Advertisement

দিল্লির পর শাহজাহানপুর, আদালতের মধ্যেই আইনজীবীকে গুলি করে খুন

04:55 PM Oct 18, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লির পর এবার শাহজাহানপুর। আদালতের ভিতরই দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রাণ গেল এক আইনজীবীর। তবে দিনেদুপুরে কে বা কারা, কেন তাঁকে খুন করল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। এই ঘটনায় রাজ্যের আইনশৃঙ্খলার অবনতি নিয়ে যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) দিকে আঙুল তুলেছে কংগ্রেস। যদিও খুনের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পুরনো শত্রুতার জেরেই এই খুন বলে দাবি পুলিশের।

Advertisement

মৃত আইনজীবীর নাম ভূপেন্দ্র সিং। তিনি শাহজাহানপুরেরই (Shahjahanpur) বাসিন্দা।  সোমবার শাহজাহানপুরের জেলা আদালতের তিনতলায় তাঁর দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। পাশেই একটা দেশীয় পিস্তল পড়েছিল। ঘটনার খবর পেয়েই ছুটে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী। শুরু হয়েছে তদন্ত।

 

[আরও পড়ুন: শুধু কাশ্মীর নয়, অসমেও বড়সড় হামলা চালাতে পারে আইএসআই, জারি সতর্কবার্তা]

ঘটনাপ্রসঙ্গে শাহজাহানপুরের পুলিশ সুপার এস আনন্দ জানান, “প্রাথমিক খবর অনুযায়ী, মৃত্যুর সময় ওই ব্যক্তি একাই ছিলেন। তাঁর আশপাশে কেউ ছিল না। গুলি চালাতেও কেউ দেখেননি। ফরেনসিক দল তদন্তে নেমেছে।” আদালতের অন্যান্য আইনজীবীরাও গুলি চালাতে দেখেননি। তাঁদের কথায়, “আমরা হঠাৎই খবর পেলাম আদালতের মধ্যেই একজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। খবর পেয়ে আমরা এসে দেখি রক্তে ভেসে যাচ্ছে মাটি। ওই আইনজীবীর গুলিবিদ্ধ দেহ পড়ে রয়েছে। পাশে পড়ে রয়েছে একটি দেশীয় পিস্তল।” তাঁরা আরও জানিয়েছেন,  ভূপেন্দ্র সিং আগে ব্যাংকে কাজ করতেন। গত ৪-৫ বছর ধরে ওকালতি করছেন।

প্রতীকী ছবি।

[আরও পড়ুন: সুরাটের কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, মৃত অন্তত ২, দমকলের তৎপরতায় উদ্ধার শতাধিক]

এই ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কংগ্রেস নেতৃত্ব। দলীয় মুখপাত্র ড. শামা মহম্মদ টুইটারে লেখেন, “শাহজাহানপুরের আদালতে এক আইনজীবীকে খুন করা হল। উত্তরপ্রদেশের পুলিশ রাতের অভিযানে এক ব্যবসায়ীকে মারল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে কৃষকদের গাড়ি চাপা দিল। এটাই উত্তরপ্রদেশে যোগী রাজত্বে আইনশৃঙ্খলার নমুনা। অবশ্য যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে ১০টি মামলা রয়েছে।”

প্রসঙ্গত, সেপ্টেম্বর মাসে দিল্লির আদালতে দিনেদুপুরে গুলি চালায় গ্যাংস্টাররা। এক অপরাধী-সহ কয়েকজন পুলিশ কর্মী ও আইনজীবীর মৃত্যু হয়েছিল। সেই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছিল। এর পর এক মাস কাটার আগেই ফের আদালতে চলল গুলি। 

Advertisement
Next