Advertisement

‘হিন্দু লাইভস ম্যাটার’ ব্যানারে ছেয়ে গেল দিল্লির তৃণমূলের দপ্তর, চলল হিন্দু সেনার বিক্ষোভ

08:07 PM Jun 10, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুরা বিপন্ন। তাদের উপরে অত্যাচার হচ্ছে। এই অভিযোগ তুলে দিল্লিতে (Delhi) তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) সদর দপ্তরের বাইরে বিক্ষোভ দেখাল হিন্দু সেনা (Hindu Sena)। সেই সঙ্গে ব্যানারও প্রদর্শন করল তারা। তাতে লেখা, ‘মমতা দিদি হিন্দু লাইভস ম্যাটার’।

Advertisement

ঠিক কী হয়েছে? বৃহস্পতিবার দুপুরে ৬১ সাউথ অ্যাভিনিউয়ে তৃণমূলের সদর দপ্তরের সামনে হাজির হয় হিন্দু সেনার কয়েকজন সমর্থক। তারা সেখানে বিক্ষোভ দেখায়। সেই সঙ্গে তাদের হাতে থাকা ব্যানার তারা দপ্তরের সামনে রেখে দিয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: কৃষকদের স্বস্তি, খারিফ শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের]

সংবাদমাধ্যমকে বিক্ষোভের ব্যাপারে বলতে গিয়ে তারা জানিয়েছে, ‘‘পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুদের উপরে নির্যাতন হচ্ছে। সেবিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) অবগত করতেই এই বিক্ষোভ প্রদর্শন।’’ প্রসঙ্গত, এই ঘটনা প্রসঙ্গে রাজ্যের শাসক দলের তরফে এখনও কারও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

উল্লেখ্য, এই প্রথম নয়। এর আগে গত জানুয়ারিতেও দিল্লির ৬১ সাউথ অ্যাভিনিউয়ের এই দপ্তরের বাইরে দেখা গিয়েছিল হিন্দু সেনার পোস্টার। সেই সময় ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে ওঠা ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনিকে কেন্দ্র করে বিতর্ক ঘনিয়েছিল। এরপরই দিল্লিতে তৃণমূ‌লের দপ্তরের বাইরে দেখা গিয়েছিল ‘জয় শ্রীরাম’ লেখা পোস্টার। এরই পাশাপাশি ‘ভারতে থাকতে হলে জয় শ্রীরাম বলতে হবে’ লেখা পোস্টারও দেখা গিয়েছিল সেখানে।

হিন্দু সেনা নামের এই দক্ষিণপন্থী দলটি ২০১১ সালে স্থাপিত হয়। নয়াদিল্লিতে হিন্দু মহাসভা ভবনে তাদের সদর দপ্তর। ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থার দপ্তরে ভাঙচুর করে বিতর্কে জড়িয়েছিল তারা। ২০১৬ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সময় প্রার্থনা করতে দেখা গিয়েছিল এই সংগঠনকে। এমনকী, ট্রাম্পের জন্মদিনও পালন করেছিল হিন্দু সেনার সদস্যরা।

[আরও পড়ুন: রাজস্ব ঘাটতি বাবদ ১৭ রাজ্যকে ৯ হাজার ৮৭১ কোটি টাকা কেন্দ্রের, তালিকায় বাংলাও]

Advertisement
Next