পাকিস্তানে বাসের মধ্যে ভয়াবহ IED বিস্ফোরণ, অন্তত ১৩ জনের মৃত্যু

02:34 PM Jul 14, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের সন্ত্রাসের কবলে ইমরানের দেশ। পাকিস্তানের (Pakistan) এক বাসে ভয়াবহ বিস্ফোরণে (Massive blast) মৃত্যু হল অন্তত ১৩ জন যাত্রীর। জানা গিয়েছে, IED বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিল জঙ্গিরা। আর তার জেরেই ঘটে যায় প্রচণ্ড বিস্ফোরণ। নিহত ১৩ জনের মধ্যে ৯ জন চিনা ইঞ্জিনিয়ার।

Advertisement

ওই বাসে অন্তত ৩০ জন চিনা ইঞ্জিনিয়ার ছিল বলে জানা গিয়েছে। দাসু বাঁধের নির্মাণকাজে কাজ করতে যাচ্ছিলেন তাঁরা। বিস্ফোরণে তাঁদের অধিকাংশেরই অবস্থা গুরুতর। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়াও বহু ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

[আরও পড়ুন: পাক সেনার উপর হামলা তেহরিক-ই-তালিবানের, নিহত কমপক্ষে ১৫ জওয়ান]

তদন্তকারীদের প্রাথমিক অনুমান, বাসটিকে লক্ষ্য করেই আইইডি বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছিল। পাক প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, বিস্ফোরণে পাক আধা সামরিক বাহিনীর দুই সদস্যেরও মৃত্যু হয়েছে। এক সিনিয়র প্রশাসনিক অফিসার সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ‘‘আপার কোহিস্তানের কাছে হঠাৎই বাসটিতে প্রবল বিস্ফোরণ ঘটে। সঙ্গে সঙ্গে ৮ জনের মৃত্যু হয়।’’

Advertising
Advertising

তবে প্রাথমিক ভাবে পরিষ্কার বোঝা যায়নি, বাসের মধ্যেই বিস্ফোরক রাখা ছিল নাকি বাইরে থেকে তা ছোঁড়া হয়েছিল। বিস্ফোরণের ধাক্কায় বাসটি একটি গভীর উপত্যকায় পড়ে যায়। এখনও একজন চিনা ইঞ্জিনিয়ার ও একজন পাক সেনা নিখোঁজ। উদ্ধারকারী দল দ্রুতই এলাকায় পৌঁছে গিয়েছে। এখনও উদ্ধারকাজ চালানো হচ্ছে। দুই ন‌িখোঁজ যাত্রীকে দ্রুত খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: মাথার মূল্য ছিল ৮ লক্ষ, করোনায় মৃত্যু কুখ্যাত সেই মাও নেতার]

উল্লেখ্য, চিনের ইঞ্জিনিয়াররা দাসু হাইড্রো ইলেকট্রিক প্রকল্পে বহু বছর ধরেই কাজ করছেন ওই এলাকায়। সেই কারণে তাঁদের ও পাকিস্তানি নির্মাণকর্মীদের আসা যাওয়া লেগেই থাকে। কিন্তু এবার সেই পথেই ঘটে গেল ওই ভয়াবহ বিস্ফোরণ। এখনও জানা যায়নি, কোন জঙ্গি গোষ্ঠী ওই বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। পাকিস্তানে প্রায়ই জঙ্গি হানার খবর পাওয়া যায়। নানা সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীই সক্রিয় থাকায় জনজীবন মাঝেমাঝেই বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে।

Advertisement
Next