Advertisement

পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটের প্রস্তুতি, জনগণের কাছে পৌঁছতে বিজেপির ভরসা সোশ্যাল মিডিয়া

10:37 AM Oct 19, 2021 |

বিশেষ সংবাদদাতা, নয়াদিল্লি: আগামী বছরের শুরুর দিকেই দেশের সবথেকে বড় রাজ্য উত্তরপ্রদেশ (Uttar Pradesh)-সহ পাঁচ রাজ্যের নির্বাচন। সমাজের একেবারে প্রান্তিক মানুষরে কাছ পর্যন্ত পৌঁছতে সামাজিক মাধ‌্যমকে প্রচারের অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে বিজেপি (BJP)। সেই ভাবে পরিকল্পনা সাজাতে দলীয় নেতাদের নির্দেশ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। সোমবার নয়াদিল্লিতে বিজেপির সদর দপ্তরে দলের কেন্দ্রীয় পদাধিকারীদের ম্যারাথন বৈঠকে পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনী রণকৌশল তৈরির প্রাথমিক কাজটি সেরে রাখল বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

Advertisement

সমস্ত ক্ষেত্রেই ‘পরিবর্তন’কে মাথায় রেখে যে দলকে এগোতে হবে, বৈঠকের শুরুতে সেই বার্তা দিয়ে দিয়েছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। সেই প্রেক্ষিতেই বর্তমান যুগে সামাজিক মাধ‌্যম যে প্রচারের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হয়ে উঠেছে এবং সেদিকে আরও নজর দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে, বিষয়টিকে সামনে রাখা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। তবে সামাজিক মাধ‌্যমের অপব‌্যাবহারের দিকটি নিয়ে সেভাবে কোনও কথা হয়নি। আগামী বৈঠকে সেই বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানি গিয়েছে। বৈঠকের শেষে দলের সর্বভারতীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা বলেন, “আজকাল তো সমস্ত রাজনৈতিক দলই সামাজিক মাধ‌্যমকে নিজেদের অন্যতম স্তম্ভ হিসেবে ব্যবহার করে। সেই বিষয়টির উপরে আমাদের আরও জোর দিতে হবে। সামাজিক মাধ‌্যমের দ্বারা তৃণমূল স্তর পর্যন্ত পৌঁছাতে হবে। সামাজিক মাধ‌্যমকে কাজে লাগিয়েই দলের কর্মী, সদস্যদের সামাজিক কল্যাণমূলক কাজের জন্যও উদ্বুদ্ধ করতে হবে। যাতে ‘সেবা হি সংগঠন’, আমাদের যে মূল মূন্ত্র তাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়।”

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: যুদ্ধে অপরাজেয় হবে ভারত, নৌসেনার হাতে এল আরও একটি Poseidon-8I যুদ্ধবিমান]

বিজেপি নেতৃত্ব চাইছে পাঁচ রাজ্যে নির্বাচনে কেন্দ্রের মোদি সরকারের সাফল‌্যগুলি তুলে ধরা হবে। বৈঠকে স্থির হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা যাতে মানুষের কাছ পর্যন্ত পৌঁছয়, মানুষ যাতে সেগুলির বিষয়ে জানতে পারে সেবিষয়ে নজর দিতে হবে। করোনার টিকাকরণ ১০০ কোটি ছুঁয়ে গেলে রীতিমতো ঢাক-ঢোল পিটিয়ে দেশের সর্বত্র যাতে তা উদযাপন করা যায় সেই বিষয়েও বিজেপি নেতারা আলোচনা করেছেন। চলতি সপ্তাহেই টিকাকরণের লক্ষ্যমাত্রা ১০০ কোটির গণ্ডি পার করবে বলেই আশা করছে শাসক শিবির। তার জন্য দলীয় নেতারা যাতে এদিন থেকেই প্রস্তুতি পর্ব শুরু করে দেন সেই নির্দেশও তাঁদের দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া স্বাধীনতার ৭৫ বছরের পূর্তি উপলক্ষ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের অমৃত মহোৎসব কর্মসূচি, দেশের মানুষের মধ্যে অপুষ্টি নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি, কেন্দ্রীয় সরকারের পোষণ প্রকল্প ইত‌্যাদি নিয়ে প্রচারের উপর জেরা দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে বিজেপি। সম্প্রতি বিজেপির নতুন কর্মসমিতি ঘোষণা হয়েছে। আগামী ৭ নভেম্বর দিল্লিতে কর্মসমিতির বৈঠক হতে চলেছে। সেই বৈঠকের পরিকল্পনা এবং কর্মসূচির বিষয়েও এদিনের বৈঠকে একপ্রস্থ আলোচনা হয়েছে। সকাল থেকে শুরু হয়ে রাত অবধি চলা বৈঠকে দলের সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বি এল সন্তোষ-সহ সমস্ত কেন্দ্রীয় পদাধিকারী এবং নির্বাচনমুখী রাজ্যগুলির সভাপতিরাও হাজির ছিলেন।

[আরও পড়ুন: শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আমূল বদল আনল কেন্দ্র, বাড়ানো হল যোগ্যতামান]

Advertisement
Next