি। কমনওয়েলথ গেমসে তেরঙ্গা উড়িয়েছে। তুমি চ্যাম্পিয়ন, ইতিহাস তৈরি করেছো। হার্দিক অভিনন্দন।”  

[আরও পড়ুন: দুর্দান্ত ছন্দে ভারতীয় হকি দল, ঘানাকে গোলের মালা পরিয়ে শুরু কমনওয়েলথ গেমস অভিযান

তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে লিখেছেন, ”পশ্চিমবঙ্গের হাওড়ার ২০ বছর বয়সি তরুণ রেকর্ড ভেঙে দেশকে তৃতীয় সোনা এনে দেওয়ায় গর্বে আমার বুক ফুলে উঠছে। অচিন্ত্য শিউলি তোমার কঠিন অধ্যবসায় এবং পরিশ্রম তরুণদের প্রেরণা জোগাবে, তাদের স্বপ্ন সফল করার পথে এগিয়ে নিয়ে যাবে। অনেক শুভেচ্ছা, ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল হোক।”

Advertisement
Next