Advertisement

‘চোর-ডাকাতরা আগে জেলে যেত, এখন বিজেপিতে যায়’, কটাক্ষ অভিষেকের

06:21 PM Apr 15, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৃষ্ণনগর উত্তরের প্রার্থী কৌশানী মুখোপাধ্যায়ের হয়ে প্রচারে গিয়ে বিজেপিকে তুলোধোনা করলেন যুব তৃণমূলের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। তাঁর কথায়, “‘চোর-ডাকাতরা আগে জেলে যেত, এখন বিজেপিতে যায়।” সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী মুকুল রায়কেও তুলোধোনা করলেন তিনি। অভিষেকের দাবি, তিনি (মুকুল রায়) বুঝে গিয়েছেন, তিনি হারছেন। তাই এলাকায় প্রচারে আসছেন না। পাশাপাশি বিজেপি প্রার্থীর অতীত নিয়েও খোঁচা দিলেন তৃণমূলের ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ।

Advertisement

পয়লা বৈশাখ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার কৃষ্ণনগরের তৃণমূল প্রার্থী কৌশানী মুখোপাধ্যায়ের সমর্থনে ব়্যালি করলেন অভিষেক। রোড-শো শেষে প্রার্থীর সমর্থনে বক্তব্যও রাখেন তিনি। যুব তৃণমূলের সভাপতির কথায়, “কৌশানীকে ভোট দেওয়ার অর্থ সরাসরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেতানো।” তাঁর কথায়, “২ তারিখের পর খেলা হবে। আগে আমাদের জেতান। তার পর তো খেলা হবে।” এর পরই তিনি নিজের পুরনো সতীর্থ তথা বর্তমানে বিজেপি প্রার্থী মুকুল রায়ের তীব্র সমালোচনা করেন।

[আরও পড়ুন : দাবদাহের মাঝেই স্বস্তির খবর শোনাল হাওয়া অফিস, ৭ জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা]

অভিষেকের কথায়,”আর্থিক কেলেঙ্কারি থেকে খুন, একাধিক মামলা রয়েছে বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে। তিনি এখন নিজেকে বাঁচাতে বিজেপিতে আশ্রয় নিয়েছেন। হেরে যাবে বুঝেই প্রচারে আসছেন না। ওঁকে এলাকায় ক’বার দেখতে পেয়েছেন? ভোটের পর আর দেখতে পাবেন না।” এ প্রসঙ্গে তিনি প্রধানমন্ত্রী ও রাণাঘাটের সাংসদের প্রসঙ্গও তুলে আনেন। যুব তৃণমূলের সভাপতির কথায়, “উনিশের ভোটের আগে প্রচারে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী, তার পর থেকে তাঁকে দেখতে পেয়েছেন আর? রাণাঘাটের সাংসদও কতবার এলাকায় এসেছেন?” এদিনের সভা থেকে প্রধানমন্ত্রীকেও বিঁধেছেন অভিষেক।

রাজ্যে টিকার টান রয়েছে। বারবার অভিযোগ উঠেছে। রাজ্যকে টিকা না দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে তোপ দেগেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সেই সুর শোনা গেল তৃণমূলের যুব সভাপতির গলাতেও। বললেন, “দেশের অনেকে করোনার টিকা পাচ্ছেন না। ১৩০ কোটির মধ্যে মাত্র ১ কোটি মানুষ টিকা পেয়েছেন। এদিকে বিদেশে টিকার রপ্তানি করছেন প্রধানমন্ত্রী। উনি শুধু নিজের ভাবমূর্তি নিয়ে সচেতন। মানুষকে নিয়ে মাথাব্যথা নেই তাঁর।”

[আরও পড়ুন : নিজের গড়েই ভরল না মাঠ, কান্দিতে প্রায় ফাঁকা ময়দানেই সভা অধীরের]

Advertisement
Next