অশ্লীল ছবি ‘কাশ্মীর ফাইলস’! ইজরায়েলি পরিচালকের মন্তব্যে বিতর্ক, পালটা অনুপম-বিবেকদের

01:52 PM Nov 29, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অশ্লীল ছবি ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ (The Kashmir Files)। এমনই মন্তব্য করেছেন ইজরায়েলি পরিচালক নাদাভ লাপিড (Nadav Lapid)। তাতেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। লাপিডের মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করে তাঁকে পালটা জবাব দিয়েছেন ছবির অভিনেতা অনুপম খের, দর্শন কুমার এবং পরিচালক বিবেক রঞ্জন অগ্নিহোত্রী।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

Advertising
Advertising

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

ঘটনার সূত্রপাত হয় গোয়া আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে (IFFI2022)। উৎসবে জ্যুরি প্রধানের ভূমিকা পালন করেছেন নাদাভ লাপিড। ইফির শেষ দিনেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে মার্চে মুক্তি পাওয়া ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমাকে অশ্লীল আখ্যা দেন। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সিনেমাটি তৈরি করা হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন। ইজরায়েলি পরিচালকের এমন মন্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তাতেই বিতর্কের সৃষ্টি হয়।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: ‘বিছানায় চেপে ধরেছিল…’, ‘সোহাগ জল’ সিরিয়ালের পরিচালকের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মডেল]

নাদাভ লাপিডকে পালটা জবাব দিয়ে ভিডিও আপলোড করেছেন অনুপম খের (Anupam Kher)। যাতে তিনি বলেন “কিছু মানুষের সত্যিটাকে সত্যির মতো দেখার বা দেখানোর অভ্যাস থাকে না। তা নিজের মতো করে রং দিয়ে, সাজিয়ে দেখতে চান। কাশ্মীরের সত্যি তাঁরা হজম করতে পারছেন না। তাঁরা এটাকে রঙিন, সুন্দর করে দেখতে চান। এটাই তাঁরা গত ২৫-৩০ বছর ধরে করছেন। আজ ‘কাশ্মীর ফাইলস’ ছবিতে যখন সত্য দেখানো হয়েছে তাঁদের সহ্য হচ্ছে না। তাঁরা তাই নিজের মতো করে প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন।” অভিনেতা জানান, এমন নগ্ন সত্য দেখতে না পারলে চোখ বন্ধ করে নিন। কারণ এ সত্য ভুক্তভোগীদের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। ভারত-ইজরায়েল বন্ধু দেশ। সেখানকার সাধারণ মানুষ কাশ্মীরের হিন্দুদের যন্ত্রণা বোঝেন। তবে সব দেশেই কিছু দেশদ্রোহী থাকে বলেই মন্তব্য করেন অনুপম।

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে অভিনেতা দর্শন কুমার (Darshan Kumar) জানান, প্রত্যেকের মতামত দেওয়ার অধিকার থাকে। কিন্তু একথা অস্বীকার কথা যায় না যে ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’-এর মতো সিনেমা কাশ্মীরের মানুষের দুর্দশার আসল চিত্র সকলের সামনে তুলে ধরেছে। এই মানুষেরা এখনও বিচারের জন্য লড়ছেন। তাই এ ছবি অশ্লীল নয়, ঘোর বাস্তব। টুইটারে ছবির পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী আবার লিখেন, “সত্য অত্যন্ত বিপজ্জনক, তা মানুষকে মিথ্যে বলতে বাধ্য করে।”

Advertisement
Next