Advertisement

অসমে বাড়ছে সংক্রমণ, পরিযায়ীদের ফেরাকেই কারণ হিসেবে দেখাচ্ছেন চিকিৎসকরা

04:46 PM May 20, 2020 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসমে ফের বাড়ছে সংক্রমণ। ভিন রাজ্য থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার পরই মাথা চারা দিচ্ছে সংক্রমণের মাত্রা। বুধবার রাজ্যে সর্বোচ্চ ৪২ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়ে। রেহাই পায়নি ২ মাসের একটি শিশুও।

Advertisement

দেশজুড়ে কী করি কী করি হাহাকার। কেন্দ্র-রাজ্যের উদ্যোগে শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার পরই নয়া চিন্তা দেখা দিচ্ছে অসমের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে। সোমবার থেকেই একে একে বাড়ছে সংক্রমণের মাত্রা। ১৮ মে পর্যন্ত রাজ্যে নতুন করে ৫৭ জনের শরীরে করোনার সন্ধান পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে ৪০ জনতেই ভিন রাজ্য থেকে নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানা যায়। বর্তমানে তাদের সকলের আশ্রয় কোয়ারেন্টাইন সেন্টার। মাত্র কয়েকজনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। অসমের চিকিৎসকরা জানান, “আগে যেখানে ১০ দিনে বাড়ছিল সংক্রমণের হার সেখানে মাত্র ৫ দিনের মধ্যেই সংক্রমণের মাত্রা দ্বিগুণ হারে ধরা পড়ছে।” হঠাৎ রাজ্যে সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণ হিসেবে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরে আসাকেই চিহ্নিত করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এপর্যন্ত যত সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে সবটাই মিলেছে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে।

[আরও পড়ুন:৩ মাসেই ফুরিয়ে যাবে পুঁজি, বন্ধ হয়ে যেতে পারে দেশের ৭০ শতাংশ স্টার্ট আপ]

রাজ্যে মোট ১৫৭ জনের মধ্যে ১১৪ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ৪১ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। ৪ জন আক্রান্ত প্রাণ হারিয়েছেন। তবে গত দুদিনে যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে পাল্লা দিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে চিকিৎসকদের। সূত্রের খবর, কয়েকদিনের মধ্যেই রাজ্য সরকারের তরফ নয়া কোয়ারেন্টাইন প্রোটোকল প্রকাশ করা হবে। সেই প্রটোকল মেনেই কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে আক্রান্ত ও তাদের পরিজনেদের। চলতি সপ্তাহের শুরুতেই অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা (Himanta Biswa Sarma) জানান, “দ্রুত কোয়ারেন্টাইনের নয়া নিয়ম রাজ্যে লাগু করা হবে। এখনও সরকারি হিসেবে প্রায় এক লক্ষ রাজ্যবাসীকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।” তবে লকডাউনের শেষ পর্ব এসে সংক্রমণের বৃদ্ধি পাওয়াকে মোটেই ভাল চোখে দেখছেন না চিকিৎসকরা।

[আরও পড়ুন:উবেরের পথেই হাঁটল Ola, করোনা মহামারির জেরে চাকরি হারালেন হাজারেরও বেশি কর্মী]

The post অসমে বাড়ছে সংক্রমণ, পরিযায়ীদের ফেরাকেই কারণ হিসেবে দেখাচ্ছেন চিকিৎসকরা appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next