সংসদে বিয়ে নিয়ে ভুল তথ্য দিয়েছেন নুসরত, লোকসভার স্পিকারকে চিঠি বিজেপি সাংসদের

09:08 AM Jun 22, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংসদে নিজের বিয়ে নিয়ে ভুল তথ্য দিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। তা নিয়ে বিস্তারিত তদন্ত করুন সংসদের এথিকস কমিটি। লোকসভার (Parliament of India) স্পিকার ওম বিড়লার কাছে এই দাবি জানালেন বিজেপি সাংসদ সংঘমিত্রা মৌর্য (BJP MP Sanghmitra Maurya)।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

উত্তরপ্রদেশের বদায়ুনের সাংসদ সংঘমিত্রা মৌর্য। গত ১৯ জুন নুসরতের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাকে (Om Birla) চিঠি লিখেছেন তিনি। জানা গিয়েছে, নিজের চিঠিতে তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহানের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সংঘমিত্রা। সেখানে তিনি উল্লেখ, করেছেন কীভাবে ২০১৯ সালের ২৫ জুন সংসদে শাড়ি ও সিঁদুর পরে হিন্দু বাড়ির বউয়ের বেশে সংসদে গিয়েছিলেন নুসরত। তারপর শপথ নেওয়ার সময়ও নিজেকে নুসরত জাহান রুহি জৈন হিসেবে পরিচয় দিয়েছিলেন। চিঠিতে নুসরতের লোকসভার প্রোফাইলের প্রতিলিপিও জুড়ে দিয়েছেন বদায়ুনের বিজেপি সাংসদ। যেখানে নুসরতের স্বামী হিসেবে নিখিল জৈনের (Nikhil Jain) নাম লেখা। নুসরতের রিসেপশনে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) উপস্থিত ছিলেন বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: করোনা আবহে ফের বাতিল অমরনাথ যাত্রা, থাকছে অনলাইন আরতির ব্যবস্থা]

গত বছর থেকেই নিখিল জৈনের থেকে আলাদা থাকছেন নুসরত জাহান। তাঁর সঙ্গে অভিনেতা যশ দাশগুপ্তর (Yash Dasguipta) ঘনিষ্ঠতার খবরও শোনা গিয়েছে। এর মধ্যেই আবার খবর ছড়ায় সেপ্টেম্বরে মা হতে চলেছেন তৃণমূলের তারকা সাংসদ। নুসরতের বেবি বাম্পের ছবিও প্রকাশ্যে এসেছে। বিতর্কের আগুন বাড়ে বিয়ে নিয়ে দেওয়া নুসরতের বিবৃতিতে। যেখানে তিনি দাবি করেছেন, নিখিল জৈনের সঙ্গে তুরস্কে করা বিয়ের ভারতে কোনও বৈধতা নেই। আর তাঁর ও নিখিলের ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন হয়নি। তাই নিখিলের সঙ্গে তাঁর বিয়েই হয়নি। তাঁরা কেবল লিভ-ইন পার্টনার ছিলেন। এ বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে বিজেপি সাংসদ সংঘমিত্রা মৌর্য জানিয়েছেন, নুসরত জাহান ব্যক্তিগত জীবনে কী করছেন, তা নিয়ে কারও কোনও মাথাব্যথা নেই। কিন্তু সাংসদ হিসেবে তিনি সংসদে ভুল তথ্য দিতে পারেন না। তাই সংঘমিত্রা স্পিকার ওম বিড়লার কাছে আবেদন জানিয়েছেন, বিষয়টি সংসদের এথিকস কমিটির কাছে পাঠিয়ে ঘটনার উপযুক্ত তথ্য করা হোক।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: নারদ মামলায় এবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next