Advertisement

করোনা টিকাকরণের সার্টিফিকেটে কেন মোদির ছবি? নির্বাচন কমিশনে নালিশ তৃণমূলের

01:30 PM Mar 03, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশে টিকাকরণের দ্বিতীয় পর্যায় শুরু হতে না হতেই সমালোচনার মুখে প্রধানমন্ত্রী। করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) টিকাকরণ কর্মসূচির ডিজিটাল সার্টিফিকেটে কেন ব্যবহৃত হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Modi) ছবি? প্রশ্ন বিরোধীদের। রাজ্যে ভোট নির্ঘণ্ট প্রকাশের পরেও কেন ওই সার্টিফিকেটে মোদির ছবি থাকবে, তা জানতে চেয়ে টুইট করেছেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। এদিকে পাঞ্জাবের এক মন্ত্রীর অভিযোগ, এটা ‘আত্মপ্রদর্শন’-এর এক নিন্দনীয় নিদর্শন। কেন একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের ছবি ওই সার্টিফিকেটে থাকবে সেই প্রশ্ন তুলেছেন মহারাষ্ট্রের এক এনসিপি বিধায়ক ও মন্ত্রীও। সব মিলিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিতর্কে সরগরম রাজনৈতিক আবহ।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গে ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পরও কী করে সার্টিফিকেটে প্রধানমন্ত্রীর ছবি থাকছে সেই প্রশ্ন তুলে মঙ্গলবার টুইট করতে দেখা গিয়েছে তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েনকে (Derek O’Brien)। তিনি লেখেন, ”ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষিত হয়ে গিয়েছে। তারপরও প্রধানমন্ত্রীর ছবি নির্লজ্জভাবে কোভিড-১৯ সার্টিফিকেটে ব্যবহৃত হচ্ছে।” তাঁর দলের তরফে এব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ জানানো হবে বলেও লেখেন ডেরেক। বুধবার কমিশনের কাছে নালিশ জানিয়েছে তৃণমূল। পাশাপাশি ‘উজ্জ্বলা যোজনা’-র বিজ্ঞাপন কেন পেট্রল পাম্পগুলিতে থাকছে তা নিয়েও অভিযোগ জানানো হয়েছে।

অবশ্য এই সমালোচনার মধ্যেই মহারাষ্ট্রের এক শিব সেনা সাংসদের দাবি, মোদি কেবল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বই নন। দেশের প্রধানমন্ত্রীও। আর সেই কারণেই সার্টিফিকেটে তাঁর ছবি রয়েছে। যদিও তাঁর সঙ্গে বিশেষ সহমত হতে দেখা যায়নি বিরোধীদের। ১ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে দ্বিতীয় দফার টিকাকরণ। ষাটোর্ধ্ব এবং ৪৫ বছর বয়স্কদের মধ্যে যাঁদের কো-মর্বিডিটি রয়েছে তাঁদের টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এর মধ্যে প্রথম দিনই টিকা নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যাঁরা টিকা নিচ্ছেন তাঁদের সকলকেই দেওয়া হচ্ছে ডিজিটাল সার্টিফিকেট। আর তাতে থাকছে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর ছবি। কেবল তাঁর ছবিই নয়, সার্টিফিকেটে থাকছে তাঁর বার্তাও। যা নিয়ে দানা বেঁধেছে বিতর্ক। 

[আরও পড়ুন: কারা হবে বিজেপি প্রার্থী? তালিকা চূড়ান্ত করতে দিল্লিতে বৈঠকে বসছে গেরুয়া শিবির]

বিতর্ক শুরু হয়েছে মোদির টিকাকরণ নিয়েও। বিরোধীরা অভিযোগ তুলছেন, মোদির এই টিকাকরণের মধ্যেও নাকি রয়েছে ভোট-অঙ্ক! কেন এমন বলছেন বিরোধীরা? আসলে দিল্লির এইমস হাসপাতালে প্রধানমন্ত্রীকে টিকা দিয়েছেন পুদুচেরির (Puducherry) পি নিবেদিতা নামের এক নার্স। তাঁকে সাহায্য করেছেন কেরলের (Kerala) আরেক নার্স। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর গলায় ছিল অসমের (Assam) গামছা। ভোটের মরশুমে এই সবের মধ্যেও যোগ খুঁজে পাচ্ছেন বিরোধীরা। তাঁদের দাবি, শিগগিরি নির্বাচন রয়েছে কেরল ও অসমে। পাশাপাশি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুদুচেরিতেও রয়েছে ভোট। সেদিকে লক্ষ রেখেই এই তিন রাজ্যকে এভাবে জুড়ে দেওয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর টিকাকরণের সঙ্গে।

[আরও পড়ুন : শান্তিবার্তার মাঝেই দেপসাংয়ে ফের আগ্রাসী লালফৌজ! উপগ্রহ চিত্রে ফাঁস চিনের ষড়যন্ত্র]

Advertisement
Next