মহাত্মা গান্ধীর নামে অবমাননাকর মন্তব্যের জের, ফের গ্রেপ্তার কালীচরণ মহারাজ

09:21 PM Jan 20, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন দিজিটাল ডেস্ক: জাতির জনকই যেন তাঁর সবচেয়ে বড় শত্রু! মহাত্মা গান্ধীর (Mahatma Gandhi) নামে কুমন্তব্যের জেরে গ্রেপ্তার হলেন সেই স্বঘোষিত ধর্মগুরু কালীচরণ মহারাজ (Kalicharan Maharaj)। এদিন ছত্তিশগড় (Chhattisgarh) থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযুক্তকে।

Advertisement

থানে সিটি পুলিশ জানিয়েছে, সংখ্যলঘুদের বিরুদ্ধে হিংসার উসকানি ও মহাত্মা গান্ধী সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্যের অভিযোগে বুধবার গভীর রাতে ছত্তিশগড়ের রায়পুর (Raipur) থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে কালীচরণ মহারাজকে।

এর আগে ছত্তিশগড়ের রায়পুরে ‘ধর্ম সংসদ’-এ গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসের (Nathuram Godse) প্রশংসা করেছিলেন কালীচরণ মহারাজ। অভিযুক্ত ধর্মগুরুর গান্ধীজিকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্যের জেরে ধর্ম সংসদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক মহান্ত রামসুন্দর দাসও অনুষ্ঠান ছেড়ে চলে যান। পরদিন কালীচরণ মহারাজের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ভঙ্গের অভিযোগে মামলা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন রায়পুরের প্রাক্তন মেয়র প্রমোদ দুবে।

Advertising
Advertising

স্বঘোষিত ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগ এনেছিলেন ছত্তিশগড়ের কংগ্রেস নেতা মোহন মারকামও। এরপরই মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) খাজুরাহো পর্যন্ত ধাওয়া করে ওই ধর্মগুরুকে গ্রেপ্তার করেছিল ছত্তিশগড় পুলিশ (Chhattisgarh Police)।

[আরও পড়ুন: ধর্মীয় সভায় গান্ধীজির হত্যাকারীর প্রশংসা, রায়পুরে স্বঘোষিত ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে মামলা

এবার ১২ জানুয়ারি মহারাষ্ট্রের ওয়ার্ধায় কালীচরণের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তাঁকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। নাওপাড়া থানার পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্রের এনসিপি (NCP) নেতা তথা রাজ্য সরকারের মন্ত্রী জিতেন্দ্র আওহাদের অভিযোগের ভিত্তিতে রায়পুর থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জিতেন্দ্র আওহাদের অভিযোগ ছিল, কালীচরণ মহারাজ জাতির জনকের বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন।

[আরও পড়ুন: গান্ধীজিকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য, মধ্যপ্রদেশ থেকে গ্রেপ্তার স্বঘোষিত ধর্মগুরু কালীচরণ মহারাজ]

কালীচরণ মহারাজ ওরফে অভিজিৎ সারাগ মহারাষ্ট্রের আকোলার শিবাজিনগরের বাসিন্দা। পুনে, রায়পুর, ওয়ার্ধা, আকোলা এবং থানে সহ বিভিন্ন জায়গায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মূলত সংখ্যলঘুদের বিরুদ্ধে হিংসার বার্তা ছড়ানো ও মহাত্মা গান্ধীর নামে কুৎসা করে বারবার বিতর্কে জড়িয়েছেন এই স্বঘোষিত ধর্মগুরু। 

Advertisement
Next